RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ৩০ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৭ ||  ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২

মুশফিকের অনুপ্রেরণায় উন্নতির পথ দেখছেন ইরফান

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৫৯, ২০ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৯:১৬, ২০ অক্টোবর ২০২০
মুশফিকের অনুপ্রেরণায় উন্নতির পথ দেখছেন ইরফান

ইরফান শুক্কুর

ক্রিকেটে সৌম্য সরকার ও ইরফান শুক্কুরের একসঙ্গে পথচলা যুব দল থেকে। ঘরোয়া ক্রিকেটের অলিগলি ঘুরে, নিজের সামর্থ্য জানান দিয়ে সৌম্য জাতীয় দলে জায়গা পাকা করলেও ইরফান নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে যে একেবারে খারাপ করেন, তা নয়। কিন্তু কোনও না কোনও কারণে জাতীয় দলের দুয়ার খোলে না। 

ইরফানের জাতীয় দলে খেলার স্বপ্ন পূরণের চেষ্টা করেছিলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। কিন্তু টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে সাড়া না পাওয়ায় এখনও বড় মঞ্চে খেলা হয়নি বাঁহাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানের। তবুও চেষ্টার কমতি রাখছেন না এ মারমুখী ব্যাটসম্যান। গত বিপিএল ফাইনালে অর্ধশতক করে সবার নজর কেড়েছিলেন ভালোভাবে। এবার বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপেও ধারাবাহিক ভালো খেলছেন। 

নাজমুল একাদশের হয়ে প্রথম ম্যাচ জেতাতে ইরফান করেন অপরাজিত ৫৬। দ্বিতীয় ম্যাচে রান আউট হওয়ার আগে ৪০ বলে করেন ২৪ রান। সর্বশেষ ম্যাচে খেলেন ৩১ বলে ৪৮ রানের অপরাজিত ঝড়ো ইনিংস। দীর্ঘদিন পর মাঠে ফিরে ব্যাট হাতে যে ধারাবাহিকতা দেখাচ্ছেন তাতে মুগ্ধ সংশ্লিষ্টরা। এর পেছনে রয়েছে মুশফিকুর রহিমের অবদান। 

ইরফান জানালেন, তার পারফরম্যান্স বের করে আনতে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন সতীর্থ মুশফিক। জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়কের অনুপ্রেরণাদায়ক কথায় তিনি উন্নতির পথ খুঁজে পেয়েছেন। মঙ্গলবার ইরফান বলেন, ‘মুশফিক ভাই ও সৌম্য সরকার দীর্ঘদিন ধরে জাতীয় দলকে প্রতিনিধিত্ব করে আসছে। সৌম্য আমার সঙ্গে খেলেছে যুব ক্রিকেটেও। মুশফিক ভাই বলেছেন, নিজের সামর্থ্যর সবকুটু ঢেলে দিতে এবং তা সবার সামনে নিয়ে আসতে হবে। আমি তার কথা মানার চেষ্টা করেছি। তিনি কথা কম বললেও কিন্তু খুবই অনুপ্রেরণাদায়ক কথা বলেন। তিনি বলেছেন, মাঠে যেন নিজের অবস্থান ও মানসিকতা ঠিক রাখি। ওটাই আমি অনুসরণ করার চেষ্টা করছি।’ 

মিডল অর্ডারে খেলে বড় স্কোর করা কঠিন। এই পজিশনে দলের হয়ে অবদান রাখার কাজটা বেশি করতে হয়। কালেভদ্রে সুযোগ এলে বড় ইনিংস খেলা যায়। এজন্য মধ্যভাগে নেমে ইনিংস শেষ করে আসার লক্ষ্য নিয়ে ব্যাটিংয়ের কথা জানালেন ইরফান, ‘দলে অবদান রাখতে ব্যাট হাতে কার্যকরী কিছু করতে চাচ্ছি। আমি সাধারণত টপ-অর্ডারে ব্যাটিং করি, এখানে সাতে সুযোগ পেয়েছি। আমার লক্ষ্য হচ্ছে শেষ পর্যন্ত ব্যাটিং করে যাওয়া। অপরাজিত থাকার লক্ষ্য নিয়ে ব্যাটিং করে যাই।’ 

বিসিবির হাই পারফরম্যান্স স্কোয়াডে তিন বছর কাটিয়ে নিজেকে পরিণত করেছেন ইরফান। আরও একধাপ এগিয়ে গিয়ে পেতে চান জাতীয় দলের জার্সি। সামনের কঠিন পথে দ্যুতি ছড়িয়ে লাল-সবুজের প্রতিনিধিত্ব করতে পারেন কি না সেটাই দেখার।

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়