ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৮ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

জন্মদিন উপলক্ষে বাবার কাছে তাসকিনের চাওয়া

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৪-০১ ৭:৩৭:০২ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৪-০১ ৭:৩৭:০২ পিএম

দেশে চলমান এই করোনা বিপর্যয়ের সময় বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা নিজেদের সাধ্যমতো মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। জাতীয় দলের পেসার তাসকিন আহমেদও নিজের জায়গা থেকে অসহায় মানুষদের জন্য কাজ করছেন।

আগামী ৩ এপ্রিল তাসকিন ২৫ বছরে পা রাখবেন। বয়স বাড়লেও বাবা আবদুর রশিদ মনুর কাছে সবসময় ছোট তাসকিন। ফলে বাবার কাছে প্রতি জন্মদিনে উপহারের বায়না ধরেন তাসকিন। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। তবে এবার নিজের জন্য নয়। চেয়েছেন তাদের সকল ভাড়াটিয়ার জন্য।

তাসকিনের বাবা আবদুর রশিদ মনু মাসে প্রায় লাখ টাকার মতো ভাড়া পান। করোনা বিপর্যয়ে মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে শুরু করে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সবার অবস্থা নাজুক। এই জন্য এপ্রিল মাসে ভাড়াটিয়াদের থেকে কোনো ভাড়া না নিতে বাবার কাছে অনুরোধ করেন তাসকিন। আর তাসকিনের বাবাও সবার ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন।

এ নিয়ে তাসকিন বলেন, ‘আমার বাবার যে সম্পত্তি সেখান থেকে তিনি এক লাখেরও বেশি টাকা ভাড়া পান। এপ্রিলের ৩ তারিখ আমার জন্মদিন। এ জন্য বাবাকে অনুরোধ করি, আমার জন্মদিনের উপহার হিসেবে বাবা যেন সবার ভাড়া মওকুফ করে দেন। বাবাও আমার কথা রেখেছেন।’

কেন তাসকিনের এমন ভাবনা? জানালেন তাও, ‘সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবার করোনায় কষ্টে দিন যাপন করছে। তবে এরা মুখ ফুটে কিছু বলতে পারছেন না। তাই আমার মনে হয়েছে, এমন পরিবারের পাশে দাঁড়ানো উচিত।’

এমন সিদ্ধান্তে তাসকিনের পরিবারের সমস্যা হবে কিনা জানতে চাইলে তাসকিন যোগ করেন, ‘আসলে এমন নয় যে, আমাদের প্রচুর আছে। তবে আমি যদি এক মাস ঠিকমতো খেলতে পারি সেই টাকা আল্লাহ আমাকে ব্যবস্থা করে দেবেন।’

ভাড়া মওকুফ করা ছাড়াও তাসকিন ও তাঁর বাবা মিলে অসহায় পরিবারদের খাদ্যের জোগানও করেছেন। শুরুতে ভেবেছিলেন কিছুই জানাবেন না। তবে সিদ্ধান্ত বদলেছেন, জানিয়েছেন, ‘আমি শুরুতে কিছু জানাবো না বলে ঠিক করেছি। তবে আমার দেখাদেখি অন্য কেউ অনুপ্রাণিত হলে আরেকটি পরিবারের সুবিধা হবে। তাই জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তাসকিনদের মতো করে এগিয়ে আসুক সকলে। করোনার বিপদ কেটে আসুক সুন্দর সকাল। এমনটাই প্রত্যাশা আমাদের সকলের।


ঢাকা/কামরুল