ঢাকা, রবিবার, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ০৫ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

৪৮ রানে জিতলো বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-০৯ ৫:৫১:২৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-১০ ৮:১৬:৩২ এএম

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৪৮ রানে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের ছুড়ে দেওয়া ২০১ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ১৯ ওভারে ১৫২ রানে অলআউট হয়ে যায় জিম্বাবুয়ে। বাংলাদেশ পায় ৪৮ রানের দাপুটে জয়।

বল হাতে বাংলাদেশের আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ও মুস্তাফিজুর রহমান ৩টি করে উইকেট নেন। ব্যাট হাতে ওয়েসলি কামুনহুকামওয়ে ২৮ ও কার্ল মুম্বা ২৫ রান করেন। এ ছাড়া শন উইলিয়ামস, রিচমন্ড মুতুম্বামি ও ডোনাল্ড টিরিপানোর ব্যাট থেকে ২০ রান করে আসে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

বাংলাদেশ : ২০০/৩ (২০ ওভারে)।

জিম্বাবুয়ে : ১৫২/১০ (১৯ ওভারে)।

ফল : বাংলাদেশ ৪৮ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরা : সৌম্য সরকার।

 

সাইফের প্রথম শিকার টিরিপানো

প্রথম দুই ওভারে ১৫ রান দিয়েছিলেন। কোনো উইকেট পাননি। তৃতীয় ওভারে এসে পেলেন উইকেটের দেখা। ফিরিয়েছেন মারমুখী ডোনাল্ড টিরিপানোকে। দলীয় ১৩০ রানের মাথায় টিরিপানোকে বোল্ড করেন তিনি। ১৩ বল খেলে ৩ ছক্কায় ২০ রান করে যান এই অলরাউন্ডার। 

মুস্তাফিজের দ্বিতীয় শিকার মুতুম্বামি

শুরুতে ক্রেইগ আরভিনকে ফিরিয়েছিলেন। এরপর ফেরালেন রিচমন্ড মুতুম্বামিকে। দলীয় ১০৭ রানের মাথায় ১৫তম ওভারের প্রথম বলেই লিটন দাসের গ্লাভসবন্দি করান মুতুম্বামিকে। ১৩ বল খেলে ২ ছক্কায় ২০ রান করে যান তিনি।

বিপ্লবের তৃতীয় শিকার মুতুমবোডজি

দ্বিতীয় ওভারে ২ উইকেট নিয়েছিলেন। তৃতীয় ওভারে এসে দুই ছক্কা হজম করে ফেরান তিনোতেন্দা মুতুমবোডজিকে। এ সময় শর্ট থার্ডম্যানে মুস্তাফিজুর রহমানের হাতে ধরা পড়েন মুতুমবোডজি। ৪ বল খেলে ২ রান করে যান তিনি।

আফিফ ফেরালেন রাজাকে

আফিফের বলে মুশফিকুর রহিমের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন সিকান্দার রাজা। অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে আসে ১০ রান।

এক ওভারে বিপ্লবের ২ উইকেট

প্রথম ওভারে ১১ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। কিন্তু দ্বিতীয় ওভারে এসেই ভেলকি দেখালেন। তুলে নিলেন ২ উইকেট। নবম ওভারের দ্বিতীয় বলে থিতু হওয়া কামুনহুকামওয়েকে উইকেটের পেছনে লিটন দাসের গ্লাভসবন্দি করান। বিপজ্জনক হয়ে ওঠা কামনুহুকামওয়ে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ২৮ রান করে যান। পরের বলেই ফেরান অধিনায়ক শন উইলিয়ামসকে। বিপ্লবকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ডিপ স্কয়ার লেগে সৌম্য সরকারের হাতে ধরা পড়েন তিনি। ১২ বলে ১ চার ও ২ ছক্কায় ২০ রান করে যান উইলিয়ামস।

রান আউটে কাটা পড়লেন মাধভেরে

জিম্বাবুয়েকে চেপে ধরেছে বাংলাদেশ। ৫.৩ ওভারের মাথায়ই তারা হারিয়ে বসেছে ৩ উইকেট। দলীয় ৩৭ রানের মাথায় রান আউট হয়ে ফিরেন ওয়েসলি মাধভেরে। ৪ রান করে যান তিনি।

এবার মুস্তাফিজের আঘাত

শফিউলের পর জিম্বাবুয়ে শিবিরে দ্বিতীয় আঘাত করেছেন মুস্তাফিজুর রহমান। দলীয় ৩০ রানের মাথায় তার বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন ক্রেইগ আরভিন। ৯ বল খেলে ১ চারে ৮ রান করে যান তিনি।

শুরুতেই শফিউলের আঘাত

দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলেই উইকেট নিয়েছেন শফিউল ইসলাম। ফিরিয়েছেন অভিজ্ঞ ব্রেন্ডান টেলরকে। শফিউলের বলে মিডউইকেটে সৌম্য সরকারের হাতে কাচ দেন টেলর। ৫ বল খেলে ১ রানের বেশি করতে পারেননি তিনি।

সৌম্য ঝড়ে রান পাহাড়ে বাংলাদেশ

প্রথমটিতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০০ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। যা টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ। এর আগে ২০১৮ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২১৫ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২১১ রান করেছিল বাংলাদেশ।

জিততে জিম্বাবুয়েকে করতে হবে ২০১ রান।

ব্যাট হাতে বাংলাদেশের সৌম্য সরকার ঝড় তোলেন। তিনি ৩২ বল খেলে ৪ চার ও ৫ ছক্কায় অপরাজিত ৬২ রান করেন। ২ বছর পর তিনি টি-টোয়েন্টিতে পেয়েছেন ফিফটির দেখা। আর লিটন কুমার দাস ৩৯ বল খেলে ৫ চার ও ৩ ছক্কায় করেন ৫৯ রান। তিনিও ১৪ মাস পর টি-টোয়েন্টিতে পেয়েছেন ফিফটির দেখা। আর ৩ চার ও ২ ছক্কায় তামিমের ব্যাট থেকে আসে ৪১ রান। বল হাতে ১টি করে উইকেট নেন ওয়েসলি মাধভেরে, ক্রিস্টোফার এমপফু ও সিকান্দার রাজা।

২ বছর পর সৌম্যর ফিফটি

টি-টোয়েন্টিতে সৌম্য সরকার সবশেষ ফিফটি করেছিলেন ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। দুই বছর পর আজ ঢাকাতে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ফিফটির দেখা পেলেন সৌম্য। আর তার ফিফটিতে ভর করে বাংলাদেশ পেয়েছে ২০০ রানের বড় সংগ্রহ। মাত্র ৩২ বল খেলে ৪ চার ও ৫ ছক্কায় ৬২ রানে অপরাজিত থাকেন সৌম্য। তার সঙ্গে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ অপরাজিত থাকেন ১৪ রানে। 

সাজঘরে মুশফিক

তামিম ও লিটন আউট হওয়ার পর বাংলাদেশের হাল ধরেন সৌম্য সরকার ও মুশফিকুর রহিম। এই জুটি ২.৫ ওভারে ১৪.১১ রান রেটে ৪০ রানের জুটি গড়েন। মুশফিক মাত্র ৮ বল মোকাবেলা করে ২ ছক্কায় ১৭ রান তুলে ফেলেন। এরপর ক্রিস্টোফার এমপফুকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিড অফে ধরা পড়েন শন উইলিয়ামসের হাতে। 

ফিফটি করে ফিরলেন লিটন

তামিম ইকবালের সঙ্গে ৯২ রানের জুটি গড়েন। এরপর তামিম ফিরলেও তিনি তুলে নেন ক্যারিয়ারের তৃতীয় ফিফটি। তবে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। দলীয় ১০৬ রানের মাথায় সিকান্দার রাজার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরেন লিটন। ৩৯ বল খেলে ৫ চার ও ৩ ছক্কায় ৫৯ রান করে যান তিনি। সবশেষ ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে টি-টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ফিফটি পেয়েছিলেন লিটন। ১৪ মাস ২০ দিন পর পেলেন তৃতীয় ফিফটির দেখা।

ফিরলেন তামিম

লিটন কুমার দাসের সঙ্গে ৯২ রানের জুটি গড়ে ফিরেছেন তামিম। ৩৩ বল খেলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৪১ রান করে যান। এ সময় ওয়েসলি মাধভেরের বলে এক্সট্রা কাভার অঞ্চলে শন উইলিয়ামসের তালুবন্দি হন তিনি। 

উড়ন্ত সূচনা

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেছে বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল ও লিটন দাসের ব্যাটে ভর করে ৯.৮৩ গড়ে ৬ ওভারেই ৫৯ রান তুলে ফেলেছে। তামিম ২০ বল খেলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৪ ও লিটন ১৬ বল খেলে ২ চার ও ২ ছক্কায় ৩৩ রান নিয়ে ব্যাট করছেন।

বাংলাদেশের একাদশ

তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, মাহেদী হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, শফিউল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ের একাদশ

তিনাশে কামুনহুকামওয়ে, ক্রেইগ আরভিন, ব্রেন্ডন টেলর, সিকান্দার রাজা, শন উইলিয়ামস, ওয়েসলি মাধভেরে, রিচমন্ড মুতুম্বামি, ডোনাল্ড টিরিপানো, তিনোতেন্দা মুতুমবোডজি, ক্রিস এমপফু ও কার্ল মুম্বা।

টস

টস জিতেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক শন উইলিয়ামস। তিনি অবশ্য ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন। রাতে শিশিরের সমস্যার কথা মাথায় রেখেই বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

এর আগে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে জিম্বাবুয়ে। এখন দেখার বিষয় টি-টোয়েন্টিতে তাদের ভাগ্য বদল হয় কিনা।


ঢাকা/আমিনুল