RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৫ ১৪২৭ ||  ০৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

দলের সবার কাছে পারফরম্যান্স চান মিথুন

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:২৪, ২৫ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:২৫, ২৫ নভেম্বর ২০২০
দলের সবার কাছে পারফরম্যান্স চান মিথুন

র দলই একটি করে ম্যাচ খেলে ফেলেছে, শুধু গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম ছাড়া। বৃহস্পতিবার তাদের প্রথম ম্যাচ মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর কাছে হেরে যাওয়া বেক্সিমকো ঢাকার বিপক্ষে। মুশফিকুর রহিমের দলের বিপক্ষে জিতে ‘বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ স্পন্সরড বাই ওয়ালটন’ শুরু করতে চায় চট্টগ্রাম। শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিপক্ষে কাজটা কঠিন হলেও অসম্ভব নয় বলে মনে করছেন চট্টগ্রামের অধিনায়ক মোহাম্মদ মিথুন। কাগজে-কলমে তার দলও পিছিয়ে থাকার মতো নয়। তবে মাঠের পারফরম্যান্সকেই বড় করে দেখছেন অধিনায়ক। তার মতে, মাঠে যারা শতভাগ প্রয়োগ করতে পারবে তারাই বিজয়ের হাসি হাসবে।  

বুধবার অনুশীলন শেষে চট্টগ্রাম অধিনায়ক সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন। মিরপুরে তার কথা শুনেছিল রাইজিংবিডিও-

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম দল কেমন হলো?

মিথুন: আমার দল নিয়ে আমি অনেক খুশি। আমরা একটা ভারসাম্যপূর্ণ দল। এখন মাঠে প্রমাণ করতে হবে যে আমরা দল হিসেবে কতটা ভালো। আমি মনে করি আমরা যদি স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারি, তাহলে ইতিবাচক ফল পাবো।

অধিনায়কত্ব পেয়ে কেমন লাগছে? দলকে কোথায় নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য? 

মিথুন: সবার আগে আমি সম্মানিত (নেতৃত্ব পেয়ে)। আমাকে যোগ্য মনে করেছে। আমি অবশ্যই আমার দিক থেকে শতভাগ চেষ্টা করবো নিজের ও দলের সেরা পারফরম্যান্সটা বের করে আনতে। লক্ষ্যের কথা যেটা বললেন, মাত্র টুর্নামেন্ট শুরু। আমি ভবিষ্যত চিন্তা করি না, বর্তমানে থাকতেই বেশি পছন্দ করি। আমার লক্ষ্য ম্যাচ ধরে ধরে খেলা। এমনকি প্রতিটি বল আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। আমি মনে করি কালকের ম্যাচে যারা সেরা ক্রিকেটটা খেলবে, তারাই জিতবে। 

ঢাকার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে জয় পেতে কতটা মুখিয়ে আছেন?

মিথুন: প্রথম ব্যাপার হচ্ছে, কালকে খেলার আগে হয়তো অনেকে চিন্তা করছে খাতা কলমে কারা কতটা শক্তিশালী! কিন্তু গতকালকের খেলায় একটা পরিষ্কার ধারণা হয়েছে, খাতা কলমের চেয়ে মাঠের ক্রিকেটটা গুরুত্বপূর্ণ। উইকেট দেখে আমার মনে হয়েছে খুব ভালো উইকেট, অনেক স্কোরের ম্যাচ হতে পারে। এমন উইকেট পুরো টুর্নামেন্টে থাকলে যত দিন যাবে, ততই আরও ভালো ক্রিকেট সবাই দেখবে আশা করি।

আপনার দলে জাতীয় দলের দুই ওপেনার লিটন দাশ ও সৌম্য সরকার রয়েছে। তাদের থেকে আপনার প্রত্যাশা কী?

মিথুন: আমরা সবাই মিলে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম দল। একা কাউকে নিয়ে খুব বেশি আশাবাদী না। আমরা গোটা দলকে নিয়ে আশাবাদী। আমরা জানি লিটন ও সৌম্যর সামর্থ্য কী। তাদের দিনে তারা একা হাতেই ম্যাচ জেতাতে পারে। সে সক্ষমতা তাদের আছে। প্রত্যেকটা ম্যাচ নতুন, আর এই পর্যায়ে খেলতে এসে আমার মনে হয় না কোনও খেলোয়াড় পরের ম্যাচে চিন্তা করে যে গত দুই তিন ম্যাচে কী করলাম। এমনটা উচিতও না। আপনি একটা ম্যাচ ভালো খেললে সবাই অতীতের সবকিছু ভুলে যায়। পেছনের কথা চিন্তা না করে নতুন টুর্নামেন্ট, নতুন একটা সুযোগ- এমনটা ভাবা উচিত। 

আমাদের ব্যাটিংয়ের গভীরতা তো অনেক। আমি প্রথমে যেটা বললাম, কোনও একজনের ওপর আশা করছি না। যার যার দিনে সে ম্যাচ জেতাবে। কোনোদিন আমি জেতাতে পারি, কোনোদিন মোস্তাফিজও ম্যাচ জেতাতে পারে। এমনকি এক বলে ছয় মেরে ম্যাচ জেতাতে পারে, সে সক্ষমতা তার আছে। আমার কাছে সব খেলোয়াড় সমান গুরুত্বপূর্ণ। 

দলে আপনার সবচেয়ে স্বস্তির জায়গা কোনটা?

মিথুন: একটা দলের অধিনায়কত্ব করতে আপনার সামনে বিভিন্ন রাস্তা খোলা থাকতে হয়। হয়তো এক-দুইজন বোলার কোনোদিন ভালো করতে পারলো না, তখন সেই ঘাটতি পূরণ করতে না পারি তাহলে আমার জন্য কঠিন হয়ে যায়। এক্ষেত্রে আমার হাতে বিকল্প ব্যবস্থা আছে।

বোলিংয়ে মোস্তাফিজুর রহমান রয়েছেন। নিশ্চয়ই তিনি বোলিংয়ে নেতৃত্ব দেবেন?

মিথুন: আমরা সবাই মোস্তাফিজের সক্ষমতা সম্পর্কে জানি। জানা আছে, সে কী করতে পারে। তাকে নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। শরিফুল খুবই প্রতিভাবান একজন খেলোয়াড়। ভালো গতি আর নিয়ন্ত্রণ আছে। আর মেহেদি নামের যে ছেলেটা এসেছে, সে একেবারেই নতুন। নেটে যতটুকু দেখেছি ওর বোলিংয়ে নিয়ন্ত্রণ অনেক ভালো। তাছাড়া সৌম্য, জিয়া ভাই যারা আছে। স্পিন যদি কাজ না করে তখন তারা দুই-তিন ওভার বল করে দেওয়ার সামর্থ্য রাখে।

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়