ঢাকা, বুধবার, ২৭ কার্তিক ১৪২৬, ১৩ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ওয়ালটন আন্তর্জাতিক জুনিয়র টেনিসে আদিত্য ও মেংকে চ্যাম্পিয়ন

ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-০৮ ৭:৪৮:৫৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-০৮ ৮:১৩:৫৭ পিএম

‘ওয়ালটন রেফ্রিজারেটর ৩৩তম আন্তর্জাতিক জুনিয়র টেনিস প্রতিযোগিতা-২০১৯’ আজ শুক্রবার ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে। এবারের এই প্রতিযোগিতার ছেলেদের এককে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন ভারতের আদিত্য বিশাল বালসেকার। আর মেয়েদের এককে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন চীনের মেংকে লি।

ছেলেদের এককে রানার্স-আপ হয়েছেন ভারতের জয়শাভিন সিদানা। ফাইনালে জয়শাভিনকে ৬-৪, ৬-৪ গেমে হারান আদিত্য। এদিকে মেয়েদের এককের ফাইনালে ওয়াক ওভার পেয়ে চ্যাম্পিয়ন হন চীনের মেংকে লি। পায়ের ইনজুরির কারণে ফাইনালে খেলতে পারেননি চীনের হাওইয়ান উয়ু।

বৃষ্টির কারণে ছেলেদের দ্বৈত প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়নি। তাই ম্যাচ রেফারির বিচারে চীন-ইন্দোনেশিয়ার চিয়া চেইহ লিন ও ব্রেনডান নিকোলাস হেন্দ্রাতা জুটি এবং ভারতের আতিদ্য ও জয়শাভানি জুটিকে পুরস্কৃত করা হয়। এদিকে চীনের হাওইয়ান ইনজুরিতে পরায় তিনি দ্বৈতেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেননি। তাই ওয়াক ওভার পেয়ে দ্বৈতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে চীনের জি ওয়েন মু ও ইউওয়েনদান জুহু জুটি।

ঢাকা ক্লাবে বিকেলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ টেনিস ফেডারেশনের সভাপতি মো. শাহরিয়ার আলম, এমপি। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক (পলিসি, এইচআরএম অ্যান্ড এডমিন) এস এম জাহিদ হাসান। সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোর্শেদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, ‘উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দিন আমার আসার কথা ছিল। কিন্তু থাকতে পারিনি। শুকরিয়া, আজ আসতে পেরেছি। এই টুর্নামেন্ট খেলতে বাংলাদেশে আসায় আপনাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। যারা বিজয়ী হয়েছেন তাদের অভিনন্দন জানাচ্ছি। এই টুর্নামেন্ট শেষে রাজশাহীর জাফর ইমাম টেনিস কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত টেনিস প্রতিযোগিতায় আপনারা অংশ নিবেন। রাজশাহী আমার নিজ শহর। সেখানে আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি। সবশেষে বলতে চাই এখানে যারা চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তারা সবাই এশিয়ার। একবিংশ শতাব্দী এশিয়ার। এশিয়া রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। আশা করছি এই শতাব্দীর শেষ দিকে টেনিসেও এশিয়া রাজত্ব করবে। ধন্যবাদ সকলকে।’

পাশাপাশি তিনি ওয়ালটন গ্রুপ ও ঢাকা ক্লাবকে ধন্যবাদ জানান এই টুর্নামেন্ট আয়োজনে সহযোগিতা করায়।

এবারের এই প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশসহ ৯টি দেশের ৪৫ জন ছেলে ও মেয়ে টেনিস খেলোয়াড়রা অংশ নিয়েছিল। তার মধ্যে ছেলে ২৪ জন এবং মেয়ে ২১ জন। টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া দেশগুলো ছিল স্বাগতিক বাংলাদেশ, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, ইন্দোনেশিয়া, নেপাল, জাপান, মালয়েশিয়া, চাইনিজ তাইপে ও চীন।

এর আগে ২০১৫, ২০১৬ ও ২০১৮ সালে এই আন্তর্জাতিক জুনিয়র টেনিস প্রতিযোগিতার পৃষ্ঠপোষকতায় ছিল ওয়ালটন গ্রুপ। এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো এই প্রতিযোগিতায় পৃষ্ঠপোষকতা করল ওয়ালটন।

এই প্রতিযোগিতায় সহযোগিতায় ছিল ওয়ালটন গ্রুপের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড মার্সেল। আর অনলাইন পার্টনার হিসেবে ছিল দেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পেপার রাইজিংবিডি.কম।


ঢাকা/আমিনুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন