Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১ ||  বৈশাখ ১ ১৪২৮ ||  ০১ রমজান ১৪৪২

টানা তিন ছক্কার পর জেদ চেপেছিল পোলার্ডের

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:২৫, ৪ মার্চ ২০২১  
টানা তিন ছক্কার পর জেদ চেপেছিল পোলার্ডের

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক ওভারে ছয় ছক্কার ঘটনা বিরল। ১৪ বছর পর যার দেখা মিললো বৃহস্পতিবার। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষ প্রথম টি-টোয়েন্টিতে আকিলা ধনঞ্জয়ার ওভারে টানা ছয়টি ছয় মেরে ৩৬ রান করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক কিয়েরন পোলার্ড। অথচ দিনটা হতে পারতো আগের ওভারেই হ্যাটট্রিক করা স্পিনার ধনঞ্জয়ার। ম্যাচ শেষে পোলার্ড বললেন, ‘আজ আমার দিন ছিল।’

ইনিংসের চতুর্থ ওভারে ধনঞ্জয়া একে একে এভিন লুইস, ক্রিস গেইল ও নিকোলাস পুরানকে ফিরিয়ে শ্রীলঙ্কাকে উৎসবের মুহূর্ত এনে দেন। কিন্তু এই স্পিনার তার পরের ওভারেই হাত খুলে রান দেন পোলার্ডকে। ৩৩ বছর বয়সী ডানহাতি ব্যাটসম্যান বসেন ২০০৭ সালে একই কীর্তি গড়া সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকান হার্শেল গিবস ও সাবেক ভারতীয় যুবরাজ সিংয়ের পাশে।

ধনঞ্জয়াকে টানা তিন ছক্কা মারার পরই মনের মধ্যে জেদ চাপে পোলার্ডের, ‘তৃতীয়টির পর (ওভারে ছয় ছক্কা মারার কথা ভাবেন)। কয়েকটি ছয় মারার পর এটা নিয়ে ভাবছিলাম। পিচে খেলাটা কেমন হচ্ছে বুঝতে পারলাম তখনই। ইতিবাচক থাকাটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ওই পিচে শট খেলা, বাউন্ডারির ওপর দিয়ে বল মারা- আমি খুশি যে দলের ওই প্রয়োজনের মুহূর্তে তা করতে পেরেছি।’

ষষ্ঠ ওভারের শেষ বলের আগে মনের মধ্যে কী হচ্ছিল তা জানান ১১ বলে ৩৮ রান করা এই ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক, ‘ষষ্ঠ বলের আগে আমার মনে বেশ কয়েকটি ব্যাপার এসেছিল। নিজেকে জিজ্ঞাসা করছিলাম ছয় মারা উচিত নাকি ওভারে ৩০ রান নিলেই হবে। সে (ধনঞ্জয়া) যখন বল করতে এলো এবং আমার প্যাডের দিকে বল করলো, নিজেকে বললাম অপেক্ষা করো পোলি, সুযোগটা নাও। এভাবেই আমি সবসময় ক্রিকেট খেলি, বিশেষ করে স্পিনারদের বিপক্ষে। আজ ছিল আমার দিন, দুর্ভাগ্যজনক তার জন্য। সব শেষ কথা হলো আমাদের দলের জন্য এটা ছিল দারুণ জয়।’

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়