ঢাকা     বুধবার   ০৬ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ২২ ১৪২৯ ||  ০৬ জিলহজ ১৪৪৩

মালদ্বীপে ওয়ার্নার-স্ল্যাটারের মারামারি

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:৩৮, ৯ মে ২০২১   আপডেট: ১০:৪৭, ৯ মে ২০২১
মালদ্বীপে ওয়ার্নার-স্ল্যাটারের মারামারি

প্রথমে তর্কাতর্কি। এরপর দেখে নেওয়ার হুমকি। শেষ পর্যন্ত মারামারি। মালদ্বীপে ‘দুই বন্ধু’ ডেভিড ওয়ার্নার ও সাবেক ক্রিকেটার মাইকেল স্ল্যাটার জড়িয়েছেন মারামারিতে। অস্ট্রেলিয়ার 'দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ' এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মালদ্বীপের তাজ কোরাল রিসোর্টে অস্ট্রেলিয়ান এই দুই ক্রিকেট তারকা মারামারি করেছেন।

করোনায় আইপিএল স্থগিত হওয়ার পর মালদ্বীপে অবস্থান করছেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার, ধারাভাষ্যকার, ম্যাচ অফিসিয়াল ও টুর্নামেন্ট সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। সব মিলিয়ে সেই বহর ৪০ জনের। সেখানে বাধ্যতামূলক ১৪ দিন থাকার পর কোভিড পরীক্ষায় নেগেটিভ ফল নিয়ে তাদের দেশে ফিরতে হবে। 

সময়টা এমনিতেই ভালো যাচ্ছে না ওয়ার্নারের। মাঠে পারফরম্যান্স ছিল না। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অধিনায়কত্বও হারিয়েছেন। এমন সময়ে আইপিএল বন্ধ হওয়ায় মানসিক ধাক্কাও খেয়েছেন। সেই রেশ কী মাঠের বাইরে প্রভাব পড়ল? 

দীর্ঘদিনের বন্ধু স্ল্যাটারের সঙ্গে কিছু বিষয় নিয়ে মতবিরোধ শুরু হয়। এরপর তর্কাতর্কি। শেষমেশ মারামারি। গণমাধ্যমে এমন খবর প্রকাশের পর দুইজনই এই খবরকে পরে মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। 

স্ল্যাটার ওই সংবাদপত্রের সিনিয়র একজন সাংবাদিককে বার্তা পাঠিয়ে জানান, ‘যে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে, তার কোনো সত্যতা নেই। আমি আর ওয়ার্নার খুব ভালো বন্ধু এবং আমাদের মধ্যে মারামারি হওয়ার সম্ভাবনা একদম শূন্যের কোঠায়।’ ওয়ার্নার বলেন, ‘এখানে কোনো নাটক হয়নি। আমি নিশ্চিত নই আপনারা এসব তথ্য কোথায় পেয়েছে। আপনার কাছে যথাযোগ্য প্রমাণ না থাকলে আপনি এসব লিখতে পারেন না। এখানে কিছুই হয়নি।’

ঢাকা/ইয়াসিন

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়