Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৯ ১৪২৭ ||  ১৯ রজব ১৪৪২

করোনাকালে আসছে নতুন নতুন ই-কমার্স

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৩২, ২৭ জানুয়ারি ২০২১  
করোনাকালে আসছে নতুন নতুন ই-কমার্স

করোনাকালে দেশীয় ই-কমার্সে যেমন বড় উত্থান হয়েছে তেমনি এসেছে নতুন নতুন সব কোম্পানি। যখন একের পর এক প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়েছে, পরিধি গুটিয়ে ছোট করা হচ্ছে- তখন একের পর এক এসেছে নতুন ই-কমার্স।

ঘরবন্দি মানুষের জীবনযাত্রা স্বাভাবিক রাখতে ই-কমার্সগুলো যে অবদান রেখেছে তার ফলও পেয়েছে এই খাত। ই-কমার্সগুলোর মধ্যে বিশেষ করে গ্রোসারি কয়েকগুণ প্রবৃদ্ধি অর্জন করে। এরপরই ছিল প্রযুক্তিপণ্য বিশেষ করে গ্যাজেটস (ল্যাপটপ, রাউটার, মডেম, ওয়েবক্যাম, স্মার্টফোন ইত্যাদি)। 

ই-কমার্সের এই প্রবৃদ্ধির হাত ধরে করোনাকালের মধ্যেও এসেছে নতুন নতুন ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান, যা এখনও অব্যাহত আছে। করোনা যায়নি। নতুন নতুন কোম্পানিও আসা বন্ধ হয়নি। নতুন আসা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে সেরাবাংলা৬৪ ডটকম, সেলেক্সট্রা ডটকম ডটবিডি, বি৭১বিডি ডটকম, ধামাকা শপিং, আলিশামার্ট ডটকম ইত্যাদি।

এ বিষয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আজ থেকে ১০ বছর আগে বলেছিলাম আগামীতে প্রচলিত ব্যবসা থাকবে না। ডিজিটাল মাধ্যমে প্রচলিত ব্যবসা রূপান্তর হবে। এটাই ই-কমার্স। দেশে ই-কমার্সের উত্থান ও এবং বড় বড় কোম্পানির এগিয়ে আসা দেখে মন্ত্রী বলেন, আগামীতে ই-কমার্সের শো-রুমই হবে ইন্টারনেট। গোডাউন বলে কিছু থাকবে না।

কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশ অনলাইন লেনদেনও বেড়েছে। ধীরে ধীরে ব্যাংকিং, লজিস্টিক কমিউনিকেশন এবং পেমেন্ট মেথডের উন্নতির হাত ধরে ই-বিজনেস সেক্টরটির উন্নয়নের অনেক সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে বিভিন্ন ক্ষেত্র বিশেষ করে ব্যাংকিং ক্ষেত্রটি ইন্টারনেট পেমেন্ট সিস্টেম ব্যবহার করছে। গ্রাহকদের কাছে এখন ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ড সেবা এবং ডিজিটাল ওয়ালেট আরও বেশি সহজলভ্য। লকডাউনের পর লোকজন এগুলোর প্রতি আরও বেশি ঝুঁকছে। বর্তমানে এ ধরনের সেবা কারও কাছেই অপরিচিত নয়।

ই-কমার্সে আগমন প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নতুন প্রতিষ্ঠান বি৭১বিডি ডট কমের প্রধান নির্বাহী মো. মনিরুজ্জামান মৃধা বলেন, দেশে তথ্যপ্রযুক্তির সুবিধা শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত বিস্তৃত হওয়ায় ই-কমার্স সম্প্রসারণের সুযোগ তৈরি হয়েছে। অনলাইন শপে ক্রেতা ও বিক্রেতার মাঝে কোনো মধ্যস্বত্বভোগী নেই। এ কারণে ই-কমার্স নির্ভর আগামী গড়ার প্রত্যয়ে স্মার্ট জীবনের লক্ষ্য হিসেবে ভবিষ্যতের ক্রেতারা ই-কমার্সকে বেছে নেবেন। এজন্যই ই-কমার্সে আসা।

তিনি বলেন, ই-কমার্স নিয়ে দিন দিন মানুষের আগ্রহ বাড়ছে। সে আগ্রহই মূলত একটি ই-কমার্স’র মূল উপজীব্য। তাই প্রতিযোগিতার ভিড়ে পণ্যের দাম, মান, পণ্য বিক্রয় পরবর্তী সেবা নিশ্চিত করা, ক্রেতাদের ভালো ভালো রিভিউ এবং সময়ে সময়ে ক্রেতাদের বিশেষ সুবিধার কথা ভেবে পণ্যের ওপর বিশেষ ছাড় দেওয়ার মাধ্যমে ক্রেতাদের আকৃষ্ট করাই হবে আমাদের প্রতিষ্ঠানের মূল হাতিয়ার ও কৌশল। তিনি মনে করেন, ই-কমার্সে ক্রেতা আনার চেয়ে ধরে রাখাই বড় কঠিন।

এ প্রসঙ্গে বি৭১বিডি ডটকমের বক্তব্য হলো, প্রায় সব পণ্যেরই দাম ও মানের তারতম্য থাকে। বাজারে একটি পণ্য আসার কিছুদিন পর অন্য কোম্পানি বা ব্র্যান্ডের নতুন পণ্য নতুন নতুন সুযোগ-সুবিধা নিয়ে বাজারে হাজির হয়। সময়ে সময়ে বাজারে একই পণ্য বা উপকরণের ওপর আরও অনেক ভেরিয়েশন তৈরির বিষয়টি ক্রেতাদের জানানো প্রয়োজন। ক্রেতাদের সেসব পণ্যের উপকারিতা এবং উপযোগিতা সম্পর্কে সচেতন করার মাধ্যমে তাদের ধরে রাখার পদক্ষেপ গ্রহণ করা যেতে পারে। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী মো. মনিরুজ্জামান মৃধা বলেন, আমরা ক্রেতা ধরে রাখার চেষ্টাই করবো।

ঢাকা/ফিরোজ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়