ঢাকা     সোমবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১৩ ১৪২৭ ||  ১০ সফর ১৪৪২

ভারত সিরিজ নিয়ে আত্মবিশ্বাসী আল আমিন

আব্দুল্লাহ এম রুবেল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৪০, ১৮ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
ভারত সিরিজ নিয়ে আত্মবিশ্বাসী আল আমিন

দীর্ঘদিন জাতীয় দলের জার্সি দেখা যায়নি পেসার আল আমিন হোসেনকে। সাম্প্রতিক সময়ে ছিলেন না বিসিবির ‘এ’ দল কিংবা হাই পারফরমেন্স দলেও। জাতীয় ক্রিকেট লিগ শুরুর আগে নিজের আক্ষেপের কথা জানিয়েছিলেন সংবাদ মাধ্যমকে। এবার হঠাৎ করেই সুযোগ পেয়ে গেলেন জাতীয় দলে। ভারত সফরের টি-টেয়েন্টি দলে তাকে রেখেই স্কোয়াড ঘোষণা করেছে বিসিবি। নিজের এই সুযোগকে অপ্রত্যাশিত বললেও সব সময় সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলার প্রস্তুত ছিলেন। জয় করতে চান ভারত সফরের চ্যালেঞ্জকেও। শুক্রবার খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে খুলনা ও রাজশাহী ম্যাচের ফাঁকে কথা হয় রাইজিংবিডির সাথে। বলেছেন সুযোগটাকে কাজে লাগানোর কথাও। উপভোগ করতে চান লাল সবুজ জার্সি পড়ে তার নতুন অধ্যায়কে। রাইজিংবিডির পাঠকদের জন্য সাক্ষাৎকারের চৌম্বক অংশ তুলে ধরা হলো।

রাইজিংবিডি : অভিনন্দন। দীর্ঘদিন বিসিবির কোন দলেই ছিলেন না আপনি। এনসিএলে একটি ম্যাচেই হঠাৎ করেই এই ডাক পাওয়াটা কতটুকু প্রত্যাশিত ছিল?

আল আমিন : জাতীয় দলে সাধারণত স্টেপ বাই চান্স পেতে হয়। বিশেষ করে নতুন খেলোয়াড়দের ক্ষেত্রে। যারা পুরোনো তাদের ক্ষেত্রে অনেক সময় স্টেপগুলো ফলো করে, অনেক সময় করে না। কোথাও ছিলাম না, তবে যখনই যেখানে খেলেছি, সেখানে ভালো খেলার চেষ্টা করেছি। ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছি। সব সময় প্রস্তুত ছিলাম। আমার একটা বিশ্বাস ছিল সুযোগ আসবে, সুযোগটাকে কাজে লাগাতে হবে। হ্যাঁ, সুযোগটা অপ্রত্যাশিত ছিল। সাধারণত একটা টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার পর ভালো করলে, সেখান থেকে ডাক আসে। তবে আমি এখানে একটা ম্যাচ খেলেছি। ফিটনেসও ভালো আছে। এখন হয়তো নির্বাচকরা যে কোন চিন্তা করেই আমাকে দলে নিয়েছে। আমিও চেষ্টা করব সুযোগটাকে কাজে লাগানোর।

রাইজিংডিবি : এই অপ্রত্যাশিত সুযোগ পাওয়ার অনুভুতিটা কেমন ?

আল আমিন : আসলে বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করাটা সব সময়ই আনন্দের এবং গর্বের। যেভাবেই হোক তিন বছরের উপর দলের সাথে ছিলাম না, এখন আবার জাতীয় দলের একটা সুযোগ আসছে। ভালো লাগছে যে ওই জায়গাটা আবার খেলতে পারব।

রাইজিংবিডি : তিন বছরে নিজের মধ্যে কোন জিনিসটার পরিবর্তন টের পাচ্ছেন?

আল-আমিন : সত্যি বলতে এখন আমি অনেক সুশৃঙ্খল। এটা নিয়ে হয়তো হাসাহাসি করতে পারে অনেকে। কিন্তু আমি নিজের সত্যটা জানি। আমি জানি আমি নিজে থেকে কতোটা শুধরেছি। ব্যক্তি জীবনে, খেলোয়াড়ী জীবনে...আমি এখন বিশ্বাস করি শৃঙ্খলা একজন মানুষকে অনেক ওপরে উঠায়, আবার নিচে নামায়। নিয়ম শৃঙ্খলা, অধ্যবসায় সবকিছুতে এখন আমি অনেক পরিণত।

রাইজিংবিডি : জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পরই কি এ পরিবর্তন হয়েছে?

আল-আমিন : নাহ। জাতীয় দল অনেক দূরে। আমি ব্যক্তিগত জীবনের কথা বলছি। এটা আমাকে নতুন করে ভাবতে শিখিয়েছে। আমি বিশ্বাস করি আমি যদি আমার কাজগুলো ঠিকমতো করি তাহলে একদিন আমার সুযোগ আসবে। আমি শেষ এক বছর বা তারও বেশি সময় নিজেকে নিয়ে কাজ করেছি।

রাইজিংবডি : এনসিএলের দুইটা রাউন্ড হচ্ছে। বোলিং করেছেন। কতটা আত্মবিশ্বাসী ?

আল আমিন : আসলে ফিটনেস নিয়ে আমি খুব ভালো অবস্থানে আছি। চেষ্টা করছি ফিল্ডিংটা উন্নতি করার। আল্লাহর রহমতে ভালো হচ্ছে। পাশাপাশি বোলিংটা খুব ভালো হচ্ছে। লাইন, লেন্থ বা চারদিনের ম্যাচে যে লেন্থে বল করা দরকার, সেটা করতে পারছি। সব কিছু মিলে যদি একাদশে সুযোগ পাই ভালো কিছু হবে আশা করি।

রাইজিংবিডি : টি-টোয়েন্টিতে আপনার রেকর্ড বেশ ভালো। বিশেষ করে ভারতের বিপক্ষে। সেই টি-টোয়েন্টিতে আবার কামব্যাক। আলাদা কোন চ্যালেঞ্জ মনে হচ্ছে ?

আল আমিন : সর্বশেষ ভারতেই আমি টি-টোয়েন্টি খেলেছিলাম, সম্ভবত নিউজিল্যান্ডের সাথে। কলকাতার ইডেন গার্ডেনে ২৭ রানে ২ উইকেট পেয়েছিলাম। টি-টোয়েন্টি আমার একটা পছন্দের ফরমেট। নিজের পছন্দের একটা ফরমেটে ফেরা, ওয়েল কনফিডেন্স যে ভালো কিছু হবে।

রাইজিংবিডি : ভারত সিরিজে নিজের কোন পরিকল্পনা আছে কি না?

আল আমিন : এখন যেহেতু আমি খেলার মধ্যে আছি। এখনই কিছু প্ল্যান করছি না। খেলা শেষে ক্যাম্প শুরু হোক। সেখানেই প্ল্যান করব। তবে আমি এতটুকু বলব, ভালো করার ব্যাপারে আমি আত্মবিশ্বাসী।


খুলনা/রুবেল/আমিনুল

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়