RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৪ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১০ ১৪২৭ ||  ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২

টেলরের শতক, শাহীনের ৫ উইকেটের দিনে পাকিস্তানের জয়

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৩৪, ৩০ অক্টোবর ২০২০  
টেলরের শতক, শাহীনের ৫ উইকেটের দিনে পাকিস্তানের জয়

শতক হাঁকানো জিম্বাবুয়ের ব্রেন্ডন টেলর যে কতক্ষণ মাঠে ছিল, স্বস্তিতে ছিলো না স্বাগতিক পাকিস্তান। ২৮২ রানের বিশাল লক্ষ্য দাঁড় করেও হারের চিন্তা যেন উঁকি দিচ্ছিলো পাকিস্তান শিবিরে। তবে টেলরকে ফিরিয়ে অধিনায়ক বাবর আজমের মুখে হাসি ফেরান পাকিস্তানি পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদি। পরবর্তীতে এই পেসারের ফাইফারে সফরকারী জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৬ রানের জয় দেখে স্বাগতিক পাকিস্তান।

১৪ বছর পর রাওয়ালপিন্ডিতে ওয়ানডে ফেরার ম্যাচে জয়ে রাঙাতে পারলো পাকিস্তান। টসে জিতে আগে ব্যাটিং করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে হারিস সোহেল, ইমাম-উল হক, ইমাদ ওয়াসিমের ব্যাটে ভর করে ৮ উইকেটে ২৮২ রান তুলে পাকিস্তান। জবাবে খেলতে নেমে ম্যাচসেরা টেলরের শতক সত্ত্বেও ২৫৫ রানে থামে জিম্বাবুইয়ান ইনিংস।

২৮২ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে জিম্বাবুয়ে। ২৮ রানের মধ্যে ফেরে দুই ওপেনার। তৃতীয় উইকেট জুটিতে ক্রেইগ আরভিনকে নিয়ে ৭১ রানের জুটি গড়ে রান তাড়ায় দলকে টিকিয়ে রাখেন টেলর। ৪১ রান করে আরভিন থামার পর সাবেক অধিনায়ক উইলিয়ামসও টিকেননি বেশিক্ষণ।

তবে তরুণ তুর্কি ওয়েসলি মাধেবেরেকে নিয়ে দারুণভাবে দলকে এগিয়ে নেন টেলর। এই দুই ব্যাটসম্যান পঞ্চম উইকেটে তোলে ১১৯ রান। ৫৫ রান করা মাধেবেরেকে ওয়াহাব রিয়াজ ফেরালে ভাঙে জুটিটি। এরপরে অবশ্য বেশিক্ষণ দাঁড়াতে পারেনি সফরকারীরা। শেষ ৬ উইকেট হারায় মাত্র ২১ রানে। ১১২ রান করে টেলর ফিরলে জিম্বাবুয়ের জয়ের স্বপ্ন ফিকে হয়ে যায়। শেষদিকে নিজের ষদিকে নিজের ৫ উইকেট পূর্ণ করে জিম্বাবুয়ের টেল এন্ডারদের ধ্বসিয়ে দেন শাহীন। অপরদিকে অভিজ্ঞ ওয়াহাব নিজের ৩ উইকেট পূর্ণ করে দলের জয় নিশ্চিত করে।

এর আগে শেষের দিকে ঝড় তুলে সফরকারী জিম্বাবুয়ের সামনে বড় লক্ষ্য দেয় পাকিস্তান। শেষ ১১ ওভারে বাবর আজমের দল তোলে ১০৬ রান। যার বেশিরভাগ অবদান ইমাদ, ফাহিম আশরাফ এবং হারিসের।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭১ রান করেন হারিস। এছাড়াও ফাহিম ১৬ বলে ২৩ রান করে ফিরলেও ইমাদ ২৬ বলে ৩৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। এই তিন ব্যাটসম্যান ছাড়াও ব্যাট হাতে পাকিস্তানের পক্ষে আলো ছড়িয়েছেন ইমাম। এই ওপেনার ৫৮ রানের দারুণ ইনিংস খেলে হাস্যকর এক রান আউটে মাঠ ছাড়েন। জিম্বাবুয়ের পক্ষে টেন্ডাই চিসোরো এবং ব্লেসিং মুজারাবানি ২টি করে উইকেট শিকার করেন।

ঢাকা/কামরুল

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়