RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৪ ১৪২৭ ||  ১৪ রজব ১৪৪২

মিরাজের ঘূর্ণিতে দেড়শর আগেই শেষ উইন্ডিজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:০৪, ২২ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৫:২৮, ২২ জানুয়ারি ২০২১
মিরাজের ঘূর্ণিতে দেড়শর আগেই শেষ উইন্ডিজ

বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যে প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও স্পিনারদের দাপট। আগের ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান দুটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নিলেও তাকে ছাপিয়ে গেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ডানহাতি অফস্পিনার ক্যারিয়ার সেরা পারফরম্যান্স করেছেন। দুই স্পিনারের সঙ্গে মোস্তাফিজুর রহমানের পেস ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দ্বিতীয় ম্যাচেও বেশি দূর যেতে দেয়নি। ৪৩.৪ ওভারে ১৪৮ রানে সফরকারীদের গুটিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ।

মিরাজ ৯.৪ ওভারে ২৫ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট। তার আগের সেরা ওয়ানডে পারফরম্যান্স ছিল এই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে সিলেটে ১০ ওভারে ২৯ রান খরচায় ৪ উইকেট নেন এই স্পিন অলরাউন্ডার। আজ শুক্রবার মিরপুর শের-ই-বাংলায় উইন্ডিজকে দেড়শ রানের আগে শেষ করে দিতে দুটি করে উইকেট নেন সাকিব ও মোস্তাফিজ। একটি উইকেট নেন হাসান মাহমুদ।

সিরিজ জয়ের লক্ষ্যে টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নেমে বাংলাদেশ নিয়ন্ত্রিত বোলিং করে। সুনীল অ্যামব্রিস ও কিজর্ন ওটলের উদ্বোধনী জুটি মোস্তাফিজ ভাঙেন। নিজের তৃতীয় ওভারে মেডেন উইকেট নেন তিনি অ্যামব্রিসকে (৬) ফিরিয়ে। দলীয় পঞ্চম ওভারে উইন্ডিজ ওপেনারকে মিরাজের ক্যাচ বানান বাঁহাতি পেসার। পাওয়ার প্লের প্রথম ১০ ওভারে মাত্র ২২ রান করে সফরকারীরা, বাংলাদেশ পায় একটি উইকেট।

প্রথম দুই ওভারে ৪ রান দেওয়া মিরাজ তৃতীয় ওভারে জোড়া আঘাত হানেন। দলীয় ১৪তম ও নিজের তৃতীয় ওভারের প্রথম বলে ওটলেকে কভারে তামিম ইকবালের ক্যাচ বানান এই অফস্পিনার। অভিষেক ম্যাচে ২ চার ও একটি ছয়ে ৪৪ বলে ২৪ রান করে আউট হন উইন্ডিজ ওপেনার। আরেক প্রান্তের ব্যাটসম্যান জশুয়া ডা সিলভাকে (৫) একই ওভারের চতুর্থ বলে বোল্ড করেন মিরাজ।

মিরাজের জোড়া আঘাতের পরের ওভারে সাকিব বল হাতে নিয়েই পেয়েছেন উইকেট। নিজের প্রথম ওভারের শেষ বলে আন্দ্রে ম্যাকক্যার্থিকে ৩ রানে বোল্ড করেন তিনি। ৩ রানের ব্যবধানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের তিন উইকেট তুলে নেয় স্বাগতিকরা।

বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ইনিংস সেরা ৪০ রান করা কাইল মায়ার্স দ্বিতীয় ম্যাচে ডাক মারেন। মিরাজের বলে জেসন মোহাম্মদ শট খেলে সিঙ্গেল নিতে যান, কিন্তু নাজমুল হোসেন শান্তর দুর্দান্ত থ্রোতে স্ট্রাইকিং প্রান্তে মুশফিকুর রহিম বল হাতে ভেঙে দেন স্টাম্প। ততক্ষণে পৌঁছাতে পারেননি মায়ার্স। ৯ বল খেলে শূন্য রানে তাকে ফেরায় বাংলাদেশ। ৪১ রানে সফরকারীরা হারায় পঞ্চম উইকেট।

দ্বিতীয় স্পেলে বল হাতে নিয়ে আবারও উইকেট পান সাকিব। এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদকে এলবিডাব্লিউ করলেন বাংলাদেশের বাঁহাতি স্পিনার। তার পঞ্চম ওভারে দ্বিতীয় উইকেট তুলে নেন প্রথম ওয়ানডের ম্যাচসেরা খেলোয়াড়।

২৬ বলে ১১ রান করে বিদায় নেন জেসন। সাকিবের আবেদনে আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত জানালে রিভিউ নেন তিনি, কিন্তু উইকেট বাঁচাতে পারেননি। পরের ওভারে হাসান মাহমুদ বোল্ড করেন এনক্রুমাহ বোনারকে (২০)। রোভম্যান পাওয়েলের সঙ্গে প্রতিরোধ গড়ার ইঙ্গিত দিয়ে ৮৮ রানে অষ্টম ব্যাটসম্যান হিসেবে রেমন রেইফার বিদায় নেন। ২ রানে তাকে এলবিডাব্লিউ করেন, আম্পায়ার আউট না দিলে রিভিউ নিয়ে সফল হন মিরাজ।

বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে একশ করা নিয়ে সংশয়ে ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু রোভম্যান ও আলজারি জোসেফ প্রতিরোধ গড়ে স্কোর একশ পার করেন। স্কোরবোর্ডে ১২০ রান তোলার পর তাদের বিচ্ছিন্ন করেন মোস্তাফিজ। ৩২ রানের এই জুটি ভাঙে আলজারি গালিতে দাঁড়ানো লিটন দাশকে ক্যাচ দিলে। ২১ বলে তিন চারে ১৭ রান করেন তিনি।

রোভম্যান শেষ জুটিতে প্রতিরোধ গড়েছিলেন। ফিফটির কাছাকাছি ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যান, সঙ্গে দলীয় স্কোর দেড়শ ছাড়ানোর পথে ছিল। কিন্তু মিরাজ তাকে নিজের চতুর্থ শিকার বানান। এগিয়ে এসে সুইপ করতে গেলে মুশফিক স্টাম্পিং করেন রোভম্যানকে, ভাঙে ২৮ রানের জুটি। ৬৬ বলে ২ চার ও ১ ছয়ে সাজানো ছিল তার ইনিংস সেরা ৪১ রান। ১২ রানে অপরাজিত ছিলেন আকিল হোসেন।

বাংলাদেশ দল: তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাশ, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সৌম্য সরকার, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, রুবেল হাসান ও হাসান মাহমুদ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল: জেসন মোহাম্মদ, সুনীল অ্যামব্রিস, এনক্রুমা বোনার, জশুয়া ডা সিলভা, জাহমার হ্যামিল্টন, কিজর্ন ওটলে, আলজারি জোসেফ, আন্দ্রে ম্যাকক্যার্থি, রোভম্যান পাওয়েল, রেমন রেইফার।

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়