Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ০৬ আগস্ট ২০২১ ||  শ্রাবণ ২২ ১৪২৮ ||  ২৪ জিলহজ ১৪৪২

দলকে অহেতুক চাপ দেওয়ার পক্ষপাতী নন মাশরাফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:০৫, ৫ মার্চ ২০২১   আপডেট: ০৮:১১, ৬ মার্চ ২০২১
দলকে অহেতুক চাপ দেওয়ার পক্ষপাতী নন মাশরাফি

সমান ৩টি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে নিউ জিল্যান্ডে অবস্থান করছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। যে কোনো ফরম্যাটে কিউইদের মাটিতে এখন পর্যন্ত কোনো ম্যাচে জয়ের কোনো রেকর্ড নেই। লাল সবুজের প্রতিনিধিরা এবার কি পারবে সেই আক্ষেপ ঘোচাতে?

অধিনায়ক হিসেবে প্রথম বিদেশ সফর করা তামিম ইকবালের কণ্ঠে ঝরেছে আত্মবিশ্বাস। দলের অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন জানিয়েছেন এবার তারা জয় নিয়ে ফিরতে চান। কিন্তু সাবেক সফল অধিনায়ক, যার নেতৃত্বে ৫০টি ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ; সেই মাশরাফি বিন মুর্তজা  দলকে অহেতুক চাপে ফেলার পক্ষপাতী নন।

শুক্রবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মাশরাফি বলেন ‘আমরা সবাই জানি নিউ জিল্যান্ডে খেলা খুবই কঠিন। দ্বিতীয় কথা হচ্ছে সাকিব নেই, তাই আরও কঠিন হবে। যাওয়ার আগে যেভাবে কথা বলেছে (তামিম) সেটা খুবই পজিটিভ। আমার বিশ্বাস ইনশাআল্লাহ ভালো করবে। সবাই আশা করছে বাংলাদেশ দল নিউ জিল্যান্ডে আছে ভালো করবে। কিন্তু আমার কাছে মনে হয় না দলকে অহেতুক বেশি চাপ দেওয়া উচিত।’ 

কিউইদের দেশে ১০ ম্যাচ খেলে ওভার প্রতি ৫.৬৬ রান দিয়ে মাশরাফি নিয়েছেন মাত্র ৬ উইকেট। অভিজ্ঞ মাশরাফি জানেন নিউ জিল্যান্ডের মাটিতে খেলা কতটা কঠিন।

‘আমরা সবাই জানি কঠিন পরিবেশ। আমরা যদি এখান থেকে ভালোভাবে সমর্থন দেই, ওই চাপটা থেকে যদি ওদের মুক্ত করে দেই তাহলে আমি নিশ্চিত তারা ভালো খেলতে পারবে। হার জিত অবশ্যই আছে, আমার বিশ্বাস ওরা ভালো করবে যদি আমরা চাপটা ওদের ওপর কমিয়ে দেই।’

উপমহাদেশের বাইরে ক্রিকেট মানেই পেস সহায়ক উইকেট; সবার মনেই একটা সাধারণ ধারণা থাকে। কিন্তু মাশরাফি মনে করেন এমন ভাবনা আরও ২০ বছর আগে শেষ হয়ে গেছে।

সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, ‘ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, সাউথ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া গেলে সবাই এক তরফা কথা বলে উইকেট পেস সহায়ক হবে । কিন্তু আসলে এইগুলা তো আরও ২০ বছর আগে শেষ হয়ে গেছে। এখন তো ফ্ল্যাট উইকেট।’ 

বাংলাদেশ এবার সাতজন পেসারকে নিয়ে সফরে গেছে। রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, আল-আমিন, হাসান মাহমুদ ও শরিফুল ইসলামের সঙ্গে আছেন অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন। অধিনায়ক মাশরাফি নিজেই পেস বোলিং বিভাগের অগ্রণী ভূমিকায় ছিলেন। এই মাশরাফি মনে করেন পেসারদের ক্ষমতা আছে ভালো করার, তবে তাদেরও চাপ দেওয়ার পক্ষে নন তিনি।

মাশরাফি বলেন, ‘বাংলাদেশে ২৫০ রান করা কঠিন হয়, ওখানে ৩০০-৩৫০ করে আবার টপকেও যায়। ওখানে পেসারদের জন্য আরও কঠিন। ওদের ভালো করার অ্যাবিলিটি ওদের আছে, আশা করছি যে ভালো করবে।  প্রতিটি খেলোয়াড়ের ওপর থেকে চাপ কমিয়ে দিতে হবে। তাহলে ওরা মন খুলে যদি খেলাটা খেলতে পারে, কোনো চাপ না থাকে, তাহলে অবশ্যই ভালো খেলবে।’

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়