Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২৯ নভেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৮ ||  ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

নেইমার-পাকুয়েতায় কোপার ফাইনালে ব্রাজিল

সাইফুল ইসলাম রিয়াদ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৫:০১, ৬ জুলাই ২০২১   আপডেট: ০৮:০১, ৬ জুলাই ২০২১
নেইমার-পাকুয়েতায় কোপার ফাইনালে ব্রাজিল

নেইমারের সহায়তায় পাকুয়তার অসাধারণ গোলে চলতি আসরের প্রথম দল হিসেবে কোপা আমেরিকার ফাইনাল নিশ্চিত করে ব্রাজিল। সেমিফাইনালে সেলেসাওরা ১-০ গোলে হারায় পেরুকে। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়ার মধ্যে জয়ী দলের বিপক্ষে ১০ জুলাই বিখ্যাত মারাকানায় ফাইনালে লড়বে ব্রাজিল। এদিন নেইমারদের সামনে সুযোগ থাকবে টানা দুবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার।

৩৫ মিনিটে পাকুয়েতার একমাত্র গোলেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ব্রাজিল। প্রথমার্ধে কতৃত্ব বজায় রেখে খেললেও দ্বিতীয়ার্ধে পেরু আক্রমণ করে বেশ কয়েকবার। তবে ফিনিশিংয়ের অভাবে গোলের দেখা পায়নি দলটি। সিলভা-মার্কুইনহসে গড়া ব্রাজিলের ডিফেন্স ছিল দুর্দান্ত। গোলবারের সামনে এডারসন ছিলেন দূর্গ হয়ে। তিনি বেশ কয়েকবার রক্ষা করেছেন ব্রাজিলকে।

ব্রাজিল শট নেয় ১২টি আর পেরু ৫টি। বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিলেন নেইমাররা। ম্যাচের ৫৫ শতাংশ বল ছিল তাদের পায়ে। নেইমারের হাতে ওঠে ম্যাচসেরার পুরষ্কার।

৬১ মিনিটে আবারো ব্রাজিলের ত্রাণকর্তা হয়ে এলেন গোলরক্ষক এডারসন। তবে এবার অসাধারণ ভূমিকা ছিল মার্কুইনহসের। গার্সিয়ার শট এডারসন পুরোপুরি আয়ত্বে নিতে পারেননি। ভলি দিয়ে ফেলে রুখে দেওয়ার পর বল আসে ডি বক্সের মাঝে; পেরুর কাউকে আক্রমণের সুযোগ না দিয়ে ক্লিয়ার করেন মার্কুইনহস।

৫৬ মিনিটে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন ইওশিমার ইউতুন। এটি চলতি ম্যাচের প্রথম হলুদ কার্ড।

বিরতির পর ৪৯ মিনিটে দ্রুতগতির কাউন্টার অ্যাটাকে এগিয়ে যেতে পারতো পেরু। ডি বক্সে থকা লাপাদুলা বল পেয়ে ডান পায়ে কোনাকুনি শট নিয়েছিলেন বাম দিকে। কিন্তু দূর্গ হয়ে দাঁড়ান ব্রাজিল গোলরক্ষক অ্যাডারসন। ঝাঁপিয়ে পড়ে ব্রাজিলকে রক্ষা করেন তিনি।

প্রথমার্ধ শেষে ১-০ গোলে এগিয়ে ব্রাজিল। বল দখলের লড়াই হতে শুরু করে আক্রমণ সব দিকে এগিয়ে ছিল ব্রাজিল। নেইমারদের আক্রমণে বিপর্যস্ত ছিল পেরুর ডিফেন্স। ৫৪ শতাংশ সময় বল ছিল সেলেসাওদের পায়ে। অন্যদিকে ব্রাজিলের ১১টি শটের বিপরীতে পেরুর শট ছিল মাত্র ১টি!

৩৫ মিনিটে অবশেষে গোলের দেখা পেলো ব্রাজিল। নেইমারের সহায়তায় পাকুয়েতা লক্ষ্যভেদ করেন পেরুর জালে। বাঁ দিক থেকে পেরুর দুজন ফুটবলারকে পরাস্ত করে ডি বক্সের মাঝে থাকা পাকুয়েতার দিকে বল বাড়ান নেইমার। গোলরক্ষককে কোনো সুযোগ না দিয়ে সেলেসাওদের এগিয়ে দেন পাকুয়েতা।

১৯ মিনিটে আবারো পেরুকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক গ্যালেস। ক্যাসিমিরো থেকে পাকুয়েতা-নেইমার হয়ে বল আসে রিচার্লিসনের কাছে। কিন্তু তার শট রুখে দেন গ্যালেস।

১৫ মিনিটে সুযোগ পেয়েও সোজাসুজি গোলরক্ষকের হাতে মারেন এভারটন। রিচার্লিসন থেকে ডান পাশে বল পেয়ে কাজে লাগাতে পারেননি তিনি।

৮ মিনিটেই এগিয়ে যেতো পারতো ব্রাজিল। পাকুয়েতার ক্রস ডি বক্সে থাকা রিচার্লিসনের পা হয়ে আসে নেইমারের কাছে। কিন্তু সেলেসাও তারকা গোলবারের ডানদিকে ভুল জায়গায় শট নেন।

ব্রাজিল দলে দুই পরিবর্তন

কোপা আমেরিকার ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে পেরুর বিপক্ষে দুই পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নেমেছে ব্রাজিল। চিলির বিপক্ষে  লাল কার্ড দেখে বাদ পড়েছেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। আর প্রথম একাদশে জায়গা হয়নি রবার্তো ফিরিমিনোর। তাদের পরিবর্তে জায়গা পেয়েছেন লুকাস পাকুয়েতা ও এভারটন।

ব্রাজিল একাদশ: এডারসন, দানিলো, থিয়াগো সিলভা, মারকুইনহস, রেনান লোদি, ফ্রেড, ক্যাসেমিরো, এভারটন,  লুকাস পাকুয়েতা, রিচার্লিসন ও নেইমার।

কী বলছে সমীকরণ

টানা দ্বিতীয় ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মঙ্গলবার (৬ জুলাই) বাংলাদেশ সময় ভোর ৫টায় রিও ডি জেনেইরোর অলিম্পিক স্টেডিয়ামে মুখোমুখি  ব্রাজিল ও পেরু। গত কোপা আমেরিকার ফাইনালিস্ট তারা, যে ম্যাচে ৩-১ গোলে জিতে শিরোপা পুনরুদ্ধার করেছিল ব্রাজিল। ওই আসরেই গ্রুপের শেষ ম্যাচে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল তারা পেরুভিয়ানদের।

চেনা প্রতিদ্বন্দ্বীর বিপক্ষে এবারের সেমিফাইনালেও ফেভারিট সেলেসাওরা। গ্রুপেই পেরুকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে তিতের দল। দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে দাপুটে অবস্থানে ব্রাজিল। দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে দাপুটে অবস্থানে ব্রাজিল।৪৯ ম্যাচে ৩৫টি জিতেছে তারা, আর ৯টি জয় পেরুর।

ঢাকা/রিয়াদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়