RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৩ ১৪২৭ ||  ১৩ রজব ১৪৪২

নিউ জিল্যান্ডের কন্ডিশন শতভাগ কাজে লাগাতে প্রস্তুত সাইফরা

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৫৩, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৯:৫৮, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১
নিউ জিল্যান্ডের কন্ডিশন শতভাগ কাজে লাগাতে প্রস্তুত সাইফরা

টিম সাউদি ও ট্রেন্ট বোল্টদের তোপ সামলাতে হবে তামিম-মুশফিকদের। একই সঙ্গে কেন উইলিয়ামসন ও মার্টিন গাপ্টিলদের পরীক্ষা নিতে তৈরি বাংলাদেশের পেসাররা। নিউ জিল্যান্ডের পেস কন্ডিশনকে শতভাগ কাজে লাগিয়ে সুবিধা আদায়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বাংলাদেশের পেস অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। মঙ্গলবার নিউ জিল্যান্ড যাওয়ার আগে আশাবাদী কণ্ঠে তিনি বললেন, নিজেদের প্রক্রিয়া অনুযায়ী খেলতে পারলে ভালো ফল পাবে বাংলাদেশ।

নিউ জিল্যান্ডের কন্ডিশন পেসবান্ধব। পেসাররা ম্যাচে মূল পার্থক্য গড়ে দেন। সেটা মাথায় রেখে সাত পেসার নিয়ে তিন ওয়ানডে ও তিন টি-টোয়েন্টি খেলতে মঙ্গলবার উড়াল দিয়েছে বাংলাদেশ। অভিজ্ঞ রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান ও আল-আমিনের সঙ্গে সাইফ ছাড়াও আছেন তাসকিন আহমেদ, হাসান মাহমুদ ও শরিফুল ইসলাম। পেস বোলিংয়ের শক্তি বাড়িয়েছে সৌম্য সরকারের অন্তর্ভুক্তিও। সাইফের বিশ্বাস, ‘যদি আমরা ক্রিকেটীয় প্রক্রিয়া ঠিক রাখতে পারি তাহলে সফলতা পাবো। আমাদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এটাই।’

দলে সাত পেসার থাকায় একাদশে সুযোগ পেতে তাদের ভেতরেও থাকবে প্রতিযোগিতা। সেসব নিয়ে আপাতত ভাবছেন না সাইফ। সুযোগ পেলে নিজেকে উজার করে দেওয়ার ভাবনা তার, ‘আমি দলে সুযোগ পাবো কি পাবো না তা নিয়ে ভাবছি না। কন্ডিশন বিবেচনায় যেটা ভালো মনে হবে, সেটাই হবে। তবে সুযোগ পাওয়া নিয়ে আশাবাদী। সুযোগ পেলে নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করবো।’

করোনার কড়া নিয়মে বাংলাদেশকে নিউ জিল্যান্ডে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এ সময়ে পুরোদমে অনুশীলনের সুযোগ পাওয়া যাবে সামান্য। তিন দিনের আইসোলেশনের পর ক্রিকেটাররা নিজেদের মধ্যে অনুশীলন শুরু করতে পারবেন। এরপর ধাপে ধাপে সফরকারী দল ‘খোলস’ থেকে বেরিয়ে আসবে।

কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষে কুইন্সটাউনে পাঁচ দিনের ক্যাম্প করবে বাংলাদেশ। সেটিই হবে বাংলাদেশের মূল প্রস্তুতি। এরপর সিরিজ খেলতে নামবে বাংলাদেশ। মাঠে নামার আগে যথেস্ট প্রস্তুতির সুযোগ আছে বলেই মনে করেন সাইফ, ‘আমরা অনুশীলনের জন্য দুই সপ্তাহ সময় পাবো। কোচিং স্টাফদের সহায়তা নিয়ে কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়ার চেষ্টা করবো। এখানেও অনুশীলনে ছিলাম। আমাদের প্রস্তুতি বেশ ভালো আছে।’

সাইফ আরও যোগ করেন, ‘ভালো করতে চাইলে যে কোনও কন্ডিশনে, যে কোনও উইকেটে ভালো করা সম্ভব। লাইন ও লেন্থে বল করতে না পারলে স্বাভাবিকভাবে খারাপ হবে।’

ঢাকা/ইয়াসিন/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়