ঢাকা, শনিবার, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ০৪ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

রহস্যময় মহাজাগতিক বস্তুটি হাইড্রোজেন আইসবার্গ!

আহমেদ শরীফ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৬-০৩ ১১:৫৮:০১ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৬-০৩ ১২:২৫:৫৫ পিএম

তিন বছর আগে মহাকাশ বিজ্ঞানীদের চমকে দিয়ে আমাদের সৌরজগতে প্রবেশ করে চুরুট আকৃতির একটি মহাজাগতিক বস্তু, যার নাম দেওয়া হয় ওমুয়ামুয়া। সে সময় বিজ্ঞানীরা চিন্তায় পড়ে যান, এটি আসলে কী তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে।

নতুন এক গবেষণায় বিজ্ঞানীরা বলছেন, রহস্যময় ওই মহাজাগতিক বস্তুটি ‘হাইড্রোজেন আইসবার্গ’ হতে পারে। হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীরা বলছেন, অনেকে যেমন সন্দেহ করেছিল এটি ভিনগ্রহের প্রাণীদের কোনো স্পেসশিপ; প্রকৃতপক্ষে বস্তুটি তা নয়। বিজ্ঞানীরা লালচে ধরনের এই মহাজাগতিক বস্তুটিকে ১৪ অক্টোবর, ২০১৭ থেকে ২ জানুয়ারি, ২০১৮ পর্যন্ত পর্যবেক্ষণ করেছেন। এরপর সেটি ধীরে ধীরে তার রং হারিয়ে ফেলে বলে তাকে শক্তিশালী টেলিস্কোপের মাধ্যমেও শনাক্ত করা যাচ্ছিল না।

লেটার্স অব দ্য অ্যাস্ট্রোফিজিক্যাল জার্নালে নতুন এক গবেষণা প্রকাশিত হতে যাচ্ছে। তাতে বলা হয়েছে, একটি বিশাল মলিকিউলার ক্লাউড এই মহাজাগতিক বস্তুটি তৈরি করেছে। সেখান থেকে এটি ছিটকে এসে পড়েছে অনেকটা আইসবার্গ বা হিমবাহের মতো। মলিকিউলার ক্লাউড থেকে অগণিত নক্ষত্র তৈরি হয়, তবে সেখান থেকে এ ধরনের মহাজাগতিক আইসবার্গও তৈরি হতে পারে প্রথমবারের মতো জানিয়েছিল উইয়ার্ড ম্যাগাজিন। সেসব মলিকিউলার ক্লাউডে হাইড্রোজেন জমে শক্ত হয়ে যায় বলে দাবি করেছেন গবেষকরা।

নতুন গবেষণায় এটা নিশ্চিত করে গবেষকরা বলছেন যে, ওই রহস্যময় মহাজাগতিক বস্তুটি আসলে জমাটবাধা হাইড্রোজেনের বরফ। তারা বলছেন সাবান যেমন দিনে দিনে ক্ষয় হয়ে পাতলা হয়ে যায়, তেমনি এই মহাজাগতিক বস্তুটিও দীর্ঘ সময়ে ক্ষয়ে গেছে।

এই মহাজাগতিক বস্তুটির ভেতরে গ্যাস ফুটছে। যে কারণে এটি মহাকাশ থেকে ছুটে এসে সৌরজগতে প্রবেশ করেছে- গবেষকরা আগে এমনটাই বলেছিলেন। নতুন গবেষণায় গবেষকরা বলছেন, সেই গ্যাসটি হাইড্রোজেন হতে পারে। 



ঢাকা/ফিরোজ/তারা