RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৫ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ১০ ১৪২৭ ||  ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দুইজনের করোনা উপসর্গ, ১০ ক্রিকেটার আইসোলেশনে

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৫৬, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ০১:২৪, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০
দুইজনের করোনা উপসর্গ, ১০ ক্রিকেটার আইসোলেশনে

শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে ধোঁয়াশা থাকলেও বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) পরিকল্পনামাফিক এগিয়ে নিচ্ছে প্রক্রিয়া।

রোববার দুপুর থেকে শুরু হয়েছে জাতীয় দলের স্কিল ট্রেনিং। গত বৃহস্পতিবার ২৭ ক্রিকেটারকে নিয়ে দল ঘোষণা করে বিসিবি। তবে আজকের প্রথম দিনের ট্রেনিংয়ে ছিলেন না ১১ ক্রিকেটার। স্কিল ট্রেনিংয়ের জন্য ডাক পাওয়া ক্রিকেটারদের মধ্যে দুইজনের করোনা উপসর্গ রয়েছে। তাদের সংস্পর্শে এসেছেন আট ক্রিকেটার। এজন্য ১০ ক্রিকেটারকে একাডেমিতে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। আগে থেকেই আইসোলেশনে সাইফ হাসান। 

মিরপুর হোম অব ক্রিকেটে যারা ঐচ্ছিক অনুশীলন করেছেন তারা-ই আজ অনুশীলনে ছিলেন। ১৬ ক্রিকেটারের তালিকায় রয়েছেন মুশফিক, মাহমুদউল্লাহ, তামিম ও মিরাজরা। কোচ রাসেল ডমিঙ্গো, ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক, বোলিং কোচ ওটিস গিবসনরা পাখির চোখে ক্রিকেটারদের পরখ করেছেন। প্রত্যেকেই ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিংয়ে নিজেদের ঝালিয়ে নিয়েছেন।

ক্যাম্পে যোগ দেয়ার জন্য ঢাকার বাইরে থেকে এসেছেন ১০ ক্রিকেটার। প্রত্যেকেই উঠেছেন মিরপুরের একাডেমিতে। করোনা পরীক্ষায় প্রত্যেকে নেগেটিভ আসলেও দুইজনের করোনা উপসর্গ করেছে।তাদের সংস্পর্শে ছিলেন বাকি আটজন। বাড়তি সুরক্ষার কথা চিন্তা করে প্রত্যেককে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

আইসোলেশনে থাকা ১০ ক্রিকেটার হলেন, আবু জায়েদ রাহী, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, নাঈম হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মোসাদ্দেক হোসেন, হাসান মাহমুদ, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, মোহাম্মদ মিথুন, শফিউল ইসলাম ও ইবাদত হোসেন চৌধুরী। 

সোমবার ২৭ ক্রিকেটার, কোচিং ও সাপোর্টিং স্টাফদের করোনা পরীক্ষা করানো হবে। সেখানে নেগেটিভ আসলে সেই ১১ ক্রিকেটার পরদিন থেকে যোগ দিতে পারবেন অনুশীলনে। এর আগে সাইফের দুইবার করোনা পজিটিভ আসায় তাকে দুইবার করোনা পরীক্ষা করাতে হচ্ছে। দুইবার নেগেটিভ আসলে মাঠে ফেরার অনুমতি পাবেন ডানহাতি ওপেনার।  

বিসিবির সিনিয়র মিডিয়া ম্যানেজার রাবীদ ইমাম বলেন, ‘ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফদের সবাই করোনা নেগেটিভ। সেখানে দুইজনের উপসর্গ থাকায় তাদের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। তাদের সংস্পর্শে আসা বাকিদেরও বাড়তি সতর্কতার জন্য আলাদা রাখা হয়েছে। করোনা পরীক্ষার পর প্রত্যেকে দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন।’

রোববার সকালে তাসকিন আহমেদ ও মেহেদী হাসান মিরাজ হোটেল সোনারগাঁওয়ে চেক-ইন করে। বাকিরা অনুশীলন শেষে হোটেলে যোগ দেবেন। এখানে জাতীয় দলের সবাই আইসোলেশনে থাকবেন। হোটেলের ভেতরে তাদের চলাফেরা থাকবে সীমিত।

দুইটি ফ্লোর বাংলাদেশ দলের জন্য আলাদা করা হয়েছে। হোটেলের নির্দিষ্ট করা ক্লিনার ও বয় থাকবে আইসোলেশন জোনে। সেখান থেকে তারা নিচে নামা বা অন্য কোনো ফ্লোরে যেতে পারবে না। হোটেলের অন্য কেউ ওই দুই ফ্লোরে প্রবেশ করতে পারবে না। এ ছাড়াও হোটেলের একটা লিফট এবং দুটি ডাইনিং আইসোলেশন করা হয়েছে। জাতীয় দলের সঙ্গে কাজের সূত্রে যারা জড়িত প্রত্যেকে করোনা পরীক্ষা করানো হয়েছে।

ঢাকা/ইয়াসিন

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়