Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ১৬ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ২ ১৪২৮ ||  ০৩ জিলক্বদ ১৪৪২

বাজেটে আ.লীগের রেকর্ড, ঐতিহাসিক বলছেন নেতারা

এসকে রেজা পারভেজ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:০৭, ২ জুন ২০২১   আপডেট: ১৫:১৫, ২ জুন ২০২১
বাজেটে আ.লীগের রেকর্ড, ঐতিহাসিক বলছেন নেতারা

দেশে বাজেট ঘোষণার ইতিহাসে অনন্য নজির স্থাপন করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। বৃহস্পতিবার ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য বাজেট ঘোষণার মধ্য দিয়ে ২৩ বারের মতো বাজেট ঘোষণার রেকর্ড মাইলফলক স্পর্শ করবে দলটি।

একই সঙ্গে টানা ১৩তম বারের মতো বাজেট ঘোষণার রেকর্ডটিও আওয়ামী লীগের। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ১৯তম বাজেট দেওয়ার রেকর্ডও। বাংলাদেশে মোট ৫০টি বাজেটের মধ্যে ২৩টিই এখন আওয়ামী লীগ সরকারের।

বিষয়টিকে ঐতিহাসিক উল্লেখ করে দলটির নেতারা বলেছেন, দেশের জনগণ এতোবার বাজেট উপাস্থাপনের সুযোগ দিয়ে প্রমাণ করেছে তাদের ভাগ্যোন্নয়নে আওয়ামী লীগই তাদের আস্থা এবং বিশ্বাসের ঠিকানা। করোনার সময়ে এবারের বাজেট জনহিতকর এবং সব সেক্টরের মানুষের আশা পূরণ হবে বলেও মনে করেন তারা।

বৃহস্পতিবার (৩ জুন) জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল দেশের ৫০তম বাজেট উপস্থাপন করবেন। অর্থমন্ত্রী হিসেবে এটা তার তৃতীয় বাজেট। বেলা ৩টায় সংসদ অধিবেশন শুরু হবে। এবারের বাজেটের সম্ভাব্য আকার হতে পারে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা।  স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম ৭৮৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়। এই ৫০ বছরে বাজেট বেড়েছে ৭৬৮ গুণ।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হবে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক।  গত বছরের মতো এবারের বাজেটে করোনা প্রতিরোধ এবং পরবর্তী সময়ে অর্থনীতিকে চাঙা করার বিষয়টি গুরুত্ব পাচ্ছে বলে অর্থ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।

ওইদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদ সভায় ২০২১-২০২২ অর্থবছরের বাজেট অনুমোদন দেওয়া হবে। নিয়ম অনুযায়ী এ সময় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ জাতীয় সংসদে তার অফিস কক্ষে উপস্থিত থাকবেন।  মন্ত্রিপরিষদ সভায় নতুন বাজেট অনুমোদনের পর রাষ্ট্রপতি সম্মতি দিলে তা সংসদে উপস্থাপন করা হবে।

রেকর্ডবার বাজেট ঘোষণার প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক রাইজিংবিডিকে বলেন, কোভিড-১৯ এর সংক্রমণে সারাবিশ্ব ক্ষত-বিক্ষত।  আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের প্রধান শেখ হাসিনা রাষ্ট্রনায়োকোচিত পদক্ষেপের কারণে কোভিড পরিস্থিতি উত্তরণ করে আজ বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ  অর্থের বাজেট ঘোষণা করেছে।  এটি বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি মাইলফলক, ঐতিহাসিক বাজেট। এই যে এতবার বাংলাদেশের জনগণ আওয়ামী লীগকে বাজেট ঘোষণার সুযোগ দিয়েছে এটি তাদের ভালোবাসা, আস্থার বহিঃপ্রকাশ।

এই বাজেট জনহিতকর মানুষ থেকে শুরু করে দেশের সব সেক্টরে মানুষের মনের আশা পূরণ করবে আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, দীর্ঘ লড়াই সংগ্রাম করে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব এই দেশ স্বাধীন হয়েছে।  তারই কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজকে ঐতিহাসিক বাজেট ঘোষিত হচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে জনগণ প্রমাণ করেছে স্বাধীনতাকামী, মুক্তিযুদ্ধে চেতনায় সমৃদ্ধ এই দলকেই বাংলাদেশের মানুষ তাদের ভাগ্য পরিবর্তনে সপে দিয়েছে। দেশকে উন্নয়নে এগিয়ে নিতে এবারের বাজেট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম রাইজিংবিডিকে বলেন, আওয়ামী লীগ সৃষ্টিলগ্ন থেকেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লক্ষ্য ছিল বাংলাদেশের মানুষের সুখ শান্তি সমৃদ্ধি।  দেশ স্বাধীন হওয়ার পর স্বাধীনতার ৫০ বছরে আওয়ামী লীগ ২৩ বছর যে বাজেট প্রণয়ন করেছে এটা জনগণের আস্থার বহিঃপ্রকাশ। সেই আস্থা বিশ্বাস ভালোবাসা সুযোগ নিয়ে আমরা দেশের কল্যাণে আমাদের নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০৪০ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ গঠনের প্রতয় নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি।

জনগণের কল্যাণে দেশের মানুষের উন্নয়নে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে আওয়ামী লীগ কাজ যাবে জানিয়ে দলটির এই শীর্ষ নেতা বলেন, জনগণের আস্থা ও বিশ্বাসের এই জায়গা আমরা রক্ষা করতে চাই। সুশাসন এবং দুর্নীতি বিরুদ্ধে আমাদের যে অবিচল আস্থা ও বিশ্বাসের জায়গা আরও পরিস্কার করতে চাই। আওয়ামী লীগ দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি এবং আত্মনির্ভরশীলতাকে আরও সমৃদ্ধ করার জন্য সেবামুলক কর্মকাণ্ড এবং জনকল্যাণমুখী সেবা নিশ্চিত করবে। এই বাজেট প্রণয়নের মধ্য দিয়ে জনগরে স্বার্থ রক্ষা করতে চাই।

১৯৭২ সালের ৩০ জুন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বাধীন সরকার স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম বাজেট পেশ করে।  তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকারের অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ উপস্থাপিত সেই বাজেট ছিল ৭৮৬ কোটি টাকার।

এরপর ১৯৭৩ ও ১৯৭৪ সালে দেশের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বাজেট পেশ করেন তাজউদ্দীন আহমদ। ১৯৭৫ সালের ২৩ জুন বঙ্গবন্ধু সরকারের দ্বিতীয় অর্থমন্ত্রী হিসেবে ড. এআর মল্লিক বাংলাদেশের চতুর্থ বাজেট উপস্থাপন করেন, যা ছিল বঙ্গবন্ধু সরকারের শেষ বাজেট।

ওই বাজেটের আকার ছিল ১ হাজার ৫৪৯ কোটি ১৯ লাখ টাকা। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সপরিবারে নিহত হওয়ার পর টানা ২১ বছর আওয়ামী লীগ ক্ষমতার বাইরে ছিল।  ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় ফেরে আওয়ামী লীগ। ২০০৮ সালে আবারো ক্ষমতায় এসে টানা সরকার পরিচালনা করছে দলটি।

পারভেজ/সাইফ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়