Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ২ ১৪২৮ ||  ০৮ সফর ১৪৪৩

শের-ই-বাংলা যেন ‘শ্মশান’!

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:০৮, ১ আগস্ট ২০২১   আপডেট: ১৬:১৫, ১ আগস্ট ২০২১
শের-ই-বাংলা যেন ‘শ্মশান’!

মিরপুরের শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে যাওয়ার পরই চক্ষু চড়কগাছ। দুই নম্বর গেইট দিয়ে ঢুকলে ভয়ও লাগতে পারে। আর একটু ভেতরে এসে স্টেডিয়ামের দিকে তাকালে মনে হবে যেন শ্মশান। অথচ একদিন বাদেই শুরু হবে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ।

হোম অব ক্রিকেটে বাংলাদেশের কোনো খেলা মানেই সরগরম অবস্থা। স্পন্সর-ব্রডকাস্টিংসহ খেলা সংশ্লিষ্ট নানা কাজে ব্যস্ততা দেখা যায় পুরো স্টেডিয়াম জুড়ে। কিন্তু রোববার (১ আগস্ট) অস্ট্রেলিয়ার অনুশীলনকে কেন্দ্র করে দেখা গেল ভিন্ন অবস্থা।

গেইট দিয়ে ঢুকলে মানুষ তো দূরের কথা, অস্ট্রেলিয়ার টিম বাস ছাড়া দেখা মিলেনি কোনো কিছুর। ভেতরে গ্যালারির শহীদ জুয়েল স্ট্যান্ডে আছেন গণমাধ্যমকর্মীরা। আরেকপাশে কোয়ারেন্টাইনে থাকা কিছু মাঠকর্মী আর বেশ কয়েকজন পুলিশ। আর মাঠে নেই কোনো কাকপক্ষী!

পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী অস্ট্রেলিয়ার অনুশীলন শুরুর কথা বিকেল ৪টায়। ৩টার পরেই অবশ্য চলে এসেছে অস্ট্রেলিয়া দল। তবে এর আগে দেশটির প্রটোকল টিম এসে মাঠের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে গেছেন; তারা সবুজ সংকেত দেওয়ার পরেই মাঠে আসে অজিরা। এর মধ্যেই পুরো স্টেডিয়াম ফাঁকা করে ফেলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এই সফরকে কেন্দ্র করে নানা শর্ত দিয়েছিল। তার মধ্যে এগুলোও ছিল। এছাড়া খেলা চলাকালে মাঠে ম্যাচ অফিসিয়ালরা ছাড়া কেউ প্রবেশ করতে পারবেন না। মাঠে থাকবেন না কোনো ক্যামেরা ক্রু। তারা মাঠে আসার আগে মাঠ ছাড়তে হবে মাঠকর্মীদের। বৃষ্টি আসলে অস্ট্রেলিয়া টিম ড্রেসিংরুমে প্রবেশ করার পর মাঠকর্মীদের ঢুকতে হবে।

এজন্যই অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শুরুর আগে শের-ই-বাংলা পরিণত হয় শ্মশানে! দুই দলের পাঁচ ম্যাচ সিরিজ শুরু হবে ৩ আগস্ট সন্ধ্যা ৬টায়। পরের চারটি ম্যাচও ৪, ৬, ৭ ও ৯ আগস্ট।

ঢাকা/রিয়াদ/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়