Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৪ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ১০ ১৪২৮ ||  ১২ জিলক্বদ ১৪৪২

আইসোলেশনে তিক্ততা ভুলে বন্ধু হলেন কোহলি-রোহিত

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৪৬, ৩০ মার্চ ২০২১  
আইসোলেশনে তিক্ততা ভুলে বন্ধু হলেন কোহলি-রোহিত

আইসোলেশন আর কঠোর কোয়ারেন্টাইনে হাঁসফাঁস অবস্থার কথা বলেছেন অনেক ক্রিকেটারই। কিন্তু সবকিছুরই ভালো আছে। তারই উদাহরণ তৈরি হলো ভারত ও ইংল্যান্ড সিরিজের মাঝে। এক ছাদের নিচে পুরো ভারতীয় ক্রিকেট দল, সেখানেই তিক্ততা ভুলে বন্ধুত্ব হয়ে গেলো দুই সিনিয়র ক্রিকেটারের।

ভারতের এই দুই ক্রিকেটার বিরাট কোহলি আর রোহিত শর্মা। একজন সব ফরম্যাটের অধিনায়ক, আরেকজন সীমিত ওভারের ক্রিকেটে সহঅধিনায়ক। গত দুই বছর ধরে গণমাধ্যমে দুজনকে নিয়ে নানা বিবাদ-বিতর্কের খবর ছাপা হয়েছে। অবশেষে তাদের মধ্যে ফাটল ধরা বন্ধুত্বের সম্পর্ক ফের জোড়া লেগেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতের জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া।

তা এতদিন ধরে তিক্ততার মধ্যে দিয়ে যাওয়া সম্পর্কের উন্নতি কীভাবে সম্ভব হলো! জানা গেছে, ইংল্যান্ড সিরিজ খেলতে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চলা ভারতীয় দলের কোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেশনে থাকার সুফল এটি। মধ্যস্থতা করেছেন ভারতের টিম ম্যানেজমেন্ট, বিশেষ করে উল্লেখ করা যায় জাতীয় দলের কোচ রবি শাস্ত্রীর নাম। গত দুই বছর ধরে কোহলি-রোহিতের ব্যক্তিগত সংঘাতের বিষয়টি উড়িয়ে দিলেও তিনিই দুজনকে একসঙ্গে বসতে বলে মিটমাট করে ফেলতে বলেছেন।

ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজ চলাকালে প্রায় ‍দুই মাসের কোয়ারেন্টাইনে কোহলি ও রোহিত এক ছাড়ের নিচেই থেকেছেন। তাতে করে দুজন কথা বলার সময় পেয়েছেন। দুজনের মুখোমুখি বৈঠকের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন শাস্ত্রী। তার প্রচেষ্টা বৃথা যায়নি। সিরিজ চলাকালে কোহলি ও রোহিতের সম্পর্ক বেশ সাবলীল দেখা গেছে। ব্যাট হাতে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি ফিল্ডিংয়ের সময় বুদ্ধি-পরামর্শ করা থেকে শুরু করে দুজনকে সব কিছুতেই একসঙ্গে দেখা গেছে।

টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে ম্যাচ পরবর্তী পুরস্কার বিতরণীর সময়ও কথা বলতে দেখা গেছে সহাস্যে। অতীতের চেয়ে বেশি করে একসঙ্গে ছবিও তুলেছেন তারা। ওয়ানডে সিরিজের সময় ম্যাচ চলাকালে শলাপরামর্শ করেছেন তারা ঘনিষ্ঠ হয়ে। আগেও তাদের মধ্যে এমনটা দেখা গেছে, কিন্তু এবার একসঙ্গে বেশি দৃশ্যপটে এসেছেন তারা এবং বহিরাগতদের যেন বলছিলেন, ‘এবার থামো তোমরা, আমাদের সব তিক্ততা ভুলে গেছি।’

সূত্রটি বলছে, ‘দুটি বড় সিরিজ জয়ের পাশাপাশি টিম ইন্ডিয়ার ড্রেসিংরুমে আরেকটি দারুণ অর্জন হয়েছে। গত কয়েক সপ্তাহে তাদের (কোহলি ও রোহিত) ব্যক্তিগত সম্পর্কের সুন্দর বন্ধন হয়েছে। আগের চেয়েও তারা এখন ভালোভাবে বুঝতে পারছে যে, তাদের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কে সবচেয়ে বেশি দল উপকৃত হবে। গত চার মাসে এটাই সবচেয়ে বড় পাওয়া।’

দুজনের ফাটল ধরা বন্ধুত্ব জোড়া লাগলেও আইপিএলের শুরুতেই মুখোমুখি হচ্ছেন তারা। আগামী ৯ এপ্রিল প্রথম ম্যাচে রোহিতের মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু মাঠে নামছে। এই প্রতিদ্বন্দ্বিতা কেবল মাঠেই থাক, আর ফিরে পাওয়া বন্ধুত্বটা যেন অটুট থাকে সেটাই চাওয়া ভারতের ক্রিকেট ভক্তদের।   

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়