Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ১৬ মে ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৮ ||  ০৩ শাওয়াল ১৪৪২

মুগ্ধর নাম ছড়িয়ে পড়ুক দেশ-বিদেশে, আশা বাবার 

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:১৪, ৩ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ২১:৪০, ৩ এপ্রিল ২০২১

সন্তানের অর্জন সব বাবার জন্যই আনন্দের। তেমনই আনন্দিত ব্যবসায়ী জাহিদুল ইসলাম। বাংলাদেশ ইমার্জিং ক্রিকেট দলের উদীয়মান পেসার মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধর বাবা তিনি। তার চোখের সামনে জাতীয় ক্রিকেট লিগের খেলায় দ্রুতগতির বোলিংয়ে আগুন ঝরিয়েছেন মুগ্ধ। ছোট ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো পেয়েছেন ১২ উইকেট, হয়েছেন ম্যাচসেরা।

ছেলের এমন সাফল‌্যে খুশি জাহিদুল। তিনি বিশেষ সাক্ষাৎকারে রাইজিংবিডিকে জানিয়েছেন দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণের কথা। 

জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আলহামুদিল্লাহ, আমার খুব ভালো লাগছে। আমার দীর্ঘদিনের আশা ছিল, আমার ছেলে ম্যান অব দ্য ম্যাচ হবে। আজ স্বপ্ন পূরণ হয়েছে।‘ 

মুগ্ধর দারুণ বোলিংয়ে খুলনার বিপক্ষে দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলায় হেসে খেলে জিতে রংপুর। ৬ উইকেট করে ২ ইনিংসে নিয়েছেন ১২ উইকেট। ছেলের এমন পারফরম্যান্স চোখে দেখাও ভাগ্যের। বাবা জাহিদুলের প্রত্যাশা, ছেলে জাতীয় দলে খেলবে। দেশ-বিদেশে তার নাম ছড়িয়ে পড়বে। 

মুগ্ধর বাবা বলেন, ‘আমার সব সময় প্রত্যাশা, ছেলে দেশের হয়ে খেলুক, নাম করুক, জাতীয় দলে স্থান হোক। তার নাম ছড়িয়ে পড়ুক দেশে-বিদেশে।‘

এদিন মাঠে শুধু তার বাবা নন, ছিলেন মাসহ পরিবারের অন্য সদস্যরাও। তাদের সামনে খেলতে গিয়ে কোনো চাপ ছিল না? মুগ্ধ জানালেন, চাপ নয়, তিনি আরও উৎসাহ পেয়েছেন। 

তিনি বলেন, ‘বাবা-মা আসছে, এটা আমার জন্য চাপ না। তারা আসছে, আমার জন্য ভালো। আমি আরও উৎসাহী ছিলাম ভালো কিছু করতে। তারা খেলা দেখতেছে, আমাকে সমর্থন করছে।‘ 

মুগ্ধ জানালেন, প্রথমবার ১২ উইকেট পেয়ে তার অনেক ভালো লাগছে। সমর্থন দিয়ে পাশে থাকার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন সতীর্থদের প্রতি। জানিয়েছেন ফিটনেস ধরে রাখার মন্ত্র। 

মুগ্ধ বলেন, ‘পেসারদের আসল জিনিস হলো ফিটনেস ধরে রাখা। পেস বোলারের অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ফিটনেস। কিছুদিন আগে আমি এইচপি থেকে এসেছি। ওখানে ফিটনেস নিয়ে অনেক কাজ করেছি। খেলার মাঝে মাঝে জিম রানিং এগুলো করছি নিয়মিত।’

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়