Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৫ আগস্ট ২০২১ ||  শ্রাবণ ২১ ১৪২৮ ||  ২৪ জিলহজ ১৪৪২

মাশরাফির ঠিকানা খুলনা, পারিশ্রমিক ‘এ’ গ্রেডে

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪২, ৬ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৯:৩৫, ৬ ডিসেম্বর ২০২০
মাশরাফির ঠিকানা খুলনা, পারিশ্রমিক ‘এ’ গ্রেডে

‘বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ স্পন্সরড বাই ওয়ালটন’ এ জেমকন খুলনার হয়ে খেলবেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। চার দলের লটারিতে মাশরাফিকে পেয়েছে দলটি। 

রোববার বিকেলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) অফিসে মাশরাফিকে নিতে লটারি হয়। খুলনা বাদে তাকে পাওয়ার প্রত্যাশায় ছিল বেক্সিমকো ঢাকা, মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী ও ফরচুন বরিশাল। 

মাশরাফির দলভুক্তের প্রক্রিয়া লটারি পরিচালনা করেন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান ও বিসিবির পরিচালক জালাল ইউনুস। বক্স থেকে জেমকন খুলনার নাম তিনি তোলেন। লটারি প্রক্রিয়া শেষে জালাল বলেন, ‘লটারিতে সব দলের সমান সুযোগ ছিল। সবাই নিজেদের নামের টোকেন রেখেছে। সব দলের প্রতিনিধির সামনে লটারি করা হয়েছে। যেখানে খুলনা পেয়েছে মাশরাফিকে।'

মাশরাফিকে নিয়ে তার ভাষ্য, ‘মাশরাফি ফেরায় আমরা খুশি। আমরা তাকে মাঠে দেখতে চাই। সে খুবই পরিশ্রমী খেলোয়াড়। যে দলেই খেলুক, আমার বিশ্বাস সে ভালো করবে। তার জন্য সবসময় শুভ কামনা। মাশরাফি আমাদের অন্যতম আইকন খেলোয়াড়। যে দলেই খেলবে, সে অনেক বড় একটা অনুপ্রেরণা। মাশরাফি নিজেও সবাইকে অনুপ্রাণিত করে, অধিনায়কত্ব না করলেও সামনে থেকে নিজের কাজটা সে করতে পারবে।'

মাশরাফিকে দলে পেয়ে খুলনার অপারেশন ম্যানেজার ইমরান খান বলেন, ‘আমরা মাশরাফিকে পেয়ে খুবই খুশি। মাশরাফির মতো একটা নাম আমাদের দলের সঙ্গে থাকুক, এটা আমরা চাচ্ছিলাম। সৌভাগ্যবশত আমরা তাকে পেয়েছি। আমি নিশ্চিত যে, আমিসহ আমাদের দলের খেলোয়াড়, ম্যানেজমেন্ট সবাই অনেক খুশি হবে।'

মাশরাফিকে ভিড়িয়ে খুলনার দল আরও শক্তিশালী হলো। আগে থেকেই এই দলে আছেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানও রয়েছেন। 

জাতীয় দলের বর্তমান স্কোয়াডের ইমরুল কায়েস, হাসান মাহমুদ, আল-আমিন ও শফিউল ইসলামকেও দলে ভিড়িয়েছে তারা। আছে ঘরোয়া ক্রিকেটের পরীক্ষিত পারফর্মার এনামুল হক বিজয়, জহুরুল ইসলাম অমিও। সেখানে মাশরাফি যোগ করলেন বাড়তি শক্তি। 

মাঠে নামার পূর্বে শর্ত ছিল, মাশরাফিকে পাস করতে হবে ফিটনেস টেস্ট। রোববার সেই বাধাও পেরিয়ে যান এই পেসার। সকালে বিপ টেস্ট দিয়েছেন জাতীয় দলের সবচেয়ে সফলতম অধিনায়ক। বিপ টেস্টে তার ফল এসেছে ১০.৭। 

জানা গেছে, ফিটনেস পরীক্ষায় বেশ সাবলীল ছিলেন মাশরাফি। রানিংয়ে তেমন জড়তাও ছিল না। এছাড়া তার কোভিড পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করা হয় রোববার। নেগেটিভ আসলে সোমবারই জৈব সুরক্ষা বলয়ে ঢুকবেন মাশরাফি। তাহলে খুলনার পরবর্তী ম্যাচ থেকেই তাকে পাওয়া যাবে। 

‘এ’ গ্রেডের ক্যাটাগরিতে মাশরাফি পারিশ্রমিক পাবেন। যেখানে পারিশ্রমিক ধরা হয়েছে ১৫ লাখ টাকা। যতগুলো ম্যাচ খেলবেন পারিশ্রমিক ভাগ করে ম্যাচ ফি হিসেবে দেওয়া হবে।

টুর্নামেন্টের বিধি অনুযায়ী একের অধিক দল যদি কোনও খেলোয়াড়কে চায় তাহলে লটারিতে হবে সমাধান। সেজন্য মাশরাফিকে লটারিতে তুলেছিল আয়োজকরা। চার দলের এই লটারিতে ভাগ্য খুলেছে খুলনার। 

দীর্ঘ বিরতির পর গত পহেলা ডিসেম্বর মাশরাফি ফেরেন অনুশীলনে। প্রায় ৯ মাস পর সেদিন মিরপুরে ফিরে ফিটনেস ট্রেনিংয়ের পাশাপাশি ৪ ওভার বোলিং করেন। মাঠে ফেরার তাড়নায় মাশরাফি হয়েছেন ঝরঝরে। শরীরের ওজন কমিয়েছেন ১০ কেজি। 

মাশরাফি শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন গত ৬ মার্চ। অধিনায়কত্বের শেষ ম্যাচে তাকে জয় উপহার দিয়েছিল বাংলাদেশ। ১৬ মার্চ খেলেছিলেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ। ৯ মাস পর মাশরাফি ফিরছেন প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে। 

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়