ঢাকা, শনিবার, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ০৪ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

চল্লিশেও ভারতীয় দলে ফিরতে চান হরভাজন

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৫ ৩:৪৯:৩৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-২৫ ৪:৪০:৩৬ পিএম

৩ মার্চ ২০১৬, ভারতের জার্সি গায়ে বাংলাদেশের মাটিতে সর্বশেষ মাঠে নেমেছিলেন দলটির সেরা অফস্পিনার হরভাজন সিং। সময়ের হিসেবে সে থেকে চার বছরেরও বেশি সময় কেটে গেছে মাঠের বাইরে। এদিকে আসন্ন জুলাইতে বয়স গিয়ে ঠেকবে চল্লিশের কৌঠায়।

এ অবস্থায় দাঁড়িয়েও আবার ভারতের হয়ে মাঠে নামার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন তিনি। এই অফ স্পিনারের বিশ্বাস, টি-টোয়েন্টিতে দেশের হয়ে দেওয়ার মতো এখনো বাকী আছে তাঁর মধ্যে। খেলার জন্যও আছেন ফিট, প্রস্তুত আছেন মানসিকভাবেও।

ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফোতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব জানিয়েছেন হরভাজন।

ভারতের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী হরভাজন। নিয়েছেন ৭০৭ উইকেট। তাঁর সামনে ৯৫৩ উইকেট নিয়ে আছেন কেবল অনিল কুম্বলে। তবে ক্যারিয়ারের প্রায় শেষ দেখে ফেলেছেন হরভাজন। টেস্ট ও ওয়ানডে খেলেছেন বছর পাঁচেক আগে। ঘরোয়া লিগেও এই দুই ফরম্যাটে আর খেলছেন না।

তবে এখনো আশা করছেন টি-টোয়েন্টিতে ফিরতে পারবেন তিনি। আর সে স্বপ্ন জোগাচ্ছে আইপিএলের পারফরম্যান্স। চার বছর ধরে আন্তর্জাতিক সার্কিটে না থাকলেও আইপিএলে নিয়মিত পারফরম্যান্স করে যাচ্ছেন হরভাজন।

১০ বছর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে খেলেছেন। এরপরে যোগ দিয়েছেন চেন্নাই সুপার কিংসে। ১৫০ উইকেট নিয়ে আইপিএলের উইকেট শিকারীদের তালিকায় আছেন তৃতীয় সেরা হয়ে। ইকোনমি রেটও নিয়ন্ত্রণে, ৭.০৫। গত আইপিএলেও ছিলেন সফল, ১১ ম্যাচে নিয়েছেন ১৬ উইকেট। আর এসবই আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে তাকে।

এই ক্রিকেটার বলেন, ‘টুর্নামেন্ট হিসেবে আইপিএল বোলারদের জন্য খুব কঠিন। কারণ মাঠ ছোট, বিশ্বের শীর্ষ ক্রিকেটাররা খেলেন এখানে। তাদের বিপক্ষে বল করা খুবই চ্যালেঞ্জিং। তারপরও যদি আমি আইপিএলে যদি ভালো বোলিং করতে পারি, তাহলে বলতে হয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও আমার ভালো করা সম্ভব। আমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে প্রস্তুত।’

এরপর আরও কিছু কারণ ব্যাখ্যা করে বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সব দলের কিন্তু আইপিএল দলগুলির মতো মানসম্পন্ন ক্রিকেটার নেই। আইপিএলের সব দলেরই প্রথম ৬ ব্যাটসম্যান খুব ভালো। হ্যাঁ, ভারত-অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইন আপ দুর্দান্ত। কিন্তু আমি যদি আইপিএলে ডেভিড ওয়ার্নার, জনি বেয়ারস্টোদের আউট করতে পারি, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কেন পারব না?’

তবে মনে করেন দুর্ভাগা তিনি। নির্বাচকদের তাঁর দিকে চোখ নেই। এ নিয়ে কথাও হয় না কারো সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘তবে দলে ফেরার বিষয় আমার হাতে নেই। এখনকার ভারতীয় দলের ম্যানেজমেন্টের কেউ আমার সঙ্গে এসব নিয়ে কথা বলে না। তাঁরা (নির্বাচকরা) আমার দিকে তাকাচ্ছে না, কারণ তারা মনে করে আমার বয়স অনেক বেশি।’

এদিকে আইপিএলে ভালো করলেও টি-টোয়েন্টিতে জাতীয় দলে ডাক না পাওয়ায় হতাশ অভিজ্ঞ এই স্পিনার আরও বলেন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেটে আমি খেলি না (আইপিএল ছাড়া)। গত ৪-৫ বছরে তারা আমার দিকে তাকায়নি, যদিও আইপিএলে ভালো করছিলাম, উইকেট নিচ্ছিলাম এবং রেকর্ড আমার পক্ষে ছিল। তবুও না।’

 

ঢাকা/কামরুল