Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২৬ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ১১ ১৪২৮ ||  ১৩ জিলহজ ১৪৪২

স্বস্তিতে মুমিনুল, চনমনে বাংলাদেশ, উদ্দীপ্ত উইন্ডিজ

চট্টগ্রাম থেকে ইয়াসিন হাসান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৪১, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২১  
স্বস্তিতে মুমিনুল, চনমনে বাংলাদেশ, উদ্দীপ্ত উইন্ডিজ

মুমিনুল হকের জন্য দিনটি নিশ্চিত আনন্দের। এক ড্রেসিংরুমে তার সঙ্গী বাংলাদেশের তিন শীর্ষ টেস্ট ব্যাটসম্যান। হ্যাঁ, তাদেরকে আগেও পেয়েছেন। তবে টেস্ট আর্মব্র্যান্ড পাওয়ার পর এক ছাতার নিতে তাদের পাননি। অথচ এ সময়ে তার ওপর দিয়ে বয়ে গেছে কত ঝড়, ঝাপ্টা!

ভারত সিরিজের কথাই ধরুন। ইন্দোরে যে ম্যাচে বাংলাদেশে নেতৃত্বের শুরু হলো, সেই ম্যাচে মুমিনুলের পাশে নেই সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। ইডেনে বাংলাদেশ খেললো গোলাপি বলে প্রথম টেস্ট। সেখানেও নেই দুই ধ্রুবতারা। দুই ম্যাচেই বাংলাদেশ হারলো তিন দিনে, ইনিংস ব্যবধানে। আবার তার দল যখন পাকিস্তানে গেলো, ওই সময়ে সাকিবও নেই, মুশফিকুর রহিমও নেই। ম্যাচের ফলে একটুও পরিবর্তন আসেনি। 

তিন টেস্টে সাকিবের না থাকাটা নিষেধাজ্ঞার কারণে। তামিম ও মুশফিক অনুপস্থিত ব্যক্তিগত কারণে। টেস্টে রান সংগ্রহে ত্রিরত্নের থেকে পিছিয়ে নেই মুমিনুল। সেরা পাঁচেই আছেন। চারে থাকা হাবিবুল বাশার অবসরে গিয়েছেন। সেক্ষেত্রে মুমিনুলই এখন তাদের পরে।

অধিনায়কত্ব পাওয়ার ১৫ মাস পর নিজের পূর্ণ শক্তির দল পেয়ে স্বত্বিতে মুমিনুল। তাইতো ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আগামীকাল বুধবার থেকে শুরু হওয়া টেস্টে নিজেদেরকেই ফেভারিট ভাবছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সকাল সাড়ে ৯টায় শুরু হবে ম্যাচটি। তিন সিনিয়রকে পাশে পাওয়ায় মাঠে আগ্রাসন দেখানোর ঘোষণাও দিয়ে রাখলেন তিনি।

দৃঢ়চেতা মুমিনুল বললেন, ‘আমি সবসময় আগ্রাসী অধিনায়কত্ব করতে পছন্দ করি। রক্ষণাত্মক অধিনায়কত্ব আমার ওতটা (পছন্দ নয়)… ম্যাচের পরিস্থিতির কারণে অনেক সময় অন্যরকম হয়। তবে আমি আক্রমণাত্মক থাকতেই পছন্দ করি।’

সিনিয়ররা তাদের দায়িত্ব ঠিক পালন করবে বিশ্বাস মুমিনুলের, তাই নতুন করে তাদের কাছে কিছু চাওয়ার নেই, ‘সিনিয়র যারা আছেন, তারা অনেক দিন থেকে ক্রিকেট খেলছেন। সবাই পেশাদার। আমার চাওয়ার কিছু নেই। তারাই জানেন কীভাবে আমাকে সহায়তা করতে হবে। আমার বাড়তি কিছু চাওয়ার দরকার নেই। আমি খুবই খুশি তারা আমাকে যেভাবে সমর্থন করছেন, প্রতিটি পরিস্থিতি সামলাতে যেভাবে পাশে থাকছেন।’

নিজেদের ফেভারিট ভাবলেও পা মাটিতে মুমিনুলের, ‘ঘরের মাঠে সবসময় স্বাগতিকরা ফেভারিট থাকে। তার মানে এই নয় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দুর্বল হিসেবে দেখছি। আমরা আমাদের দিকেই মনোযোগ রাখছি বেশি। আমাদের সেরাটা খেলার চেষ্টা করবো।’

দীর্ঘদিন পর মাঠে নামলেও বাংলাদেশ দল রয়েছে ফুরফুরে মেজাজে। মঙ্গলবার ম্যাচ ভেন্যুতে হালকা অনুশীলন করেছেন ক্রিকেটাররা। তামিমের সঙ্গী হয়ে ওপেনিংয়ে সাদমান ইসলাম নামছেন তা নিশ্চিতভাবেই বলা যায়। আজ যে ব্যাটই হাতে নেননি সাইফ হাসান। সাকিব পুরোপুরি ফিট হয়েই মাঠে ফিরছেন। তবে ভাবনার জায়গা ভিন্ন। বাংলাদেশের প্রথম পাঁচজনই বাঁহাতি। তামিম, সাদমান, নাজমুল হোসেন শান্তর পর আসবেন মুমিনুল ও সাকিব। এরপর মুশফিক, লিটন।

সাত বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যানের সঙ্গে বাংলাদেশ তিন স্পিনার নাকি দুই স্পিনার নিয়ে খেলবে সেটাই দেখার। যদি তিন স্পিনার নিয়ে খেলে তাহলে মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাঈম হাসানের সঙ্গী তাইজুল ইসলাম। যদি দুই স্পিনার নেয় তাহলে মিরাজের সঙ্গী হবেন নাঈম। উইকেটে পেস বোলারদের জন্য কিছু নেই তা গতকালই জানিয়ে রেখেছিলেন রাসেল ডমিঙ্গো। সেক্ষেত্রে এক পেসারও দেখা যেতে পারে, আবার দুইজনও খেলতে পারেন। তবে দীর্ঘ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে বাংলাদেশ দুই  পেসার নিতে পারে। সেক্ষেত্রে মোস্তাফিজুর রহমান ও আবু জায়েদ রাহীর সম্ভাবনাই বেশি। পেসারদের আজ বিশ্রামেই রেখেছিল দল। তাসকিন আহমেদ বাদে কেউই বোলিং করেননি।

২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তাদের মাটিতে হারানোর পর ২০১৮ সালে বাংলাদেশ ঘরের মাঠে দুই টেস্ট জিতেছিল। শেষবার স্পিনে ফাঁদ পেতে সফরকারীদের হারিয়েছিল। চার স্পিনার দুই টেস্টে নিয়েছিলেন ৪০ উইকেট। তাইতো অতিথি দলের অধিনায়ক ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট এবার আক্ষেপ করেই বললেন, ‘খুবই শুষ্ক উইকেট। আমরা শেষবার যে উইকেটে খেলেছি, তার থেকে খুব বেশি আলাদা নয়। বাউন্স পাওয়া যাবে না। সচরাচর যে ধরণের উইকেট এখানে আমরা পাই, সেরকম উইকেটই।’

তবে ওয়ানডে সিরিজে (৩-০) যেভাবে সহজেই হেরেছিল তারা, টেস্টে সেটা হবে না বলে দিলেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক, ‘আমরা লড়াই করতে প্রস্তুত। প্রস্তুতি ভালো হয়েছে। আমাদের আশার জায়গা সেটাই। অবশ্যই ভালো পারফর্ম করে ভালো প্রতিযোগিতা করতে চাই।’

মুমিনুলের আনন্দের দিনে সাকিবকে দেখা গেছে প্রাণবন্ত। কুঁচকির চোট কাটিয়ে পুরোপুরি ফিট তিনি। নির্বাসন থেকে ক্রিকেটে ফিরে ওয়ানডে সিরিজ রাঙিয়েছেন তিনি। হয়েছেন সিরিজসেরা। এবার টেস্ট সিরিজ আপন করে নেওয়ার পালা। যদি সাকিব নিজের পারফরম্যান্সে হাসেন, হাসবে বাংলাদেশও। সেক্ষেত্রে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ১২০ পয়েন্ট নিশ্চিত পেতেই যাচ্ছে বাংলাদেশ।

চট্টগ্রাম/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়