Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২১ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ৭ ১৪২৮ ||  ০৯ জিলক্বদ ১৪৪২

সাকিবের বিতর্কে জড়ানো ম্যাচে মোহামেডানের জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক: || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৪৩, ১১ জুন ২০২১   আপডেট: ১৭:৩৫, ১১ জুন ২০২১
সাকিবের বিতর্কে জড়ানো ম্যাচে মোহামেডানের জয়

ঐতিহ্যবাহী আবাহনী-মোহামেডান বলে কথা। সেই ম্যাচে চরম বিতর্কে জড়িয়ে পড়লেন পুরো আসরে রান খরায় থাকা মোহামেডান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। যদিও এই ম্যাচে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ইনিংস তার। নানা নাটক আর সাকিবের বিতর্কিত এই ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং।

শুক্রবার ঢাকা লিগে সপ্তম রাউন্ডের ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং করে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রান করে মোহামেডান। আবাহনীর ইনিংসের ৫ ওভার ৫ বল পরে বৃষ্টির বাধায় খেলা বন্ধ হয়ে যায়। ঘণ্টা খানেক বন্ধ থাকার পর পুনরায় খেলা শুরু হয়েছে ওভার কমিয়ে। আবাহনীকে ৯ ওভারে করতে হবে ৭৫ রান।  বৃষ্টির আগে আবাহনীর সংগ্রহ ছিল ৩ উইকেট হারিয়ে ৩১ রান। ১৯ বলে মুশফিকদের করতে হতো ৪৫ রান।

কিন্তু পারেননি তারা। তাসকিন আহমেদ-আবু জায়েদ রাহীর তোপে পারেনি আবাহনী। শেষ পর্যন্ত তারা ৯ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে তোলে ৪৪ রান। প্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডান ৩১ রানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে। শেষ ১৯ বলে মাত্র ১৩ রান করে আবাহনী।

মুশফিক ১৮ বলে ১৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন শুভাগত হোম। বৃষ্টির আগে শুভাগত আবাহনীকে ধসিয়ে দেন। পরে তাসকিন ২ উইকেট জয়ে রাখেন বড় অবদান।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রান করে সাদাকালোর দল। মোহামেডেনের শুরুটা ভালো হয়নি। প্রথম ৪ ওভারে আসে মাত্র ২২ রান। ঝড়ের আভাস দিয়ে ফেরেন পারভেজ ইমন। তার ব্যাট থেকে আসে ২৬ বলে ২৬ রান। এরপর দ্রুত ৩ উইকেট হারিয়ে যখন ধুঁকছিল তখব ক্রিজে ব্যাট হাতে রান খরায় থাকা সাকিব। এদিন জ্বলে উঠেছিল তার ব্যাট।

তবে বড় করতে পারেননি ইনিংস। সাইফউদ্দিনের বলে লং অফে সাকিবের সহজ ক্যাচ ফেলে দিয়েছিলেন মোসাদ্দেক। জীবন পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি; পরের বলেই ধরা পড়েন শর্ট থার্ডম্যা অঞ্চলে। তার ব্যাট থেকে সর্বোচ্চ ২৭ বলে ৩৭ রান আসে। চলতি আসরে এটি সর্বোচ্চ ইনিংস সাকিবের।

সাকিব-ইমনরা আউট হয়ে গেলেও অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন মাহমুদল হাসান। তার ব্যাট থেকে আসে ২২ বলে ৩০ রান। তার ইনিংস্টি সাজানো ছিল ১টি ছয় ও ২টি চারে। রান খরায় থাকা সাকিব তিনে নামেনি। পাঠিয়েছিলেন ইরফান শুক্কুরকে। কিন্তু তার ব্যাট কথা বলেনি (১৪)। ১ রান করে ফেরেন শুভাগত হোম ও শামসুর রহমান।  আবাহনীর হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন একেএস স্বাধীন।

ঢাকা/রিয়াদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়