Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৩ এপ্রিল ২০২১ ||  চৈত্র ৩০ ১৪২৭ ||  ২৯ শা'বান ১৪৪২

স্পিনারদের দাপটে প্রথম দিন ভারতের

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৩৭, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১  
স্পিনারদের দাপটে প্রথম দিন ভারতের

৬ উইকেট নিয়ে দিনটা নিজের করে নিলেন অক্ষর

গোলাপি বলের টেস্টের প্রথম দিন আধিপত্য থাকলো ভারতের হাতে। তৃতীয় টেস্টে স্পিনারদের কাছে নাকানিচুবানি খাওয়া ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাট হাতেও ছড়ি ঘুরাচ্ছে স্বাগতিকরা। রোহিত শর্মার ফিফটিতে ৩ উইকেট হারিয়ে ৯৯ রানে দিনের খেলা শেষ করেছে ভারত। প্রথম ইনিংসে এখনও তারা ১৩ রানে পিছিয়ে।

আহমেদাবাদের মোতেরায় নবনির্মিত নরেন্দ্র মোদি ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট। কিন্তু এই সিদ্ধান্ত উল্টো ভারতের পক্ষে গেছে। গোধূলির আগেই ১১২ রানে শেষ হয় সফরকারীদের প্রথম ইনিংস।

স্বাগতিক দুই স্পিনার অক্ষর প্যাটেল ও রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ঘূর্ণিতে ধসে পড়া ইংল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৩ রান করেন ররি বার্নসের বদলে ওপেনিংয়ে নামা জ্যাক ক্রলি। আর মাত্র তিন ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছান। রুটের ব্যাটে আসে দ্বিতীয় সেরা ১৭ রান। এছাড়া বেন ফোকস ১২ ও জোফরা আর্চার ১১ রান করেন।

ঘরের ছেলে অক্ষর ৩৮ রান দিয়ে নেন ৬ উইকেট। প্রথম দুই টেস্টেই পাঁচ উইকেটের রেকর্ড গড়ে পাশে বসেন ভারতের সাবেক দুই বোলার মোহাম্মদ নিসার ও নরেন্দ্র হিরওয়ানির পাশে। তিনটি উইকেট নেন অশ্বিন। শততম টেস্টে নেমে খালি হাতে ফেরেননি পেসার ইশান্ত শর্মা, তার শিকার একটি উইকেট।

জবাব দিতে নেমে ১০ উইকেট হাতে রেখেই ডিনারে যায় ভারত। সব ঠিকঠাক চলছিল। কিন্তু আর্চার ও জ্যাক লিচ কাঁপান স্বাগতিকদের ব্যাটিং লাইন আপ। ৩৩ রানে উদ্বোধনী জুটি ভাঙা দলটির দলীয় স্কোর ৩৪ রানে নেই ২ উইকেট। ৬ বলের মধ্যে শুভমান গিল (১১) ও চেতেশ্বর পুজারা (০) ফিরে যান।

৬৩ বলে ফিফটি করে এই ধাক্কা সামলে নেন রোহিত, তার সঙ্গে হাল ধরেন বিরাট কোহলি। দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে ৬৪ রানের এই জুটি ভেঙে যায়। কোহলি ২৭ রান করে লিচের কাছে বোল্ড হন। অধিনায়কের বিদায়ের পর আর চার বল মাঠে গড়িয়েছে। ৫৭ রানে অপরাজিত রোহিতের সঙ্গে অন্য প্রান্তে ১ রানে খেলছিলেন আজিঙ্কা রাহানে।  

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়

শিরোনাম

Bulletলকডাউন: ১৪-২১ এপ্রিল। যা যা চলবে: ১. বিমান, সমুদ্র, নৌ ও স্থল বন্দর এবং তৎসংশ্লিষ্ট অফিস। ২. পণ্য পরিবহন, উৎপাদন ব্যবস্থা ও জরুরি সেবাদানের ক্ষেত্রে এ আদেশ প্রযোজ্য হবে না ৩. শিল্প-কারখানা ৪. আইনশৃঙ্খলা এবং জরুরি পরিসেবা, যেমন, কৃষি উপকরণ (সার, বীজ, কীটনাশক, কৃষি যন্ত্রপাতি ইত্যাদি), খাদ্যশস্য ও খাদ্যদ্রব্য পরিবহন, ত্রাণ বিতরণ, স্বাস্থ্যসেবা, কোভিড-১৯ টিকা প্রদান, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস/জ্বালানি, ফায়ার সার্ভিস, বন্দরগুলোর (স্থল, নদী ও সমুদ্রবন্দর) কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট (সরকারি-বেসরকারি), গণমাধ্যম (প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া), বেসরকারি নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ডাক সেবাসহ অন্যান্য জরুরি ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ, তাদের কর্মচারী ও যানবাহন এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বর্হিভূত থাকবে। ৫. ওষুধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ৬. খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁয় দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা এবং রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কেবল খাদ্য বিক্রয়/সরবরাহ করা যাবে। ৭. কাঁচাবাজার এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে || যা যা বন্ধ থাকবে: ১. সব সরকারি, আধাসরকারি, সায়ত্ত্বশাসিত ও বেসরকারি অফিস, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ২. সব ধরনের পরিবহন (সড়ক, নৌ, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট) বন্ধ থাকবে ৩. শপিংমলসহ অন্যান্য দোকান বন্ধ থাকবে