Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৩ এপ্রিল ২০২১ ||  চৈত্র ৩০ ১৪২৭ ||  ২৯ শা'বান ১৪৪২

দ. আফ্রিকার নেতৃত্ব এলগার-বাভুমার কাঁধে 

ক্রীড়া ডেস্ক  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:২০, ৪ মার্চ ২০২১   আপডেট: ২১:২১, ৪ মার্চ ২০২১
দ. আফ্রিকার নেতৃত্ব এলগার-বাভুমার কাঁধে 

ডিন এলগারকে টেস্ট ও টেম্বা বাভুমাকে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড (সিএসএ)। অস্থায়ী অধিনায়ক কুইন্টন ডি ককের পরিবর্তে তারা এখন নেতৃত্ব দেবেন দেশকে।

বাভুমা সীমিত ওভারের পাশাপাশি টেস্টে সহ-অধিনায়কের দায়িত্বও পালন করবেন। এলগার পরবর্তী টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে দেশকে নেতৃত্ব দেবেন। অন্যদিকে বাভুমা ২০২১-২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০২৩ সালে অনুষ্ঠেয় ওয়ানডে বিশ্বকাপে নেতৃত্ব দেবেন দলকে।

সিএসএর ডিরেক্টর অব ক্রিকেট গ্রায়েম স্মিথ এলগার-বাভুমার প্রশংসা করে এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ তারা এমন ব্যক্তিত্ব আমরা বিশ্বাস করি তাদের নেতৃত্বে দক্ষিণ আফ্রিকা আগের মতো জয়ের ধারায় ফিরবে।‘

এলগার ৬৭ টেস্টে ৩৯.৮১ গড়ে ৪ হাজার ২৬০ রান করেন। সেঞ্চুরি রয়েছে ১৩টি।   অন্যদিকে বাভুমা মাত্র ৬টি ওয়ানডেতে ৩৩৫ ও ৮টি টি-টোয়েন্টিতে ২৪৯ রান করেন। ২ ফরম্যাটেই তার সেঞ্চুরি রয়েছে ১টি করে।

ফাফ ডু প্লেসি নেতৃত্ব ছাড়ার পর অস্থায়ী ডি কককে দায়িত্ব দেওয়া হয়। তার অধীনে সর্বশেষ পাকিস্তানের মাটিতে তাদের বিপক্ষে ২-০ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ হারে। এর কিছুদিন না পর হতেই দীর্ঘমেয়াদী অধিনায়কের পথে হাঁটলো প্রোটিয়া ক্রিকেট বোর্ড। 

ঢাকা/রিয়াদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়

শিরোনাম

Bulletলকডাউন: ১৪-২১ এপ্রিল। যা যা চলবে: ১. বিমান, সমুদ্র, নৌ ও স্থল বন্দর এবং তৎসংশ্লিষ্ট অফিস। ২. পণ্য পরিবহন, উৎপাদন ব্যবস্থা ও জরুরি সেবাদানের ক্ষেত্রে এ আদেশ প্রযোজ্য হবে না ৩. শিল্প-কারখানা ৪. আইনশৃঙ্খলা এবং জরুরি পরিসেবা, যেমন, কৃষি উপকরণ (সার, বীজ, কীটনাশক, কৃষি যন্ত্রপাতি ইত্যাদি), খাদ্যশস্য ও খাদ্যদ্রব্য পরিবহন, ত্রাণ বিতরণ, স্বাস্থ্যসেবা, কোভিড-১৯ টিকা প্রদান, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস/জ্বালানি, ফায়ার সার্ভিস, বন্দরগুলোর (স্থল, নদী ও সমুদ্রবন্দর) কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট (সরকারি-বেসরকারি), গণমাধ্যম (প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া), বেসরকারি নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ডাক সেবাসহ অন্যান্য জরুরি ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ, তাদের কর্মচারী ও যানবাহন এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বর্হিভূত থাকবে। ৫. ওষুধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ৬. খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁয় দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা এবং রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কেবল খাদ্য বিক্রয়/সরবরাহ করা যাবে। ৭. কাঁচাবাজার এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে || যা যা বন্ধ থাকবে: ১. সব সরকারি, আধাসরকারি, সায়ত্ত্বশাসিত ও বেসরকারি অফিস, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ২. সব ধরনের পরিবহন (সড়ক, নৌ, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট) বন্ধ থাকবে ৩. শপিংমলসহ অন্যান্য দোকান বন্ধ থাকবে