RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ১৭ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৩ ১৪২৭ ||  ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

নটরাজন-চাহালের জাদুতে কুপোকাত অস্ট্রেলিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৪১, ৪ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৯:৩৯, ৪ ডিসেম্বর ২০২০
নটরাজন-চাহালের জাদুতে কুপোকাত অস্ট্রেলিয়া

যুজবেন্দ্র চাহাল অভিজ্ঞ হলেও টি নটরাজনের টি-টোয়েন্টিতে দেশের হয়ে খেলতে নেমেছেন প্রথম। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে অজিদের ভুগিয়ে নিজের অভিষেক ম্যাচকে রাঙিয়ে রাখলেন বৈচিত্র্যময় এই পেসার। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে এ দুজনের জাদুতে জিতে যায় ভারত। ১১ রানে জিতে সিরিজে এগিয়ে গেলো বিরাট কোহলিরা।

ক্যানবেরায় ভারতের দেওয়া ১৬২ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার। পাওয়ার প্লে-তেই দলটি তোলে ৫০ রান। তবে ম্যাচের বয়স বাড়ার সঙ্গে-সঙ্গে খেই হারাতে থাকে স্বাগতিকরা। দুই ওপেনার ফিঞ্চ (৩৪) ও শর্ট (৩৪) করেন সর্বোচ্চ রান। এ ছাড়া ৩০ রান আসে হেনরিকসের ব্যাট থেকে।

শেষ ওভারে জেতার জন্য দরকার ছিলো ২৭ রানের। মোহাম্মদ শামির করা এই ওভারে অজিরা নিতে পেরেছে ১৫ রান। ফলাফল ১১ রানের হার। চাহাল চার ওভারে ২৫ রান দিয়ে নেন তিন উইকেট। অন্যদিকে নটরাজন ৩০ রান দিয়ে নেন সমান উইকেট। এবারের আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে নজর কাড়েন এই পেসার। পরিস্থিতি অনুযায়ী ইয়র্কার, স্লোয়ার, অফ কাটার কিংবা বাউন্স সবকিছুতেই সিদ্ধহস্ত তামিল নাডুর এই পেসার।

অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়ে নাকানি-চুবানি খাচ্ছিল ভারত। টানা দুই ওয়ানডে বাজেভাবে হেরে সিরিজ খোঁয়াতে হয়েছে। তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে পান্ডিয়া-জাদেজার ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে শেষ পর্যন্ত জয়ের দেখা পায়। আজও খেলতে নেমে ধুঁকছিল ভারত। শেষ পর্যন্ত জাদেজার ক্যামিওতে রক্ষা পায়। তার ব্যাটে ভর করেই অজিদের সম্মানজনক স্কোর ছুড়ে দিতে পেরেছে সফরকারীরা।

টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে তৃতীয় ওভারেই ধাওয়ানের উইকেট হারায় ভারত। তবে অপর ওপেনার লোকেশ রাহুল খেলেন ৫১ রানের দারুণ এক ইনিংস। ধাওয়ানের পর দ্রুত ফিরে যান কোহলিও। তার ব্যাট থেকে আসে ৯ রান। ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের আভাস দিয়ে সঞ্জু স্যামসন ফেরেন মাত্র ২৩ রান করে। ১০০ রান না হতেই ভারত হারিয়ে ফেলে পাঁচ উইকেট।

এরপরেই ক্রিজে আসেন জাদেজা। থাকেন শেষ বল পর্যন্ত। এর মধ্যেই মাত্র ২৩ বলে করেন ৪৪ রান। ইনিংসটি সাজানো ছিল ৫ চারে ও ১ ছয়ে। এ ছাড়া হার্দিক পান্ডিয়া আজ হাত  খুলে খেলতে পারেননি। ১৫ বলে মাত্র ১৬ রান করেন। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬১ রান করেন কোহলি-রাহুলরা। অজিদের হয়ে সর্বোচ্চ তিন উইকেট নেন হেনরিকস।

ঢাকা/রিয়াদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়