Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১ ||  বৈশাখ ২৩ ১৪২৮ ||  ২২ রমজান ১৪৪২

আইসিসির পুরস্কার জিতলো মেসি-নেইমারের দেশ

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:০৯, ২০ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ২১:২০, ২০ এপ্রিল ২০২১
আইসিসির পুরস্কার জিতলো মেসি-নেইমারের দেশ

ফুটবল পাগল দেশ হিসেবেই বিশ্বে পরিচিত আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল। এই দুই দেশের নাম বললেই ভেসে ওঠে ডিয়েগো ম্যারাডোনা, লিওনেল মেসি, পেলে কিংবা রোনালদো-নেইমারদের দ্যুতির কথা। কিন্তু ক্রিকেটও তাদের টানতে শুরু করেছে। সম্প্রতি আইসিসির সঙ্গে জুটি বেঁধে উদীয়মান বাজারে ক্রিকেটকে বিকশিত করতে কাজ করছে তারা। অসামান্য অবদান রাখায় স্বীকৃতিও পেলো তারা বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ সংস্থার কাছ থেকে।

গত বছরের আইসিসি ডেভেলপমেন্ট অ্যাওয়ার্ডসের গ্লোবাল উইনার্স ঘোষণা করেছে শীর্ষ ক্রিকেট প্রতিষ্ঠান। চারটি ক্যাটাগরিতে যে পুরস্কার জিতেছে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল এবং তাদের সঙ্গে বিজয়ী উগান্ডা ও ভানুয়াতুও। গত বছর চারটি ব্যতিক্রমী কর্মসূচির মাধ্যমে দেশে ক্রিকেটে দারুণ অবদান রেখেছে তাদের বোর্ড। আইসিসির পূর্ণ সদস্যদের প্রধান নির্বাহী, বর্তমান ও সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার, মিডিয়া প্রতিনিধি ও ক্রিকেট পরিবারের মোট ১২ জনের একটি স্বতন্ত্র প্যানেল বিজয়ী নির্বাচিত করেছে।

ক্রিকেট আর্জেন্টিনা জিতেছে আইসিসি ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভ অব দ্য ইয়ার। দক্ষিণ আমেরিকার স্থানীয় দর্শকশ্রোতাদের আকৃষ্ট করতে স্প্যানিশ ভাষায় ১৭টি কোচিং, আম্পায়ারিং ও স্কোরিং কোর্স তৈরি করেছে তারা। করোনার কারণে এই কোর্সগুলো হয়েছে অনলাইনে। ২৫৭ জন নতুন কোচ নিযুক্ত করে নতুন খেলায় দেশবাসীর সংশ্লিষ্টতার সুযোগ করে দিযেছে তারা।

ক্রিকেট ব্রাজিল জিতেছে হান্ড্রেড পার্সেন্ট ক্রিকেট ফিমেল ক্রিকেট ইনিশিয়েটিভ অব দ্য ইয়ার। দক্ষিণ আমেরিকায় নারী ক্রিকেটের বিকাশে বড় পদক্ষেপ নিয়েছে তারা। নারী জাতীয় দলে ১৪ জনের সঙ্গে পেশাদার কেন্দ্রীয় চুক্তি করেছে। তাতে করে ২০১২ সালের পর প্রথমবার আইসিসির প্রতিযোগিতায় ফিরছে ব্রাজিল। এই বছরের শেষ দিকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য আমেরিকান বাছাইয়ে অংশ নেবে তারা। ২০২৩ সালের নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মিশন হবে এটা।

আর আইসিসি ডিজিটাল ফ্যান এনগেজমেন্ট অব দ্য ইয়ার নির্বাচিত হয়েছে ভানুয়াতু ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন। করোনা মহামারির মধ্যেও মেয়েদের টি-টোয়েন্টি গ্র্যান্ড ফাইনাল সরাসরি সম্প্রচারের ব্যবস্থা করেছে ভক্তদের জন্য। তিন লাখ জনগোষ্ঠীর এই দেশটির দেড় লাখেরও বেশি মানুষ গ্র্যান্ড ফাইনাল ও ভানুয়াতু টি-টেন ব্লাস্ট দেখেছে লাইভ স্ট্রিমিংয়ে।

আর উগান্ডা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন করোনা মহামারির মধ্যে দেশটির সহস্রাধিক খেলোয়াড়, স্বেচ্ছাসেবী ও তাদের পরিবারকে ত্রাণ সরবরাহ করেছে। এই জনকল্যাণমূলক কাজ করে তারা জিতেছে ক্রিকেট ফর গুড সোশ্যাল ইম্প্যাক্ট ইনিশিয়েটিভ অব দ্য ইয়ার অ্যাওয়ার্ড।

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়