RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৯ ১৪২৭ ||  ০৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

স্থানীয়দের জন্য আরও টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট চান নান্নু

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৫৩, ১ ডিসেম্বর ২০২০  
স্থানীয়দের জন্য আরও টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট চান নান্নু

বিদেশি ক্রিকেটার ছাড়াই হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ- স্পন্সরড বাই ওয়ালটন।’ জাতীয় দলের একঝাঁক ক্রিকেটারা তো সুযোগ পেয়েছেনই, স্থানীয় ক্রিকেটাররাও তাদের মেধা-প্রতিভা দেখাতে পারছেন। দেশের ক্রিকেটের স্বার্থে শুধু স্থানীয়দের নিয়ে এমন টুর্নামেন্ট আরও আয়োজনের প্রয়োজনীয়তা মনে করছেন মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

পাঁচ দলের ৮০ ক্রিকেটারের ব্যাট-বলের লড়াই চলছে মিরপুর শের-ই-বাংলায়। করোনায় স্থবির হয়ে থাকা ক্রীড়াঙ্গনে প্রাণের সঞ্চার করেছে এ টুর্নামেন্ট। ক্রিকেটাররা প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফেরায় ফিরেছে উন্মাদনা। বিদেশি না থাকলেও প্রতি ম্যাচে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই এই প্রতিযোগিতাকে করে তুলেছে উত্তেজনাময়। তাই স্থানীয়দের নিয়ে এরকম প্রতিযোগিতা নিয়মিত করার দাবি করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক।

অবশ্য বেশ কয়েক বছর ধরেই স্থানীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) বাইরে আলাদা একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট নিয়মিত আয়োজনের কথা চলছিল। ২০১৯ সালে ওয়ালটনের পৃষ্ঠপোষকতায় প্রথমবার প্রিমিয়ার লিগের ১২ দল নিয়ে টি-টোয়েন্টি হয়েছিল। পরবর্তীতে এ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় আসর আলোর মুখ দেখেনি। এর আগে ঢাকায় বিগ বস টুর্নামেন্ট হয়েছিল পাঁচ দল নিয়ে। চট্টগ্রামে পোর্ট সিটি লিগ হয়েছিল ছয় দল নিয়ে। জাতীয় লিগের দলগুলোকে নিয়ে এনসিএল-টি-টোয়েন্টি নামেও আরেকটি টুর্নামেন্ট হয়েছিল ২০১০-এ। ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে আয়োজিত হয়েছিল বিজয় দিবস টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট।

কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেট সূচিতে নির্দিষ্ট করে কোনও টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট নেই। কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে উন্নতির জন্য স্থানীয়দের পর্যাপ্ত সুযোগ দেওয়ার পক্ষে সংশ্লিষ্টরা। এজন্য ক্রিকেট সূচিতে শুধু স্থানীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট অন্তর্ভুক্তির দাবি করেছেন নান্নু। 

বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমাদের জাতীয় লিগের সঙ্গে আমরা এরকম একটি টুর্নামেন্ট যুক্ত করে দিতে পারি কি না তা নিয়ে ভাবা উচিত। এটা করলে অবশ্যই স্থানীয় খেলোয়াড়দের জন্য একটা সুযোগ। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে কিন্তু কিছু ভালো পারফর্মার দরকার এবং কিছু ভালো খেলোয়াড়ও। সেই হিসেবে আমি মনে করি যে, স্থানীয় খেলোয়াড়রা যত বেশি সুযোগ পাবে তারা তত ভালো করতে পারবে। সেক্ষেত্রে জাতীয় দলের জন্যও যথেষ্ট উপকারী হবে।’ 

ক্রিকেট সূচিতে প্রতি বছরই বিপিএলের জন্য স্লট থাকে। বিপিএলে প্রতিটি দলের একাদশে নির্দিষ্ট সংখ্যক বিদেশি খেলোয়াড় সুযোগ পান। স্থানীয় ক্রিকেটারদের অনেকেই সেখানে সেভাবে সুযোগ পান না। পেশাদার অনেক ক্রিকেটারকেই দর্শক হয়ে থাকতে হয়। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও (আইপিএল) তাই। কিন্তু আইপিএল ছাড়াও ভারতে বিসিসিআই স্বীকৃত টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আছে ছয়টি- আন্তঃপ্রদেশ টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট সৈয়দ মুশতাক আলী ট্রফি, কর্ণাটক প্রিমিয়ার লিগ, তামিলনাড়ু টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট, টি-টোয়েন্টি মুম্বাই লিগ, তেলেঙ্গানা টি-টোয়েন্টি প্রিমিয়ার লিগ ও সৌরাষ্ট্র প্রিমিয়ার লিগ।

গত অক্টোবরে ক্রিকেটাররা যে ১৩ দফা দাবিতে ধর্মঘটে গিয়েছিলেন সেখানেও একটি দাবি ছিল, ‘বিপিএলের আগে আরেকটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হওয়া জরুরি। এতে বিপিএলে আরও ভালো করতে পারবে স্থানীয় ক্রিকেটাররা।’ এবার নান্নুও তুললেন একই দাবি।

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়