ঢাকা, বুধবার, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২০ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

দুর্নীতির অভিযোগে নিষিদ্ধ আমিরাতের তিন ক্রিকেটার

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৬ ১০:৪২:৫৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-১৬ ১০:৪২:৫৮ পিএম

আর একদিন পরই শুরু হচ্ছে ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। তার আগে টুর্নামেন্টের গায়ে লাগল দুর্নীতির কালিমা। আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী বিধির বেশ কয়েকটি ধারা ভঙ্গের অভিযোগে টুর্নামেন্টের স্বাগতিক দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের তিন ক্রিকেটারকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

নিষেধাজ্ঞা পাওয়া তিন ক্রিকেটার হলেন মোহাম্মদ নাভিদ, শাইমান আনোয়ার ও ডানহাতি পেসার কাদির আহমেদ। এছাড়া আজমানের ক্রিকেটার মেহেরদীপ ছায়াকরের বিরুদ্ধেও দুর্নীতি বিরোধী বিধির একাধিক ধারা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে বলে বুধবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে আইসিসি।

নাভিদ এবং শাইমানের বিরুদ্ধে আগামী শুক্রবার ১৪ দল নিয়ে শুরু হতে যাওয়া বাছাইপর্বে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের পরিকল্পনার অভিযোগ আনা হয়েছে। আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী ইউনিটের (আকসু) কাছে ফিক্সিং প্রস্তাবের বিস্তারিত না জানানোর অভিযোগও আনা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। নাভিদের বিরুদ্ধে আসন্ন টি-টেন লিগেও ম্যাচ ফিক্সিংয়ের পরিকল্পনার অভিযোগও আনা হয়েছে।

এ সপ্তাহের শুরুতে নাভিদকে আমিরাত দলের অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি দল থেকেও বাদ দেয় তাদের ক্রিকেট বোর্ড। তখন বোর্ড এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কোনো ব্যাখ্যা দেয়নি। তবে বুধবার আইসিসির বিবৃতির পর সব পরিষ্কার হয়ে গেল।

এ বছরের এপ্রিলে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ও আগস্টে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে সিরিজে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়ে সেটি না জানানোর জন্য অভিযুক্ত হয়েছেন ৩৩ বছর বয়সি কাদির। তদন্ত কাজে আকসুকে অসহযোগিতার জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে মেহেরদীপকে।

এই চার ক্রিকেটার অভিযোগের জবাব দেওয়ার জন্য ১৬ অক্টোবর থেকে ১৪ দিন সময় পাবেন।


ঢাকা/পরাগ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন