ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭, ০৩ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

মারা গেলেন সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার খালিদ ওয়াজির

ক্রীড়া ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৬-৩০ ৭:৩২:২৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৬-৩০ ৯:৩২:১৮ পিএম

১৯৫৪ সালের ঐতিহাসিক ইংল্যান্ড সফরে পাকিস্তান দলের অন্যতম সদস্য খালিদ ওয়াজির শনিবার রাতে মারা গেছেন। দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর ইংল্যান্ডের চেস্টারে সাবেক এই পাকিস্তানি অলরাউন্ডার ৮৪ বছর বয়সে থেমে যান।

পাকিস্তানের ১৬তম এই টেস্ট ক্রিকেটার খেলোয়াড়ি জীবনে ছিলেন মিডিয়াম পেসার এবং মিডল অর্ডারের হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান। তাঁর অভিষেক হয় ‘ক্রিকেটের মক্কা’ খ্যাত লর্ডসে। তাঁর অভিষেকের সময় তিনি ছিলেন পাকিস্তানের দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ ক্রিকেটার। তাঁর চেয়ে কম বয়সে তখন অভিষেক হয়েছে কেবল কিংবদন্তি হানিফ মোহাম্মদের।

ক্যারিয়ারে মাত্র দুই টেস্ট খেলেছেন ওয়াজির। তাও ১৯৫৪ সালে পাকিস্তানের ওই ঐতিহাসিক ইংল্যান্ড সফরে। যেবার পাকিস্তান ইংল্যান্ড সফরে গিয়ে চার ম্যাচের সিরিজের ১-১ ড্র করে ফেরে। আর এই সিরিজের পর থেকে ক্রিকেট বিশ্বে বড় দলগুলোর সমীহ আদায় করতে শুরু করে পাকিস্তান।

ইংল্যান্ড সিরিজে ওয়াজিরের সুযোগ পাওয়া ছিল চমক জাগানিয়া। জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার আগে মাত্র দুটি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা ছিল ওয়াজিরের। এমনকি ঘরোয়া কায়েদ-এ-আজম ট্রফিও খেলা হয়নি তাঁর। সে সিরিজে ভালো কিছু করতে পারেননি এই ক্রিকেটার। চার ম্যাচের সিরিজে প্রথম এবং তৃতীয় টেস্টে সুযোগ পেয়ে তিন ইনিংসে মাত্র ১৪ রান করেছিলেন। আর বোলিংয়ের সুযোগই পাননি।

এরপর ১৯৬২ সালে এক পেসারের ইনজুরিতে দলে ডাক পান। তবে ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়নি তাঁর। এরপর থেকেই ইংল্যান্ডে স্থায়ী হয়ে যান ওয়াজির। সেখানে নর্থ স্টাফোর্ডশায়ার এবং ডিস্ট্রিক্ট লিগে সফল ক্লাব ক্রিকেটার হিসেবে খেলে গেছেন দীর্ঘ সময়।

ওয়াজির খালিদ পাকিস্তানের হয়ে খেললেও তাঁর বাবা প্রতিনিধিত্ব করেছেন ভারতের হয়ে। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের আগে ১৯৩০-এর দশকে এই ক্রিকেটারের বাবা ওয়াজির আলি এবং তার ভাই নাজির আলি ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দেশ ভাগ হয়ে যাওয়ার পর ওয়াজিরের পরিবার জালান্ধর থেকে চলে আসে করাচিতে।

 

ঢাকা/কামরুল