ঢাকা     মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৭ ১৪২৭ ||  ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

১৯৭২ সালের পর...

|| রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০২:৪৫, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯  
১৯৭২ সালের পর...

লিচের টানা দুই বলে আউট নাথান লায়ন ও হ্যাজেলউড। তাতে ওভালে জয় নিশ্চিত হলো ইংল্যান্ডের।

৩৯৯ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় অস্ট্রেলিয়া অলআউট ২৬৩ রানে। ১৩৫ রানের জয়ে ইংল্যান্ড অ্যাশেজ সিরিজে সমতা আনল। পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ২-২ এ শেষ হলো। ১৯৭২ সালের পর এবারই প্রথম অ্যাশেজ সিরিজ ড্র হলো। মাঝে ২৪ অ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়ার জয় ১৪টি, ইংল্যান্ডের ১০টি। সিরিজ ড্র হলেও অ্যাশেজ জিতে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ঘরের মাঠে শেষ অ্যাশেজে ইংল্যান্ডকে ৪-০ ব্যবধানে হারিয়েছিল অসিরা। ফলে অ্যাশেজ রিটেইন করে টিম পেইনের দল।

প্রথম ইনিংসের ব্যাটিং ব্যর্থতার পর ওভালে অস্ট্রেলিয়া কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে তা বোঝাই যাচ্ছিল। ইংল্যান্ডের ২৯৪ রানের জবাবে তারা করেছিল ২২৫ রান। ৬৯ রানের লিডসহ ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে করে ৩২৯ রান। রোববার চতুর্থ দিনে শেষ দুই উইকেটে ইংলিশরা ১৬ রান যোগ করেন। আর্চার তিন ও লিচ নয় রানে আউট হন। ব্রডের ব্যাট থেকে আসে ১২ রান। প্রথম ইনিংসের লিডসহ ইংল্যান্ড অস্ট্রেলিয়াকে ছুঁড়ে দেয় ৩৯৯ রানের লক্ষ্য।

বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৮৫ রান তুলতেই চার উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। শতরানের আগে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন স্টিভেন স্মিথ। পুরো অ্যাশেজ সিরিজে দুর্দান্ত খেলা এ ব্যাটসম্যান এবার থামেন ২৩ রানে। ব্রড তার উইকেটটি নিয়ে ইংল্যান্ড শিবিরে স্বস্তি ফিরিয়ে আনেন। এর আগে ব্রডের তোপে সাজঘরে ফেরেন দুই ওপেনার মারকাস হ্যারিস (৯) ও ডেভিড ওয়ার্নার (১১)। স্পিনার লিচ নেন লাবুশানের (১৪) উইকেট। ব্রডের পকেটে সপ্তমবারের মতো যায় ওয়ার্নারের উইকেট।

 

 

টপ অর্ডার ব্যর্থ হওয়ার পর দলের হাল ধরেন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরা। সেই লড়াইয়ে নেতৃত্ব দেন ম্যাথু ওয়েড। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান একপ্রান্ত আগলে খেলে যান। মিচেল মার্শের সঙ্গে ৬৬, টিম পেইন ও প্যাট কামিন্সের সঙ্গে ৪৪ রানের দুটি জুটি গড়ে ওয়েড দেয়াল হয়ে দাঁড়ান। দারুণ ব্যাটিংয়ে ক্যারিয়ারের চতুর্থ টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে নেন এ ব্যাটসম্যান।

তবে সেঞ্চুরির পর ইনিংস বড় করতে পারেননি বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ১১৭ রানে তাকে ফেরান অধিনায়ক জো রুট। ওখানেই ম্যাচ জয় নিশ্চিত হয়ে যায় ইংল্যান্ডের। ব্রড ও লিচ পেয়েছেন চারটি করে উইকেট। দুটি উইকেট নেন রুট।

প্রথম ইনিংসে ছয় উইকেট পাওয়া জফরা আর্চার দ্বিতীয় ইনিংসে ছিলেন উইকেটশূন্য। তবে ম্যাচসেরার পুরস্কার উঠে তার হাতে। ৭৭৪ রান করে সিরিজসেরার পুরস্কার পেয়েছেন স্টিভেন স্মিথ।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইয়াসিন

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়