RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ৫ ১৪২৭ ||  ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

শেষ মিনিটের গোলে নাটকীয় জয় ম্যানইউর

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:১৬, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ২২:৩৫, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০
শেষ মিনিটের গোলে নাটকীয় জয় ম্যানইউর

হার দিয়ে এবারের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ শুরু করেছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দ্বিতীয় ম্যাচেও পয়েন্ট খোয়ানোর সম্ভাবনা ছিল প্রবল। তবে শেষ মিনিটের গোলে মৌসুমের প্রথম জয়ের দেখা পেল ওলে গানার সুলশারের দল।

ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিওনের মাঠে ৩-২ গোলের রুদ্ধশ্বাস জয় তুলে নিয়েছে প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি। পুরো ম্যাচে ব্রাইটনের ছায়ায় ছিলেন ম্যানইউর ফুটবলাররা। ছিলেন না নিজেদের সেরা ছন্দে। তবে সৌভাগ্য ভর করেছিল সুলশারের দলের উপর। আর তাই গোলমুখে তিন শট নিয়ে তিনটি গোল করে জয় নিজেদের করে নিয়েছে দলটি।

ঘরের মাঠে ব্রাইটন শুরু থেকে আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছিল। ম্যাচে ব্রাইটনের ১৮টি শটের বিপক্ষে ম্যানইউ নিতে পেরেছিল মাত্র ৭টি শট। ব্রাইটনের নেওয়া ১৮ শটের পাঁচটি আঘাত হেনেছে গোলপোস্টে। যা ২০০৩ সালের পর এক ম্যাচে রেকর্ড সর্বোচ্চ।

ম্যাচের নবম মিনিটে প্রথম শক্ত আক্রমণ করে ব্রাইটন। তবে স্বাগতিক দলের স্ট্রাইকার ট্রজার্ডের শট বাম গোলপোস্টে লেগে ফিরে গেলে বেঁচে যায় ম্যানইউ। ম্যাচের ২১ মিনিটে আবার সৌভাগ্য ম্যানইউয়ের পক্ষে। ট্রজার্ড এবার আঘাত হানেন ডান গোলপোস্টে। ম্যাচের ৩০ মিনিটের মধ্যে তৃতীয়বারের মতো দুর্ভাগ্য বরণ করেন ব্রাইটনের ফুটবলাররা। এবার দলটির পক্ষে ম্যানইউয়ের গোলপোস্টে আঘাত হানেন অ্যাডাম ওয়েবস্টার।

তবে ম্যাচে প্রথম জালের দেখা পায় রেড ডেভিলরা। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে ম্যাসন গ্রিনউড বল জালে জড়ান। তবে মার্কাস র‍্যাশফোর্ড অফসাইডে থাকায় গোলটি বাতিল করা হয়। এরপরই স্বাগতিকদের আনন্দে ভাসান নিল মফে। ম্যাচের ৪০ মিনিটে ব্রাইটনকে পেনাল্টি থেকে এগিয়ে দেন ফরাসি ফুটবলার।

তবে লিডের আনন্দ বেশিক্ষণ টেকেনি ব্রাইটনের। ম্যাচের ৪৩ মিনিটে আত্মঘাতী গোল করে খেলায় সমতা আনেন লুইস ডাঙ্ক। অবশ্য তিন মিনিট পর আবার এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল ব্রাইটন। পেয়েছিল পেনাল্টি। তবে ভিএআর সিদ্ধান্তে বদলে যায় সেই সিদ্ধান্ত।

ম্যাচের ৫৩ মিনিটে ম্যানইউয়ের পক্ষে র‍্যাশফোর্ড ব্রাইটনের জালে বল জড়ান। তবে আবারও অফসাইডের বাঁশি বাজান রেফারি। তবে এরপরের মিনিটে অসাধারণ এক গোলে রেড ডেভিলদের এগিয়ে দেন র‍্যাশফোর্ডই। এর ছয় মিনিট পর চতুর্থবারের মতো ম্যানইউয়ের গোলপোস্টে আঘাত করে ব্রাইটনের ফুটবলার সলি মার্চ।

৭৬ মিনিটে রেকর্ড পঞ্চমবারের মতো রেড ডেভিলদের গোলপোস্টে আঘাত হানে ব্রাইটন। তবে ম্যাচের সব নাটকীয়তা যেন জমে ছিল খেলার যোগ করা সময়ে। যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে ম্যানইউ গোলরক্ষক ডি গিয়ার কল্যাণে লিড ধরে রাখে অতিথিরা।

তবে এর তিন মিনিট পর সলি মার্চ খেলায় সমতা ফেরান। ইনজুরি টাইমে গোল হজম করে পয়েন্ট খোঁয়ানোর হতাশা যখন ঘিরে ধরেছিল রেড ডেভিলদের। তখনই চমক হয়ে এলো হ্যারি মাগুয়েরের হেড। ম্যাচের যোগ করা সময়ের নবম মিনিটে কর্ণার কিক থেকে হেড করলে সেটি আঘাত হানে ব্রাইটনের ফুটবলার নিল মফির হাতে।

রেফারি সঙ্গে সঙ্গে পেনাল্টির বাঁশি বাজান। আর সফল স্পট কিকে গোল করে ম্যাচের শেষ মিনিটে ম্যানইউয়ের জয় নিশ্চিত করেন পর্তুগিজ তারকা ব্রুনো ফার্নান্দেজ।

ঢাকা/কামরুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়