ঢাকা, রবিবার, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৭ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

হার্টসবুকের পৃষ্ঠপোষকতায় হচ্ছে টি-২০ ক্রিকেট

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-২২ ৫:০৯:৪০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-২২ ৫:০৯:৪০ পিএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ‘হার্টসবুক’ (এইচবি) এর পৃষ্ঠপোষকতায় ১ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট।

২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে রাজধানীর মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে হার্টসবুক প্রিমিয়ার লিগ (এইচবিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট এর শুভ মহরত অনুষ্ঠিত হয়।

হার্টসবুক-এর চেয়ারম্যান অ্যান্ড সিইও মেজবাহ্ উদ্দিন সরকার রুবেলের সভাপতিত্বে কেক কেটে শুভ মহরত উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, হার্টসবুক-এর ভাইস চেয়ারম্যান অ্যান্ড ডিরেক্টর মাহাবুবা মোহাম্মদ বাবন সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যান্ড ডিরেক্টর শামিমা সরকার প্রমুখ।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, ‘বাংলাদেশে যে কয়টি খেলা আন্তর্জাতিক সুনাম বয়ে এনেছে, ক্রিকেট তার মধ্যে অন্যতম। ক্রিকেটকে অনেক দূর এগিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্যে হার্টসবুক এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করছে। এ ধরণের আয়োজন যত বেশি করা যাবে, ততো বেশি খেলোয়াড় তৈরি হবে। খেলাধুলাকে এগিয়ে নিতে এই সরকার কাজ করছে।’

এদিকে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ধর্মঘট প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘ধর্মঘট প্রত্যাহার করে দ্রুত সময়ের মধ্যে খেলোয়াড়দের মাঠে ফিরিয়ে আনতে ক্রিকেট বোর্ডকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে খেলোয়াড়রা মাঠে ফিরবেন।’

সভাপতির বক্তব্যে হার্টসবুক-এর চেয়ারম্যান অ্যান্ড সিইও মেজবাহ্ উদ্দিন সরকার রুবেল বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হার্টসবুক-এর পৃষ্ঠপোষকতায় সারাদেশে হার্টসবুক প্রিমিয়ার লিগ টি-২০ বা এইচবিপিএল নামে এই ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। সংক্ষিপ্ত পরিসরের ক্রিকেটকে দেশব্যাপী আরো আকর্ষণীয় এবং জনপ্রিয় করতেই হার্টসবুক-এর এ আয়োজন।’

তিনি বলেন, ‘দেশের সকল মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয় এবং জেলা-উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন ক্লাব থেকে উদীয়মান ক্রিকেটার (নারী/পুরুষ) খুঁজে বের করে বিশ্বকে উপহার দেয়াই হচ্ছে টুর্নামেন্টের মূল লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য।’

টুর্নামেন্ট হবে নকআউট পদ্ধতিতে। প্রতিটি দলে ১৫ জন করে ক্রিকেটার থাকবে। দেশের আটটি বিভাগ থেকে প্রাথমিক বাছাই শেষে মোট ১৬টি দল চূড়ান্ত পর্বে অংশগ্রহণ করবে।

হার্টসবুক-এর এ আয়োজন দেশের উদীয়মান ও মেধাবী ক্রিকেটার বের করে আনবে। ভবিষ্যতে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে অংশগ্রণের মাধ্যমে এসকল মেধাবী ক্রিকেটার বাংলাদেশের মুখ আরো উজ্জল করবে বলে মনে করেন মেজবাহ্ উদ্দিন সরকার রুবেল। 

টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ ও রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি : যে কোনো স্মার্টফোনের সাহায্যে Google play store থেকে  events option অ্যাপটি ডাউনলোড করে সাইন আপ করে খুব সহজেই রেজিস্ট্রেশন করা যাবে। খেলোয়াড় বাছাই চলবে ৩১ জানুয়ারি ২০২০ইং তারিখ পর্যন্ত।

প্রাইজমানি : চ্যাম্পিয়ন দল পাবে পাঁচ লক্ষ টাকা, ট্রফি ও মেডেল। রানারআপ দলের জন্য থাকছে তিন লক্ষ টাকা, ট্রফি ও মেডেল। এ ছাড়াও ম্যান অব দ্য ম্যাচ, প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট, হার্টসবুক সুপার ক্যাচ, হার্টসবুক সুপার ফিল্ডার, হার্টসবুক সুপার সিক্স এবং হার্টসবুক সুপার ফোর এর পুরস্কার থাকবে।


ঢাকা/নঈমুদ্দীন/সনি

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন