ঢাকা     সোমবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ১৩ ১৪২৭ ||  ১০ সফর ১৪৪২

১১ বছর এবং ৮৮ টেস্টের পর অপেক্ষা ফুরালো ফাওয়াদের

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৩৫, ১৩ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
১১ বছর এবং ৮৮ টেস্টের পর অপেক্ষা ফুরালো ফাওয়াদের

১২ জুলাই ২০০৯, শ্রীলঙ্কার কলম্বোতে টেস্ট অভিষেক হয় পাকিস্তানের তরুণ তুর্কী ফাওয়াদ আলমের। দলের ব্যর্থতার মাঝেও রেকর্ড শতক হাঁকিয়ে একা লড়ে গেছেন। তবে লঙ্কানদের বিপক্ষে সে ম্যাচে দলের হার ঠেকাতে পারেননি। এরপর একই বছর খেলেছেন আরও দুটি টেস্ট। মোট ৩ টেস্টে ৪১ গড়ে করেছিলেন ২৫০ রান।

এই পারফরম্যান্স সত্ত্বেও অজানা কারণে এরপর থেকে টেস্ট দলে ব্রাত্য হয়ে পড়েন। কেটে যায় ১১ বছর, পাকিস্তান খেলে আরও ৮৮ টেস্ট। ঘরোয়া ক্রিকেটে রানের ফুলঝুরি ছোটানো ফাওয়াদের টেস্ট দলে সুযোগ পাওয়া হয়ে ওঠে না। অবশেষে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে এসে একাদশে সুযোগ মিললো এই বাঁহাতি অলরাউন্ডারের।

৩৪ বছর বয়সে এসে সুযোগ পেলেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ টেস্টে। প্রথম টেস্টের দল থেকে পাকিস্তান অলরাউন্ডার শাদাব খানের বদলে সাউদাম্পটমে ফাওয়াদকে সুযোগ দেওয়া হয়। এর মাঝে অবশ্য ২০১৫-১৬ সাল পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি দলে মোটামুটি নিয়মিত খেলে গেছেন এই অলরাউন্ডার।

১৭ বছর বয়সে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া ফাওয়াদ আলম জাতীয় দলের হয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপেও প্রতিনিধিত্ব করেন। নিজের অভিষেক টেস্টে প্রথম পাকিস্তানি ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেকে অ্যাওয়ে শতক হাঁকানোর রেকর্ডও গড়েন তিনি।

ঢাকা/কামরুল

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়