RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ৩০ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ১৫ ১৪২৭ ||  ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

১২ বছর পর মুলতানে ফিরছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৩৯, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০  
১২ বছর পর মুলতানে ফিরছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরছে মুলতানে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পাকিস্তানের তিনটি ওয়ানডে হবে এই ভেন্যুতে। ৩০ অক্টোবর থেকে ৩ নভেম্বরের এই সিরিজ দিয়ে ১২ বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রত্যাবর্তন হবে মুলতানে। দ্বিপাক্ষিক এই লড়াইয়ে থাকবে আরও তিনটি টি-টোয়েন্টি, যা হবে রাওয়ালপিন্ডিতে।

সবগুলো ম্যাচই হবে রুদ্ধদ্বার স্টেডিয়ামে। দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা অটুট রাখার পাশাপাশি করোনা সংক্রমণের মধ্যে সফলভাবে এই সিরিজ আয়োজনের প্রতিশ্রুতি পাকিস্তান ক্রিকেট বোডের (পিসিবি)। শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ, মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাব ও পিএসএল সফলভাবে আয়োজন করেছে তারা। বোর্ডের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বিষয়ক পরিচালক জহির খান বলেছেন, একটি নিরাপদ ও সুরক্ষিত দেশ হিসেবে পাকিস্তান খ্যাতি অর্জনের পর করোনাভাইরাস সাফল্যের সঙ্গে মোকাবিলা করে স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনাতেও দৃষ্টান্ত তৈরি করেছে।

এই সিরিজ দিয়ে শুরু হবে বিশ্বকাপ সুপার লিগ। ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের দল নিশ্চিত হবে এই প্রতিযোগিতা থেকে। এজন্য প্রত্যেক পয়েন্ট খুব গুরুত্বপূর্ণ হবে দুই দলের জন্য। এক বছরেরও বেশি সময় পর ওয়ানডে খেলতে নামছে পাকিস্তান। গত বছরের সেপ্টেম্বরে সর্বশেষ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ওয়ানডে খেলে ২-০ তে সিরিজ জিতেছিল স্বাগতিক পাকিস্তান।

জহির জানান, কৌশলগত কারণে মুলতান ও রাওয়ালপিন্ডিতে ভেন্যু ঠিক করা হয়েছে। পাঁচ টেস্ট ও সাত ওয়ানডে আয়োজন করা মুলতানে সর্বশেষ ম্যাচ হয়েছিল ২০০৮ সালের এপ্রিলে বাংলাদেশের বিপক্ষে। পিসিবির এই কর্মকর্তা বলেছেন, ‘মুলতান ও রাওয়ালপিন্ডিতে আমরা কৌশলগত কারণে ভেন্যু ঠিক করেছি। এখানে ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত হবে ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপ। এই সময়ে জিম্বাবুয়ে পাকিস্তানে আসবে, হোটেলে জৈব সুরক্ষা নিশ্চিতে আমরা যথেষ্ট অভিজ্ঞতা অর্জন করবো এই কাপ প্রতিযোগিতা থেকে।’

পিসিবির বিবৃতি অনুযায়ী ৩২ জন খেলোয়াড় নিয়ে পাকিস্তান সফর করবে জিম্বাবুয়ে। আন্তঃদলীয় প্রস্তুতি ম্যাচও খেলবে তারা। পাকিস্তানে তাদের পৌঁছানোর কথা ২০ অক্টোবর। হারারে থেকে পাকিস্তানের বিমানে ওঠার ৪৮ ঘণ্টা আগে করোনা টেস্ট করা হবে এবং ইসলামাবাদে পৌঁছানোর পর যত দ্রুত সম্ভব দ্বিতীয় টেস্ট করানো হবে তাদের। নেগেটিভ আসা খেলোয়াড়রা ভেন্যুতে ট্রেনিং করতে পারবেন বলে জানিয়েছে পাকিস্তানের বোর্ড।

কারও ফল পজিটিভ হলে তাকে পাঁচ দিনের আইসোলেশনে থাকতে হবে এবং পরে দুবার নেগেটিভ হলেই দলে যোগ দেওয়ার অনুমতি পাবেন।

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়