RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৪ ১৪২৭ ||  ১৪ রজব ১৪৪২

বাঁক বদলের স্মৃতি, নতুন চ্যালেঞ্জের অপেক্ষা

চট্টগ্রাম থেকে ইয়াসিন হাসান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:২৯, ২৪ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২২:০৩, ২৪ জানুয়ারি ২০২১
বাঁক বদলের স্মৃতি, নতুন চ্যালেঞ্জের অপেক্ষা

বাংলাদেশ ক্রিকেটের বাঁক বদলের সিরিজ ছিল সেটি। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরেন সাকিব আল হাসান। টানা হারের ব্যর্থতা মাথায় নিয়ে মুশফিকুর রহিম হারালেন অধিনায়কত্ব। নেতৃত্বে আসলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।

২০১৫ বিশ্বকাপের ঠিক আগের সিরিজ, প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ে। বাংলাদেশ জয়ে শুরু করলো, শেষ করলো ৫-০ ব্যবধানে। মাশরাফির নেতৃত্বে বদলে যাওয়া বাংলাদেশের পথ চলা শুরু। সাকিব ছিলেন সেই সিরিজে ‘স্পেশাল’। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দ্বিতীয়বার নিষিদ্ধ হয়ে ওই সিরিজ দিয়ে মাঠে ফেরেন। ফিরেই সাকিবের ব্যাট থেকে আসে ১০১ রান। চার বছর আর ৩৭ ইনিংস অপেক্ষার পর বাঁহাতি অলরাউন্ডার চট্টগ্রামে পান তিন অঙ্কের স্বাদ।

২০১৪ থেকে ২০২১। সাত বছর পর আবার একই মঞ্চে বাংলাদেশ। সাকিবও তাই। মাশরাফির দায়িত্ব ছাড়ার পর তামিমের কাঁধে জাতীয় দলের দায়িত্ব। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক বছর নির্বাসন কাটিয়ে সাকিবেরও এ সিরিজে যাত্রা শুরু।

মাশরাফির মতো তামিমের পথচলা শুরু হয়েছে দারুণভাবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দুই ওয়ানডেতে স্রেফ উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। ঢাকায় দুই ওয়ানডে জিতে ২-০ ব্যবধানে জিতেছে। বন্দরনগরীতে ব্যবধান ৩-০ করার অপেক্ষায় তামিমের দল। দুই দল আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ম্যাচ খেলতে নেমেছে। দুই ম্যাচ জিতে বাংলাদেশের ঝুলিতে ২০ পয়েন্ট। শেষ ম্যাচ জিতলে আরও ১০ পয়েন্ট পাবে।

২০২৩ বিশ্বকাপে সরাসরি খেলতে হলে বাংলাদেশকে এ প্রতিযোগিতার সেরা আটে থাকতে হবে। সেই যাত্রায় তামিমের শুরুটাও দারুণ হলো। সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জের অপেক্ষায় বাংলাদেশ। দেশের মাটিতে দুই বছরে শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ড ও আফগানিস্তানকে আতিথেয়তা দেবে। অ্যাওয়ে সিরিজে খেলবে নিউ জিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, জিম্বাবুয়ে ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে। দেশের মাটিতে বাংলাদেশ ফেভারিট হলেও দেশের বাইরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স গড়পড়তা এবং চ্যালেঞ্জও বেশি তা মনে করিয়ে দিয়েছেন তামিম।

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে এর আগে সাকিব দুইবারই ফিরেছেন তেজস্বী হয়ে। পারফরম্যান্সে ছিল ধার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তার বোলিং পারফরফরম্যান্স ইর্ষণীয়। ব্যাটিংয়ে মুগ্ধতা ছড়ানোর অপেক্ষা। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের পয়মন্ত ভেন্যু হিসেবে স্বীকৃতি জহুর আহমেদে সেঞ্চুরি হতে পারে সবচেয়ে বড় প্রেরণা। 

বাংলাদেশ প্রতিপক্ষকে হোয়াইটওয়াশ করেছে ১৩ বার। এর মধ্যে ২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকেও একবার ধবলধোলাই করেছিল। তাদেরকে একই স্বাদ দেওয়ার অপেক্ষায় গোটা বাংলাদেশ। বিশ্বকাপে সরাসরি অংশগ্রহণের জন্য যে লড়াই শুরু করেছে বাংলাদেশ, অনুপ্রেরণা হতে পারে সেই বাঁক বদলের স্মৃতি।

চট্টগ্রাম/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়