ঢাকা, শনিবার, ২৭ চৈত্র ১৪২৬, ১১ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

কাছে গিয়েও হেরে গেল বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-২৪ ৫:০৬:৪৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-২৪ ৮:৩৫:২৬ পিএম

নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিশন জয় দিয়ে রাঙাতে পারেনি সালমা খাতুনের দল। পার্থে ভারতের বিপক্ষে ১৮ রানে হেরে যায় বাংলাদেশ নারী দল। ১৪৩ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৮ উইকেট হারিয়ে ১২৪ রানে থামে বাংলাদেশ নারীদের ইনিংস।

এর আগে টসে জিতে ভারতীয়দের আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় অধিনায়ক সালমা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ভারতীয় নারী দল ১৪২/৬ সংগ্রহ করতে পারে। জবাবে নিগার-মুর্শিদার লড়াই যথেষ্ট হয়নি জয়ের জন্য। ফলে ভারতের বিপক্ষে টানা তিন জয় থেকে বঞ্চিত হল বাংলাদেশের বাঘিনীরা। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ভারতীয় নারী দল : ১৪২/৬ (২০ ওভার)

বাংলাদেশ নারী দল: ১২৪/৮ (২০ ওভার)

১৮ রান দূরে থামতে হলো বাংলাদেশকে

শেষ পর্যন্ত জয় পেল না বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। শেষ দিকে দ্রুত কিছু উইকেট হারানো কাল হল দলটির। শুরু থেকে সাবধানী খেলা বাংলাদেশ শেষ দিকে এসে বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান তুলতে ব্যর্থ হয়। মুর্শিদা ৩০ ও নিগার ৩৫ রান করে খেলায় রাখলেও শেষ দিকে ক্যামিও ইনিংসের অভাব অনুভূত হয় বাংলাদেশ শিবিরে। ফাহিমা ১৩ বলে ১৭, রুমানা ৮ বলে ১৩ রান করলেও যথেষ্ট ছিল না জয়ের জন্য। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১২৪ রানে থামে বাংলাদেশ নারী দল। ভারতের পক্ষে পুনম যাদব এ ম্যাচেও ১৮ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট নেন।

ফিরলেন জাহানারাও

৩ ওভারে প্রয়োজন ছিল ৩৬ রান। পুনমের বল ডাউন দ্য গ্রাউন্ডে এসে মারতে গিয়ে ফিরলেন জাহানারা। করেন ১০ বলে ১০ রান।

নিগারের বিদায়ে বিপদে বাংলাদেশ

জয়ের লক্ষ্যে দুর্দান্ত ব্যাটিং করছিল নিগার সুলতানা। ২৬ বলে করেছেন ৩৫ রান। তবে রাজেশ্বরির বলে মারতে গিয়ে আউট হন এ ব্যাটার। বাংলাদেশের জয় এখন দূরে সরে গেছে।

ফাহিমার বিদায়

৫ ওভারে প্রয়োজন আর ৪৯ রান। মারতেই হতো টাইগার নারীদের। ১৬ ওভারের প্রথম বল মারতে গিয়ে আউট হয়ে ফিরলেন ফাহিমা। পুনম যাদবের বলে দিপ্তীর হাতে ক্যাচ দেয়ার আগে ১৩ বলে ১৭ রান করেন ফাহিমা। মাঠে এসেছেন জাহানারা।

 

অরুন্ধতির দ্বিতীয় শিকার ফারজানা

সানজিদা আউট হয়ে ফেরার পরের ওভারে ফিরলেন ফারজানাও। ৪ বল খেলেও রানের খাতা খুলতে পারেননি এ ক্রিকেটার। অরুন্ধতির বল ব্যাটের কানা ছুঁয়ে উইকেটরক্ষক তানিয়ার হাতে গেলে সাজঘরে ফেরেন ফারজানা। বাংলাদেশও ম্যাচে কিছুটা পিছিয়ে গেছে। মাঠে এসেছেন ফাহিমা।

ফিরে গেলেন সানজিদা

অস্ট্রেলিয়াকে ধ্বসিয়ে দেয়া পুনম যাদব তুলে নিলেন বাংলাদেশের সানজিদাকে। এরফলে ১১ ওভার শেষে ৬১ রানে ৩ উইকেট হারাল বাংলাদেশি নারী ক্রিকেট দল। মাঠে এসেছেন ফারজানা হক।  

আশা জাগিয়ে ফিরলেন মুর্শিদা

জয়ের জন্য খেলতে নেমে দারুণ ব্যাটিং করছিলেন ওপেনার মুর্শিদা। তবে ৮ম ওভারে এসে খেই হারিয়ে ফেলেন এ ব্যাটার। ২৬ বলে ৩০ রান করে অরুন্ধতির বলে রিচার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এ বাঁহাতি। এর আগে দ্বিতীয় উইকেটে সানজিদাকে নিয়ে ৩৯ রানের জুটি গড়েন এ ব্যাটার। মাঠে সানজিদাকে সঙ্গ দিতে নেমেছেন জ্যোতি।

পাওয়ার প্লে শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩৩/১

১৪৩ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে সাবধানী শুরু করেছে বাংলাদেশ নারী দল। পাওয়ার প্লে শেষে ১ উইকেটের বিনিময়ে ৩৩ রান করেছে বাঘিনীরা। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে শামীমার উইকেট হারায় বাংলাদেশ। মুর্শিদা ২২ রানে ও সানজিদা ৯ রানে অপরাজিত আছে।

শুরুতে শামীমাকে হারাল বাংলাদেশ

১৪৩ রানে জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দেখে শুনে খেলতে থাকে বাংলাদেশ। প্রথম দুই ওভারে ৫টি সিঙেল নেয় বাংলাদেশ। তবে দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে দিপ্তীর হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এ ডানহাতি ওপেনার। করেন মাত্র ৩ রান। তিনে ব্যাট করতে নেমেছেন সানজিদা ইসলাম। তৃতীয় ওভারে অবশ্য মেরে খেলে মুর্শিদা তুলে নিয়েছেন ১৪ রান।

বাংলাদেশের লক্ষ্য ১৪৩ রান

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে আক্রমণাত্মক শুরু করে ভারতীয় নারীরা। যদিও সালমা শুরুতে শিকার করে ওপেনার তানিয়ার উইকেট। তবে শেফালি ও জেমিমাহ আগ্রাসী মনোভাবে ব্যাটিং করে। ৫৩ রানের মাথায় শেফালি আউট হওয়ার পর রানের চাকা মন্থর হয় ভারতের। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে তারা। তবে শেষ দিকে ভেদা কৃষ্ণমূর্তির ১১ বলে ২০ রানে ১৪২/৬ সংগ্রহ পায় ভারত। এখন দেখার কেমন করে বাংলাদেশের নারীরা।

হাস্যকর রান আউটে ফিরলো দিপ্তী 

১৭তম ওভারের পঞ্চম বল। দিপ্তী সালমার বল ঠেলে দিয়ে ১ রান নিতে দৌড় দেন। তবে নন-স্ট্রাইকার প্রান্ডের ভেদা কৃষ্ণমূর্তির সঙ্গে ভুল বুঝাবুঝি হয়। শেষে দুজনে নন স্ট্রাইকার প্রান্তের দিকে এক সঙ্গে দৌড় দেন। ফারজানা বল ধরে উইকেটরক্ষক নিগারকে দিলে স্ট্যাম্প ভাঙেন নিগার। এতে রান আউট হয়ে ফেরেন ১১ রান করা দিপ্তী।

সালমার দ্বিতীয় শিকার

নিজের তৃতীয় ওভারে বোলিংয়ে এসে রিচা ঘোষকে ফেরালেন সালমা। উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিড অনে নাহিদার হাতে ধরা পড়েন এ ব্যাটার। করেন ১৪ বলে ১৪ রান।

রান আউটে ফিরলেন জেমিমাহ

উইকেটে জমাট বেঁধে গেছিলেন জেমিমাহ। তিনে নামা এ ব্যাটসম্যান ফিরলেন রান আউটে। জাহানারার বল দিপ্তি শট করলে নাহিদা ক্ষিপ্রতার সঙ্গে বল থামিয়ে উইকেটরক্ষকের কাছে পাঠান। জেমিমাহ রান নিতে ক্রিজে ঢুকার আগে স্ট্যাম্প ভেঙ্গে দেন নিগার। ৩৭ বলে ৩৪ রান করে থামেন জেমিমাহ।

ভারতীয় অধিনায়ককে ফেরালেন পান্না

উইকেটে সেট হয়ে যাওয়া হার্মানপ্রিত প্রতিপক্ষের জন্য ত্রাস হয়ে ওঠে। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে মাত্র ৮ রান করে ফিরে যান ভারতীয় নারী দলের এ অধিনায়ক। পান্নার বলে কাট করতে গিয়ে রুমানার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এ ব্যাটার।

পান্নার বলে ফিরলেন শেফালি

শেফালি ভার্মা, ব্যাট হাতে ১৬ বলে করে ফেলেছিলেন ৩৯ রান। তার ব্যাটিং ঝড়ে ৫ ওভারে ৫০ রানে তুলে ফেলে ভারত। তবে ৫.৩ ওভারে পান্না ঘোষ ফেরান এ আক্রমণাত্মক ওপেনারকে। পান্নার বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে শামীমার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন শেফালি। মাঠে নেমেছেন ভারতীয় অধিনায়ক হার্মানপ্রিত কৌর।

শুরুতে সালমার আঘাত

বাংলাদেশের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে ভারত। তবে দ্বিতীয় ওভারে আঘাত হানেন অধিনায়ক সালমা। ফিরিয়ে দেন ওপেনার তানিয়া ভাটিয়াকে। উইকেটরক্ষক নিগারের হাতে স্ট্যাম্পিং হওয়ার আগে করেন মাত্র ২ রান। তিনে নেমেছেন জেমিমাহ রদ্রিগেজ।

টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

টসে জিতে ভারতীয়দের আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছে সালমা। টসে জিতে সালমা বলেন, ‘বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে জয় আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়েছে। আমরা এ ম্যাচে জয়ের দিকে তাকিয়ে আছি।’

ভারতীয় দলে এ ম্যাচে একটি পরিবর্তন এসেছে। নিয়মিত ওপেনার স্মৃতি মান্দানা ইনজুরির কারণে এ ম্যাচে নেই। তার বদলে দলে এসেছে রিচা ঘোষ।

বাংলাদেশ নারী একাদশ

মুর্শিদা খাতুন, শামীমা সুলতানা, সানজিদা ইসলাম, নিগার সুলতানা জ্যোতি, ফারজানা হক, রুমানা আহমেদ, সালমা খাতুন, ফাহিমা খাতুন, জাহানারা আলম, পান্না ঘোস ও নাহিদা আকতার।

ভারতীয় নারী একাদশ

শেফালি ভার্মা, তানিয়া ভাটিয়া, জেমিমাহ রদ্রিগেজ, হার্মানপ্রিত কৌর, দিপ্তী শর্মা, রিচা ঘোষ, ভেদা কৃষ্ণমূর্তি, শিখা পান্ডে, অরুন্ধতি রেড্ডি, পুনম যাদব ও রাজেশ্বরী গায়কড়।

ঢাকা/কামরুল