RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৪ ১৪২৭ ||  ০৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

স্থগিত হতে যাচ্ছে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:১০, ২২ মে ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
স্থগিত হতে যাচ্ছে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

তবে কি সত্যি বাতিল হতে চলছে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ!

তেমনটাই আভাস দিলো ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ‘টাইমস অফ ইন্ডিয়া’। এই সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর স্থগিতই করা হবে। এখন কেবলমাত্র আনুষ্ঠানিক ঘোষণার অপেক্ষা। তাও সামনের সপ্তাহে আইসিসি দিয়ে দিবে বলে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যমটি।

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভিডিও কনফারেন্সে সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে বসে আলোচনার মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্বকাপ স্থগিত করার ঘোষণা দেবে আইসিসি। কেননা করোনার কারণে ১৬ দলের এই টুর্নামেন্টটি অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে আয়োজন করার মতো পরিস্থিতি এখন নেই।

কারণ, করোনা মোকাবিলার জন্য মধ্য সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ায় ভ্রমণ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির সরকার। এরপর যারা অস্ট্রেলিয়ায় যাবেন, তাদেরও দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইনে থাকার বিধি নিষেধ রয়েছে। তাই শিডিউল অনুযায়ী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়েছে।

এরপরও যদি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করে অস্ট্রেলিয়ার আয়োজক কমিটি। তবে সম্পূর্ণ ফাঁকা স্টেডিয়ামে আয়োজন করতে হবে তা। আর সেক্ষেত্রে দর্শকদের খেলা দেখা বাবদ বিপুল পরিমাণ অর্থ হারাবে তারা। আর এই বিপুল পরিমাণ লভ্যাংশ হারাতে চাইছে না ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। এমন তথ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে জানিয়েছে, বিশ্বস্ত এক সূত্র।

সেখানে বলা হয়েছে, ‘যদি এখন টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয়, তবে খালি স্টেডিয়ামে ম্যাচ খেলতে হবে। এতে বিপুল পরিমাণ অর্থ হারাতে হবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে। যা এই মুহূর্তে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া মেনে নিতে চাইছে না। বরং তারা পরবর্তী অন্য যে সময় এটি আয়োজন করবে তখনই এই লভ্যাংশ আয় করতে পারবে।’

এদিকে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের পাশাপাশি ভবিষ্যতে এটি কখন আয়োজন করা যাবে সে বিষয়ে বিকল্প ভাবনা রয়েছে আইসিসির।

এরমধ্যে একটি হলো, এবার স্থগিত করে পরের বছরে বিশ্বকাপটি নিয়ে যাওয়া। অর্থাৎ অস্ট্রেলিয়ায় আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চের দিকে স্থগিত এই আসরটি আয়োজন করা যায় কিনা, সেটি নিয়েই সদস্যদের সঙ্গে কথা বলবে আইসিসি।

অথবা ২০২১ সালে ভারত বিশ্বকাপের সঙ্গে আয়োজক সত্ত্ব অদলবদল করা। অর্থাৎ, ২০২১ সালে ভারতে যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটি হওয়ার কথা সেটি আয়োজন করবে অস্ট্রেলিয়া, সেক্ষেত্রে ভারতে বিশ্বকাপ হবে ২০২২ সালে।

অথবা তৃতীয় আরেকটি বিকল্প হলো, ভারতে ২০২১ সালেই বিশ্বকাপ হবে, অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ আয়োজন করবে ২০২২ সালে।

এদিকে আইসিসির বিশ্বকাপ স্থগিতের ঘোষণার উপর নির্ভর করছে আইপিএলের আসরের ভবিষ্যতও। ২০২০ সালের আইপিএল স্থগিত আছে সেই মার্চ থেকে। অক্টোবর-নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ না হলে সেই জায়গায় আইপিএল আয়োজন করার সুযোগ বের হবে বলে মনে করছে বিসিসিয়াই।


ঢাকা/কামরুল

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়