RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৫ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১১ ১৪২৭ ||  ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২

এ বছর হচ্ছে না ঢাকা লিগ

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:২০, ১৯ অক্টোবর ২০২০  
এ বছর হচ্ছে না ঢাকা লিগ

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ আয়োজন নিয়ে ধোঁয়াশা এখনও কাটেনি। ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরানোর পর ঘরোয়া ক্রিকেট ফেরাতে উদগ্রীব দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিসিবি। কিন্তু বড় আকারে প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট আয়োজনে জটিলতা দেখছে বিসিবি। ৪৫ ক্রিকেটার নিয়ে বিসিবি আয়োজন করেছে প্রেসিডেন্টস কাপ। নভেম্বরে ৭৫ ক্রিকেটার নিয়ে শুরু হবে ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি। এরপরই ঢাকা লিগ আয়োজনের ইচ্ছা।

কিন্তু ১২ দল নিয়ে দেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে জমজমাট টুর্নামেন্ট আয়োজন হবে কি না নিশ্চিত নয়। বিসিবির পরিচালক ও গেম ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ সুজন জানিয়েছেন, এ বছর প্রিমিয়ার লিগ আয়োজনের সম্ভাবনা ক্ষীণ। সুযোগ থাকলে আগামী বছর হতে পারে ৫০ ওভার ক্রিকেটের এ আয়োজন। 

ঢাকা লিগ আয়োজনের চ্যালেঞ্জগুলো তুলে ধরে খালেদ মাহমুদ বলেন, ‘ঢাকা লিগ আয়োজন করা আসলে জটিল, খুব কঠিন। এখানে মাত্র তিনটা দল জৈব সুরক্ষা বলয়ে থেকে খেলছে, পরবর্তীতে আমরা ৫-৬ টা দল নিয়ে একটা টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট করতে যাচ্ছি। তারপর প্রিমিয়ার লিগ। যেখানে ১২টি দল খেলবে। যদি প্রতি দলে ১৫ জন করে খেলোয়াড়, কোচ, ম্যানেজম্যান্টসহ ধরি, অন্তত ২০ জন। সব মিলিয়ে প্রায় ২৭০ জনের মত লোককে একসঙ্গে আবাসনের ব্যবস্থা করার মত জায়গা কোথায় আছে, এটা একটা বড় প্রশ্ন। আমরা যদি সিঙ্গেল লিগও করি আরও ১০টা করে ম্যাচ বাকি আছে। বিশাল লম্বা সময়।’

সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেও বিসিবি চায় প্রিমিয়ার লিগ মাঠে গড়াক। খালেদ মাহমুদ দাবি করলেন, ‘বিসিবি ইতিবাচক। প্রেসিডেন্ট স্যারও (নাজমুল হাসান পাপন) ইতিবাচক, ঢাকা লিগ হোক। তবে সবকিছু সমন্বয় করে আমরা কবে লিগ করতে পারি সেটাই দেখার। তবে এবার লিগ হচ্ছে না এতটুকু নিশ্চিত।’

প্রেসিডেন্টস কাপের পর বিসিবি পাঁচ দল নিয়ে আয়োজন করবে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। নভেম্বর-ডিসেম্বরে টুর্নামেন্টটি সফলভাবে আয়োজনের পর ঢাকা লিগ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। এর আগে ১২টি ক্লাবের সঙ্গে বৈঠকে বসার কথাও জানালেন খালেদ মাহমুদ, ‘আমাদেরকে সিসিডিএম ও ক্লাবের সঙ্গে বসতে হবে। যদি ঢাকা লিগ হয় জানুয়ারিতে, হতেও পারে। টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট ডিসেম্বরের মাঝামাঝি শেষ হবে। এরপর ক্লাবগুলোকে প্রস্তুতির জন্য এক মাস সময় দিতে হবে। সে হিসেবে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহ বা ১০ তারিখের পর ঢাকা লিগ শুরু হতেও পারে।’

জানুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল আসবে বাংলাদেশ সফরে। জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের ছাড়া ক্লাবগুলো নিয়ে লিগ চালানো যাবে বলেই বিশ্বাস করেন খালেদ মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মতো হবে, ঘরোয়া ঘরোয়ার মতো হবে। এ ক্ষেত্রে যারা আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবে, তারা হয়তো ঘরোয়া খেলতে পারবে না। এটা খুব সহজ, স্বাভাবিক। কারণ দুটা তো কখনোই এক সঙ্গে খেলা যাবে না।‘

গত ১৫ মার্চ মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পর্দা উঠেছিল ‘বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ স্পন্সর্ড বাই ওয়ালটন’এর। এরপর লিগের প্রথম রাউন্ডের খেলা হয়েছিল ঠিকঠাক মতো। তবে দ্বিতীয় রাউন্ডের আগে করোনার থাবায় বন্ধ হয়ে যায় লিগ।

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়