Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২৬ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ১১ ১৪২৮ ||  ১৩ জিলহজ ১৪৪২

টেস্ট সিরিজ হারা উইন্ডিজের বিপক্ষে ইতিবাচক মুমিনুল

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:১৩, ২২ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ২০:১৪, ২২ ডিসেম্বর ২০২০
টেস্ট সিরিজ হারা উইন্ডিজের বিপক্ষে ইতিবাচক মুমিনুল

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে স্থবির হওয়া জনজীবনে খানিকটা আনন্দের রসদ দিতে সবার আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের বন্ধ দুয়ার খুলেছিল। গত জুলাইয়ে ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিল তারা। এই পরিস্থিতির মধ্যে সবচেয়ে বেশি সফরে যাওয়া দল তারাই। আগামী জানুয়ারিতে তাদের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবে বাংলাদেশও। ইংল্যান্ড ও নিউ জিল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট সিরিজ হেরে বাংলাদেশে আসছে তারা, তাই তাদের বিপক্ষে স্বাগতিকদের নিয়ে আশাবাদী অধিনায়ক মুমিনুল হক।

ইংল্যান্ডে প্রথম ম্যাচ জিতে শুরু করলেও পরের দুটি ম্যাচ হেরে টেস্ট সিরিজে হেরেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশে আসার আগে সবশেষ নিউ জিল্যান্ড সফরে দুটি টেস্টেই তারা হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। মাঠের হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পাশাপাশি জৈব সুরক্ষা বলয়ে দীর্ঘ দিন থাকার ধকল তো আছেই। এসব বিবেচনায় মুমিনুল বাংলাদেশকে এগিয়ে রাখছেন, ‘ওরা এর আগে তিন-চারটা সিরিজ (আসলে দুটি সিরিজ) জৈব সুরক্ষায় খেলেছে। মানসিকভাবে একটু পিছিয়ে থাকতে পারে। অবশ্য একটা টেস্ট সিরিজ হেরে এখানে এলে এটি আমাদের জন্য একটা ইতিবাচক দিক।’

তাই বলে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে খাটো করে দেখার মতো বোকামি করতে নারাজ মুমিনুল, ‘ওরা টানা সিরিজ হেরে আসছে এর মানে এই না যে ওদের আপনি এখানে হারিয়ে দেবেন। ওদের সঙ্গে খেলতে হলে আপনার পুরো চেষ্টা দিয়ে। ইতিবাচক দিক একটাই, ওরা একটু হতাশ থাকবে। তবে এর মানে এই না যে ওদের আপনি ছেড়ে দেবেন।’

গত মার্চে পাকিস্তানের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট সিরিজ খেলেছিল বাংলাদেশ। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবে পরের টেস্ট। মাঝখানে প্রায় এক বছরের বিরতি। এত লম্বা সময় পর টেস্ট খেলা কতটা চ্যালেঞ্জ হবে জানতে চাইলে বাংলাদেশি অধিনায়ক বলেছেন, ‘শুধু আমরা না। বর্তমানে যেই অবস্থা, এই অবস্থায় সবারই একটু চ্যালেঞ্জ হয়ে যাবে। এটা নিয়ে খুব বেশি চিন্তা না করে ইতিবাচকভাবে চিন্তা করা ভালো। করোনার পর শুধু আমরা না, বিশ্বের অনেক দলই এই সমস্যায় ভুগতে হচ্ছে। যারা অনেক বেশি খেলছে, তারা আবার জৈব সুরক্ষা বলয়ের ভেতরে থাকবে। এটাও একটা চ্যালেঞ্জের বিষয়। ব্যাপারটা আপনি কীভাবে নেবেন সেটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।’

জৈব সুরক্ষায় থাকার ব্যাপারটা নিয়ে মুমিনুলের অভিমত, ‘এটা পুরোটাই মানসিক ব্যাপার। আন্তর্জাতিক ম্যাচ তো এখনও খেলিনি জৈব সুরক্ষায় থেকে। খেলার পর অভিজ্ঞতা বলতে পারবো। এখন যতদিন ভ্যাকসিন না আসছে এভাবেই খেলতে হবে। এটাকে মাথায় না নিয়ে ইতিবাচকভাবে চিন্তা করতে হবে।’

সপ্তাহখানেক আগে ডানহাতের বুড়ো আঙুলে পাওয়া চোটের অস্ত্রোপচার করিয়ে এসেছেন সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে। তবে টেস্ট শুরুর আগে সুস্থ হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী মুমিনুল, ‘পুনর্বাসন চলছে। প্রস্তুতি ম্যাচ আছে টেস্ট সিরিজের আগে। আশা করছি টেস্ট সিরিজের প্রস্তুতি ম্যাচে খেলতে পারবো।’

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়