RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ৭ ১৪২৭ ||  ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি ডিন জোন্সের আকস্মিক মৃত্যু

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৩২, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:৪৩, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি ডিন জোন্সের আকস্মিক মৃত্যু

সাবেক অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার এবং ধারাভাষ্যকার ডিন জোন্স মুম্বাইতে অবস্থানকালে মৃত্যুবরণ করেছেন। তিনি মুম্বাইয়ের একটি সাত তারকা মানের হোটেলে জৈব সুরক্ষা বলয়তে ছিলেন। সেখানে আকস্মিক হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। মৃত্যুর সময় অজি এই কিংবদন্তির বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর।

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক এই ক্রিকেটার এই মুহূর্তে মুম্বাইতে চলমান আইপিএলের ক্রিকেট বিশ্লেষক হিসেবে কাজ করছিলেন। এছাড়াও তিনি ধারাভাষ্যের কাজও করছিলেন। অস্ট্রেলিয়ার এই কিংবদন্তির ক্রিকেট বিশ্লেষক হিসেবে দারুণ সুখ্যাতি ছিল। তিনি ভারতের টিভি চ্যানেল ‘এনডিটিভি’তে ‘প্রোফ ডিনো’ নামক একটি অনুষ্ঠানে ক্রিকেট বিশ্লেষক হিসেবে কাজ করেছিলেন। যা প্রচণ্ড জনপ্রিয় ছিল।

১৯৬১ সালে মেলবোর্নে জন্মগ্রহণ করা ডিন জোন্স ২৩ বছর বয়সে প্রথম অস্ট্রেলিয়া দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। একই বছরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেকও হয় এই ব্যাটসম্যানের। দশ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ২১৬টি ম্যাচে অজিদের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন জোন্স।

এর মধ্যে ৫২ টেস্টে ৪৬.৫৫ গড়ে ৩৬৩১ রান করেছিলেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। যেখানে ১১ শতকের সঙ্গে ছিল ১৪টি অর্ধশতক। ওয়ানডেতেও দারুণ সফল ছিলেন এই ক্রিকেটার। ১৬৪ ম্যাচে ৪৪ গড়ে করেছিলেন ৬০৬৮ রান। যেখানে ৭ শতকের সঙ্গে ছিল ৪৬টি অর্ধশতক। এছাড়াও ২৪৫টি প্রথম শ্রেণি এবং ২৮৫টি লিস্ট এ ম্যাচ খেলেছিলেন সাবেক এই ক্রিকেটার।

অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপ জয়ের পেছনে অসাধারণ ভূমিকা ছিল তিনে ব্যাট করতে নামা জোন্সের। ১৯৮৭ সালের সেই বিশ্বকাপে জোন্স তিনে নেমে ৪৪ গড়ে করেছিলেন ৩১৪ রান। যদিও কোনো শতকের দেখা মেলেনি তবে নামের পাশে ছিল তিনটি অর্ধশতক।

ক্রিকেট ছাড়ার পর বিশ্লেষক হিসেবেই বেশি সময় পার করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ান এই কিংবদন্তি। তবে ২০১৬ সালে এসে কোচিং পেশায়ও নাম লিখিয়েছিলেন। ২০১৬ সালে পাকিস্তান সুপার লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজি ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের হয়ে কোচিং পেশায় যাত্রা করেন। দুই মৌসুমে এই দলটির দায়িত্বে ছিলেন জোন্স। ২০১৭ সালে আফগানিস্তান জাতীয় দলেরও দায়িত্ব পান এই অজি কিংবদন্তি। ২০১৯ সালে করাচি কিংসের দায়িত্ব নেওয়া ছিল জোন্সের সর্বশেষ কোচিং অভিজ্ঞতা।

ঢাকা/কামরুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়