ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৯ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৯ ||  ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

রোবট অলিম্পিয়াডের নিবন্ধন শুরু

প্রকাশিত: ২১:৩৮, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২   আপডেট: ২১:৪৫, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
রোবট অলিম্পিয়াডের নিবন্ধন শুরু

দেশে পঞ্চমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াড ২০২২ (বিডিআরও ২০২২)।

আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশ দলের ধারাবাহিক সাফল্যের প্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীদেরকে রোবটিক্সের প্রতি আগ্রহী করে তোলা ও রোবট পরিচালনায় তাদের দক্ষতা যাচাই করার জন্য এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।

রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) অনলাইনে ৫ম বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াড ২০২২-এর রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াড একটি গৌরবজ্জ্বল বিষয় হয়েছে দেশের জন্য।’ আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে প্রথমবার অংশ নিয়েই স্বর্ণপদক অর্জন এরপর শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ আরও বেড়ে যাওয়া দেশের জন্য অনেক সম্মানের বলে জানান সিনিয়র সচিব।

৫ম বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াড যৌথভাবে আয়োজন করছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এবং বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক। এই কার্যক্রমের বাস্তবায়ন সহযোগী হিসাবে আছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর। 

রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম উদ্বোধন করার পর সিনিয়র সচিব বলেন, ‘মানুষের দৈনন্দিন জীবনে রোবটের চাহিদা বাড়ছে। ইন্টারনেট অব থিংস, হার্ডওয়্যার, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ও ভার্চুয়াল রিয়েলিটির ব্যবহার সবখানেই বেড়ে গেছে। রোবটের এই বিষয়গুলো ভালোভাবে শিখে শিক্ষার্থীরা তাদের কর্মজীবনে প্রবেশ করলে অনেক বিষয়ের দক্ষতার প্রমাণ দিতে পারবে। এ কাজে আইসিটি বিভাগ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।’ এছাড়া দেশের ৩শ সংসদীয় এলাকায় স্থাপিত রোবটিক ল্যাব ‘শেখ রাসেল স্কুল অব ফিউচার’ এর মাধ্যমে এবছর রোবট অলিম্পিয়াডের অ্যাক্টিভেশন কার্যক্রম ও ৮টি বিভাগীয় শহরে ১০টি হাতেকলমে রোবটিক্স শেখার কর্মশালা আয়োজন করা হবে বলে জানান তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করার পাশাপাশি অনলাইন রেজিস্ট্রেশন এর নিয়মাবলী উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের সভাপতি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. লাফিফা জামাল। এছাড়া তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. মোস্তফা কামাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি’র সহযোগী অধ্যাপক ড. বি এম মাইনুল হোসেন এ আয়োজনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা তাদের মেধাকে চতুর্থ শিল্পবিপ্লব মোকাবেলায় ব্যাবহার করবে বলে আশা করেন। এ সময় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (প্রশাসন) মো. ফিরোজ সরকারসহ আরো অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। পুরো আয়োজনটা সঞ্চালনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারপার্সন ড. সেঁজুতি রহমান। 

এ বছর বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের মূল থিম ‘স্মার্ট সিটি’। ২০০৪ সাল বা তারপর জন্মগ্রহণ করা যেকোনো বাংলাদেশি শিক্ষার্থী বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে। রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম চলবে আগামী ১২ অক্টোবর ২০২২ পর্যন্ত। রেজিস্ট্রেশন করা যাবে https://bdro.org এই ঠিকানায়।  

আগামী ২৫-২৬ অক্টোবর বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের জাতীয় পর্ব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। এ বছর মোট ৫টি ক্যাটাগরিতে জাতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। এগুলো হলো- ক্রিয়েটিভ ক্যাটাগরি, রোবট ইন মুভি, রোবট গ্যাদারিং, ফিজিক্যাল কম্পিউটিং ও রোবটিকস কুইজ। প্রতিটি প্রতিযোগিতা জুনিয়র এবং চ্যালেঞ্জ- এই দুটি ক্যাটাগরিতে অনুষ্ঠিত হবে। যাদের বয়স ৭-১২ বছরের মধ্যে তারা জুনিয়র গ্রুপে এবং যাদের বয়স ১৩-১৮ বছরের মধ্যে তারা চ্যালেঞ্জ গ্রুপে প্রতিযোগিতা করবে।

জাতীয় পর্বে বিজয়ীদের মধ্য থেকে পরবর্তীতে হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ এবং ওয়ার্কশপের মাধ্যমে নির্বাচিত শিক্ষার্থীরাই ২৪তম আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে থাইল্যান্ডের ফুকেট শহরে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে।

/ফিরোজ/

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়