Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ০৮ মে ২০২১ ||  বৈশাখ ২৫ ১৪২৮ ||  ২৫ রমজান ১৪৪২

বাস্তবতা মেনে ভবিষ্যতে চোখ মিরাজের

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:২৪, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২০:৪৫, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১

জাতীয় দলে খেলার আগে বয়সভিত্তিক ক্রিকেটে ব্যাটিং অলরাউন্ডার হিসেবে খেলতেন মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু এখন তিনি বোলিং অলরাউন্ডার। ক্রিকেটে তার পথচলা শুরু মিডল অর্ডারে ব্যাট হাতে, তিনি আজ ব্যটিং করেন লেজের দিকে। অবশ্য জাতীয় দলের বর্তমান লাইন আপে উপরে ব্যাটিংয়ের সুযোগ দেখেন না এই অফস্পিনার। তবে নিজেকে ভবিষ্যতের জন্য তৈরি করতে মুখিয়ে তিনি।

মিরাজ ব্যাটিং অলরাউন্ডার ছিলেন যুব দলে। জাতীয় দলে তার ভূমিকা পাল্টে গিয়ে বোলার অলরাউন্ডার। যেখানে তার ব্যাটসম্যান সত্ত্বা অনেকটাই আড়ালে চলে গেছে। কিন্তু তারপরও সময় বিশেষে মিরাজ দলের হাল ধরেছেন অনেকবার, মিটিয়েছেন দলের দাবি। রেখেছেন অবদান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে আট নম্বরে নেমে সেঞ্চুরি করেছেন মিরাজ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি পেয়ে ব্যাটিং নিয়ে নতুন করে ভাবতে শুরু করেছেন তিনি। তবে জাতীয় দলের বর্তমান বাস্তবনা মেনে মিরাজ নিজেকে তৈরি করতে চান ভবিষ্যতের জন্য।

নতুনের আগমনে পুরোনোদের জায়গা ছেড়ে দেওয়া পৃথিবীর সবথেকে রুঢ় সত্য। একালের সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহরা জায়গা করে নিয়েছিলেন হাবিবুল বাশার, জাভেদ ওমর, আফতাব আহমেদ ও খালেদ মাসুদ পাইলটদের। ঠিক তেমনি একদিন সাকিব, মুশফিকদের জায়গায় বসবেন মিরাজ, মোসাদ্দেক হোসেন, সৌম্য সরকার, লিটন দাশরা। তাদের হাতেই থাকবে লাল-সবুজের পতাকা।

মিরাজের ভাবনা এটা নিয়েই, ‘আমি বয়সভিত্তিক দলে যত দিনই খেলেছি, মিডল অর্ডারে ব্যাটিং করেছি। কিন্তু এখন জাতীয় দলে কোনও সুযোগ নেই উপরে ব্যাটিং করার। মিডল অর্ডার পর্যন্ত আমাদের পরিপূর্ণ ক্রিকেটার রয়েছে। এজন্য আমার সুযোগ দেখি না।’

এজন্য নিজেকে আরও পরিণত ও গড়ে তোলার তাগিদ অনুভব করছেন মিরাজ, ‘৪-৫ বছর পর আমার সুযোগ আসতেও পারে। সেই সময়ে আমি মানসিকভাবে শক্তিশালী হতে পারবো উপরে ব্যাটিং করার জন্য। এজন্য আমাকে অনেক পরিশ্রম করতে হবে। নিজের ব্যাটিং প্রতিনিয়ত ঝালাই করতে হবে এবং আমাকে চ্যালেঞ্জ নিয়ে উন্নতি করতে হবে।’ 

মিরাজের দ্যুতিময় ব্যাটিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বড় সংগ্রহ পেয়েছিল বাংলাদেশ। তবে ম্যাচে জয়ের স্বাদ না পাওয়ায় ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি মন খুলে উপভোগ করতে পারছেন না ২৩ বছর বয়সী এই ডানহাতি স্পিনার।

আক্ষেপ নিয়ে মিরাজ বললেন, ‘দল হেরে যাওয়ায় সবচেয়ে খারাপ লাগছে। এতটুকু আশা করিনি যে আমরা হেরে যাবো। জিতলে হয়তো আমার পারফরম্যান্সটা আলোচিত হতো কিংবা খুব ভালো লাগতো নিজের কাছে। দিন শেষে কিন্তু আমরা দলের জন্য খেলি। দল জিতলে আমাদের ভালো লাগে। হারের কারণে আমি যে রান করেছি বা উইকেট পেয়েছি, তা আমার মনে রোমাঞ্চ ছড়ায়নি। যদি ম্যাচটা জিততে পারতাম, তাহলে ভালো লাগার অনুভূতি আরও বেশি থাকতো।’

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়