ঢাকা     শুক্রবার   ১৪ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ৩০ ১৪২৭ ||  ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

মুশফিকের অপেক্ষা ফুরালো ফোর্টিস স্পোর্টস গ্রাউন্ডে

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:৪৩, ৭ জুলাই ২০২০  
মুশফিকের অপেক্ষা ফুরালো ফোর্টিস স্পোর্টস গ্রাউন্ডে

সবুজে ঘেরা চারপাশ। দূষণের শহরে সেখানে মিলে মুক্ত বাতাস। পায়ের নিচে সবুজ মকমলের কার্পেট। এ যেন রাজধানী ঢাকার মধ্যে অচেনা এক পরিবেশ।

বাড্ডার বেরাইদ এলাকায় ৪০ একর জায়গার উপর বুক উঁচিয়ে দাঁড়িয়ে ফোর্টিস স্পোর্টস গ্রাউন্ড। দুদিন আগে স্ত্রী ও বাচ্চা নিয়ে মাঠটি ঘুরে আসেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম। মনের মতো মাঠ পেয়ে আজ সেখানেই শুরু করলেন অনুশীলন। শুধু ফিটনেস ট্রেনিংই নয়, ব্যাট-বল নিয়ে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছেন জাতীয় দলের এ ক্রিকেটার।

করোনার সময় প্রায় চার মাস অনুশীলনের বাইরে মুশফিক। আর কত অপেক্ষা? ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে মুশফিক একাই নেমে পড়লেন মাঠে। তার জন্য সকল ব্যবস্থা করেছে ফোর্টিস স্পোর্টস গ্রাউন্ড কর্তৃপক্ষ। বিশাল মাঠ মূলত ফুটবলের জন্য ব্যবহার করা হয়। একসঙ্গে তিনটি ম্যাচ খেলার ব্যবস্থা আছে এই মাঠে। ঘণ্টাপ্রতি ৭ হাজার টাকায় যে কেউই ভাড়া নিতে পারেন মাঠটি। আগে থেকেই মাঠটি সম্পর্কে জানতেন মুশফিক। দেশের স্টেডিয়ামগুলিতে যখন অনুশীলনের অনুমতি নেই তখন মুশফিক নিলেন ব্যক্তিগত উদ্যোগ।

তার আগ্রহে সাড়া দিয়ে মাঠে আলাদা পিচ বসিয়েছে কর্তৃপক্ষ। আপাতত ম্যাটের উইকেটে চলবে অনুশীলন। ফোর্টিস গ্রুপ শিগগিরই মাঠের একপ্রান্তে পাকাপাকিভাবে উইকেট প্রস্তুত করার কথা জানিয়েছে। গ্রাউন্ডের ইনচার্জ মোহাম্মদ সম্রাট বলেছেন, ‘ক্রিকেট খেলার ব্যবস্থা এখানে পাকাপাকিভাবে হয়নি। মুশফিকুর রহিমের জন্য এখানে আলাদা ম্যাট বসানো হয়েছে। আমাদের পরিকল্পনা আছে এখানেই উইকেট প্রস্তুত করার। সেজন্য কাজও শুরু হয়েছে।’ তিনি আরও জানান, ক্রিকেটারদের জন্য এ মাঠ উন্মুক্ত করেছে কর্তৃপক্ষ। চাইলে যে কেউ যোগাযোগ করে মাঠে অনুশীলন করতে পারবেন।  

মঙ্গলবার নিজের অনুশীলনের ভিডিও ফেসবুকে আপলোড করেছেন মুশফিক। রানিং ও ফিটনেস ট্রেনিংয়ের পর মুশফিককে দেখা গেছে ব্যাট-বল নিয়ে ঠুকঠাক করতে। ২২ গজ ও সবুজ ঘাসে ফিরতে তর সইছিল না মুশফিকুর রহিমের। মুশফিকের অপেক্ষা ফুরিয়েছে ফোর্টিস স্পোর্টস গ্রাউন্ড।

ক্রিকেট বোর্ড সবধরণের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরানোর। দেশের আটটি স্টেডিয়াম প্রস্তুত করেছে বোর্ড। প্রয়োজন কেবল সরকারের সবুজ সংকেত। তাহলেই মুশফিক, তামিমদের মাঠে ফেরাতে পারবে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

 

ঢাকা/ইয়াসিন/কামরুল

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়