ঢাকা, রবিবার, ২১ আষাঢ় ১৪২৭, ০৫ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

বল সুইং করানোর জন্য উপায় রাখতে হবে: মিচেল স্টার্ক

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৬ ২:৫৩:৪৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-২৬ ২:৫৩:৪৬ পিএম

করোনা পরবর্তী সময়ে ক্রিকেট ফেরানোর বিষয়ে কিছু গাইডলাইন দিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। আর সেখানে স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে লালা ব্যবহার করা যাবে না বলে। আর সেটি কার্যকর হলে, বল থেকে সুইং আদায় করা কষ্টসাধ্য হয়ে পড়বে বোলারদের জন্য। তারউপর আধুনিক ক্রিকেটে দর্শকদের বিনোদিত করতে নিষ্প্রাণ উইকেটে বেশি খেলা হয়। যাতে প্রচুর রান হয় খেলায়।

আর একচেটিয়াভাবে ব্যাটসম্যানদের সুবিধার বিষয় সহজভাবে নিতে রাজি নয় অজি গতি তারকা মিচেল স্টার্ক। এর আগে প্যাট কামিন্স বলেছেন, ব্যাট ও বলের সমতা রাখতে হবে ক্রিকেটে। এবার একই সুরে কথা বললেন স্টার্কও। এই ক্রিকেটার জানিয়েছেন, বলে লালার ব্যবহার বন্ধ করলে ক্রিকেট হয়ে উঠতে পারে একঘেয়ে ও বিরক্তিকর। তাই বল সুইং করানোর জন্য উপায় রাখতে হবে, এই নিয়ে ভাবতে হবে।

বল সুইং করাতে লালার ব্যবহার ক্রিকেট চলে আসছে যুগ যুগ ধরেই। লালা ব্যবহার না করলে বলে সুইং আদায় করা খুবই কঠিন কাজ পেসারদের জন্য। আর বর্তমান ক্রিকেটে এমনিতে ব্যাটসম্যানদের সুবিধা বেশি। সেখানে লালার ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা মানে ব্যাটসম্যানদের একচেটিয়া আধিপত্য।

আইসিসি ক্রিকেট কমিটি এই সম্ভাব্য একতরফা আধিপত্য কমাতে স্পোর্টিং উইকেট আরও বেশি বানানোর পরামর্শ দিয়েছে। তবে বিশ্বজুড়ে ক্রিকেট প্রশাসকরা সেটির বাস্তবায়ন করেছেন সামান্যই। ব্যাটিং সহায়ক উইকেটই দেখা যায় বেশি।

আর এ নিয়ে অজি পেসার স্টার্ক এক ভিডিওতে কথা বলেন। যেখানে তিনি বোলারদের কথা বিবেচনায় আনতে বলেন। এমনকি স্পিনারদের কথাও ভাবতে বলেন স্টার্ক। তাঁর ভাষ্যে,

‘গত কয়েক বছরে অস্ট্রেলিয়ায় আমরা বেশ নিষ্প্রাণ কিছু উইকেট দেখেছি। আর বল সুইং না করানো গেলে লড়াই খুবই একঘেয়ে আর বিরক্তিকর হয়ে উঠবে। কোকাবুরা সম্ভবত বল উজ্জ্বল করার জন্য মোম বা এই জাতীয় কিছু বের করার চেষ্টা করছে। সেটা বিবেচনা করবে কিনা আইসিসি, জানি না। তবে লড়াইটা যেন সমানতালে হয়, সেটি নিশ্চিত করার জন্য ভাবতে হবে। সাধারণত স্পিনাররা মনে করে, যে উইকেটে বল সিম করে, সেখানে স্পিনও কিছুটা করে। তো বোলারদের খেলায় ধরে রাখতে সম্ভাব্য সবকিছু করা উচিত।’

এরপর স্টার্ক আরও যোগ করেন, ‘বোলাররা ঘাম ও লালা, দুটিই ব্যবহার করে থাকে। আমি ঘামের ব্যবহারই বেশি করি, হাত খুব বেশি মুখে যায় না আমার। কিন্তু প্যাট কামিন্স গত সপ্তাহে যা বলেছে, আমি পুরোপুরি একমত যে ব্যাট ও বলের সমতা রাখতে হবে। এটির সঙ্গে আপোস করা চলবে না। বল যাতে সুইং করানো যায়, সেটির কোনো পথ রাখতে হবে।’


ঢাকা/কামরুল