ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ০৯ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

ফিরছে ফুটবল, ফিরছে প্রাণ

কামরুল ইসলাম ইমন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-৩০ ৬:৫৪:৪৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-৩০ ৮:৩২:১৮ পিএম

বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি তিন ফুটবলারকে কাটিয়ে বাঁ পায়ের আলতো চিপে প্রতিপক্ষের গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে ম্যাচের শেষ মুহূর্তে বল জালে জড়িয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেছেন। এছাড়াও একইদিন জুভেন্টাসের জার্সিতে পর্তুগিজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর অতিমানবীয় এক বাইসাইকেল গোলে নিশ্চিত হলো ইতালিয়ান ক্লাবটির টানা নবম লিগ শিরোপা।

বিশ্বের যেকোন প্রান্তের ক্রীড়ানুরাগীরা এমন দৃশ্য দেখতে গত দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে মুখিয়ে আছে। কিন্তু করোনাভাইরাস বিপর্যয়ে সেই মধ্য মার্চ থেকে মাঠে গড়াতে পারেনি শীর্ষ ফুটবল লিগগুলোর কোনোটিই। করোনার ভয়াবহতায় ভক্তদের হতাশা করে লিগ বাতিল হওয়ার মতো কথাও উঠেছিল। কিন্তু সব ভয়-শঙ্কা, অপেক্ষা, করোনা সঙ্কটকে পাশ কাটিয়ে অবশেষে আশার আলো দেখতে যাচ্ছে ফুটবল ভক্ত-দর্শকরা। সামনের মাসে (জুনে) মাঠে গড়াতে যাচ্ছে ইউরোপের শীর্ষ ফুটবলের প্রায় সব আসর।

সবার আগে মাঠে খেলা ফিরিয়েছে জার্মান লিগ আয়োজক কমিটি। ১৬ মে থেকে মাঠে গড়িয়েছে বুন্দেসলিগা। যদিও বুন্দেসলিগার দ্বিতীয় বিভাগে করোনার শঙ্কা ছিল। তবে আয়োজক কমিটি সবকিছু গুছিয়ে নিয়ে এখন পর্যন্ত দারুণভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে খালি স্টেডিয়ামে নিয়মিত খেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এদিকে বিরতি শেষে মাঠে নেমে তিন ম্যাচের সবকটিতে জয় পেয়ে নিজেদের টানা সপ্তম শিরোপার পথে ভালোভাবে এগিয়ে রয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। লিগে ২৮ ম্যাচে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে জার্মান এই ক্লাবটি। আগস্টের মধ্যে নিজেদের মৌসুম শেষ করার ঘোষণা দিয়েছে লিগ আয়োজক কমিটি।

মেসি-বেনজেমা-ফেলিক্সদের মতো তারকা সমৃদ্ধ স্প্যানিশ লা লিগা করোনা আতঙ্কে বন্ধ হয়েছে ১২ মার্চ থেকে। সময়ের হিসেবে তিন মাসের মতো বিরতি দিয়ে খেলা ফিরছে ১১ জুন থেকে। প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে সেভিয়া ও রিয়াল বেটিস। লা লিগা আয়োজক কমিটি ১৮-১৯ জুলাইয়ের মধ্যে লিগ শেষ করতে চায়। তবে এক্ষেত্রে করোনা পরিস্থিতির দিকে নজর রাখবে তারা, এমনটাই জানিয়েছে লা লিগার প্রধান হাভিয়ের তাভেস। যদি সময়মতো শেষ করা সম্ভব হয় তবে নতুন মৌসুম ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শুর করার পরিকল্পনা তাদের। লা লিগায় ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে বার্সেলোনা। আর ২ পয়েন্ট পিছিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে রিয়াল মাদ্রিদ।

এদিকে ১৩ মার্চ থেকে স্থগিত থাকা ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ মাঠে ফিরতে যাচ্ছে ১৭ জুন থেকে। প্রথমদিন মাঠে নামবে ম্যানচেস্টার সিটি-আর্সেনাল ও অ্যাস্টন ভিলা-শেফিল্ড ইউনাইটেড। লিগটিতে এখনো ৯২ ম্যাচ বাকী রয়েছে। লিগ আয়োজক কমিটি আশা করছে জুলাইয়ের শেষে বা আগস্টের শুরুতে শেষ করতে পারবে এবারের লিগ। ৩০ বছরের শিরোপা খরা কাটাতে লিগে এবার বেশ এগিয়ে আছে লিভারপুল। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ম্যানসিটি থেকে ২৫ পয়েন্ট এগিয়ে আছে অলরেডরা।

ফিরবে ফিরবে করে তিনবার সময় ঘোষণা করেছে ইতালিয়ান সিরি আ লিগ কমিটি। তবে করোনার কারণে মাঠে খেলা আয়োজন করতে পারেনি তারা। তবে ২০ জুন থেকে সিরি আ লিগের খেলা অনুষ্ঠিত হবে এমন ঘোষণা এসেছে সরকারের তরফ থেকে। সে অনুযায়ী অনুশীলনও শুরু হয়ে গিয়েছে। এখন কেবল সময়ের অপেক্ষা। সিরি আতে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে রোনালদোর জুভেন্টাস।

এদিকে ইউরোপের শীর্ষ লিগগুলোর মধ্যে কেবল বাতিল হয়েছে ফরাসি লিগ ওয়ান। বাতিল হলেও পয়েন্ট তালিকা বিবেচনায় শিরোপা তুলে দেওয়া হয়েছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর হাতে।

আর সব লিগ শেষ হলে আগস্টের মাঝামাঝিতে ফিরবে চ্যাম্পিয়নস লিগও। অন্যান্য প্রতিযোগিতাও সময় এবং পরিস্থিতি বিবেচনায় ফেরানো হবে।

এদিকে মধ্য এপ্রিল ও মে’র শুরুতে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় লিগ বাতিলের পরিকল্পনা চলছিল ফরাসি লিগ ছাড়াও অন্য প্রতিযোগিতা গুলোতেও। তবে প্রাণের ফুটবলে এমন মৃত সময় আসুক সেটি চাননি ভক্ত-সমর্থক কেউই। এমনকি ফুটবলবোদ্ধারাও অপেক্ষার আহবান করেছিলেন। অবশেষে ফিরছে প্রাণের ফুটবল।

শুধু ইউরোপে না, বাংলাদেশ ও এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলোতেও ইউরোপের এই লিগগুলো বেশ জমজমাট থাকে। এই লিগগুলোর এমনকি খেলোয়াড়দেরও বিশাল ফ্যানবেজ আছে এই অঞ্চলে। প্রিয় দলের খেলা রাত জেগে দেখা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তর্ক-বিতর্কে জড়িয়ে পড়া খুবই সাধারণ বিষয়। তবে বেরসিক করোনার জন্য বন্ধ হয়েছিলো সব। অবশেষে সঙ্কট কাটিয়ে প্রাণের ফুটবলের আবার ফিরে আসার অপেক্ষায় ফুটবলপ্রেমিরা।


ঢাকা/কামরুল