Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ৯ ১৪২৮ ||  ১২ জিলহজ ১৪৪২

লকডাউনের আগের দিনে বিনোদনকেন্দ্রে ভিড়

এসকে রেজা পারভেজ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৪৩, ২২ জুলাই ২০২১   আপডেট: ০৮:৫৭, ২৩ জুলাই ২০২১
লকডাউনের আগের দিনে বিনোদনকেন্দ্রে ভিড়

আগামীকাল শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে শুরু হচ্ছে কঠোর লকডাউন। এর আগের দিন ঈদের ছুটিতে রাজধানীর বিনোদনকেন্দ্রগুলোতে দেখা গেছে উপচে পড়া ভিড়। হাতিরঝিল, চন্দ্রিমা উদ্যান, সংসদ ভবন এলাকা, মিরপুরের শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের মতো জায়গাগুলোতে ঘুরতে বের হয়েছেন অনেকে।

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার ঊধ্বমুখী হলেও বিনোদনকেন্দ্রগুলোতে ঘুরতে আসা বেশিরভাগ মানুষের মাঝে স্বাস্থ্যবিধি মানতে অনীহা দেখা গেছে। মাত্র ১৫-২০ ভাগ মানুষকে মাস্ক পরতে দেখা গেছে। কেউ কেউ থুতনি বা গলায় ঝুলিয়ে রেখেছেন মাস্ক।

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে পবিত্র ঈদুল আজহার ছুটি শেষে শুক্রবার (২৩ জুলাই) ভোর ৬টা থেকে শুরু হচ্ছে কঠোর লকডাউন। গতবারের চেয়ে এই লকডাউন কঠিন হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

তিনি বলেছেন, ‘লকডাউন শিথিল হবে না। গতবারের চেয়ে কঠিন হবে এবার। লকডাউন চলাকালে বিধিনিষেধ প্রতিপালন নিশ্চিত করতে পুলিশ, বিজিবি ও সেনাবাহিনী মাঠে থাকবে।’

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেছেন, ‘এই লকডাউনে অফিস-আদালত, কলকারখানা সবকিছুই বন্ধ থাকবে। বিধিনিষেধ থাকবে আগের মতোই।’

বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) ঈদুল আজহার দ্বিতীয় দিন। ঈদের দিন নানা ব্যস্ততায় সময়ে বের করতে না পারেননি অনেকে। তাই, ঈদের পরদিন পরিবার-স্বজন নিয়ে ঘুরতে বের হয়েছেন তারা। কঠোর লকডাউনের আগে একটু প্রশান্তির জন্য খোলা পরিবেশে ঘুরতে বের হয়েছেন নগরবাসী।  

সংসদ ভবন এলাকার চন্দ্রিমা উদ্যানে পরিবার নিয়ে ঘুরতে এসেছিলেন চাকরিজীবী শামীম তালুকদার। তিনি বলেন, ‘ঈদের দিন সময় বের করতে পারিনি। কোরবানির মাংস প্রস্তুত, বিলি-বণ্টনসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলোতে যুক্ত থাকায় সময় বের করতে পারিনি। তাই, আজ স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে ঘুরতে এসেছি।’

স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে দারুণ সতর্ক জুয়েল হোসেন। পরিবার নিয়ে রাজধানীর হাতিরঝিলে ঘুরতে এসেছেন তিনি। অনেককে স্বাস্থ্যবিধি না মানতে দেখে বেশ বিরক্ত জুয়েল। তিনি বলেন, ‘সারা বিশ্বে মতোই আমাদের দেশে মাস্ক না পরার কারণে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে।’

কঠোর লকডাউনের খবর শোনার পর এর আগের দিন ঘুরতে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জুয়েল হোসেন। তিনি বলেন, ‘কাল থেকে লকডাউন শুরু হচ্ছে। বেশ কয়েকদিন ঘরেই থাকতে হবে। তাই ভাবলাম, একটু খোলা পরিবশে থেকে ঘুরে আসি।’
রাজধানীর মিরপুরের শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে ছুটির দিন ও বিশেষ দিনগুলোতে বেশি ভিড় থাকে। ঈদের পরদিনও ব্যাপক ভিড় দেখা গেছে এখানে। তবে ঘুরতে আসা মানুষের মধ্যে খুব কম সংখ্যক মানুষকেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক ব্যবহার করতে দেখা গেছে।    

পারভেজ/রফিক

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়