https://www.risingbd.com/privacy-policy">গোপনীয়তা নীতি |
  • যোগাযোগ
  • নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশের জন্য যে কোয়ারেন্টাইন ফ্যাসিলিটিস
    Risingbd Online Bangla News Portal

    ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৯ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৩ ১৪২৮ ||  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

    নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশের জন্য যে কোয়ারেন্টাইন ফ্যাসিলিটিস

    ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

    প্রকাশিত: ১৯:১৭, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৯:১৮, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১
    নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশের জন্য যে কোয়ারেন্টাইন ফ্যাসিলিটিস

    বাংলাদেশের বিপক্ষে দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি দিয়ে নিউ জিল্যান্ড হোম সামার শুরু করবে। একে একে নেদারল্যান্ডস ও দক্ষিণ আফ্রিকাও যাবে তাসমান সাগরপাড়ের দেশটিতে। এরপর মেয়েদের ওয়ানডে বিশ্বকাপের আয়োজকও তারা। এই সিরিজ ও বৈশ্বিক ইভেন্টের জন্য কোয়ারেন্টাইন ফ্যাসিলিটিস কেমন হবে, সেটা প্রকাশ করেছে নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেট।

    দেশটিতে যাওয়ার পর ম্যানেজড আইসোলেশন অ্যান্ড কোয়ারেন্টাইন (এমআইকিউ) ফ্যাসিলিটিসে ঢুকতে হবে সফরকারী দলের প্রত্যেককে। এটি বাধ্যতামূলক। বৃহস্পতিবার এমন একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে নিউ জিল্যান্ড সরকারের এমআইকিউ ওয়েবসাইটে। সেখানে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে মেয়েদের বিশ্বকাপের দলগুলোকেও। কিন্তু নেই ভারত সিরিজ সংক্রান্ত কোনো তথ্য।

    তার মানে দেশটির গণমাধ্যম আগামী বছরের মার্চে নির্ধারিত নিউ জিল্যান্ড ও ভারতের তিন ওয়ানডে স্থগিতের যে খবর দিয়েছিল, তা সত্যিই।

    আইসিসির ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম (এফটিপি) অনুযায়ী ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে নিউ জিল্যান্ডে দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। এমআইকিউতে ডিসেম্বরের শুরু থেকে সফরকারী দলের জন্য ৩৫ জনের থাকার জায়গা বরাদ্দ করা হয়েছে। জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে নেদারল্যান্ড খেলবে তিনটি ওয়ানডে। তাদের জন্যও ৩৫ জনের জায়গা রাখা হয়েছে। ফেব্রুয়ারি-মার্চে দুটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলতে যাওয়া দক্ষিণ আফ্রিকার বহরের সংখ্যাও একই থাকতে হবে। আর মেয়েদের বিশ্বকাপের জন্য ১৮১ জনের জায়গা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

    সরকারি বিধি মেনে এমআইকিউ অনুযায়ী নিউ জিল্যান্ডে যারা যাবেন তাদেরকে অন্তত ১৪ দিনের জন্য হোটেল রুমে ম্যানেজড আইসোলেশনে থাকতে হবে। যদি কেউ পজিটিভ হন, তাকে আলাদা কোয়ারেন্টাইন হোটেলে পাঠানো হবে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য। অভিবাসন মন্ত্রী ক্রিস ফাফোইর নেতৃত্বে বর্ডার এক্সেপেশন মিনিস্ট্রিয়াল গ্রুপ হোটেল রুম বরাদ্দের সিদ্ধান্ত নেবে।

    ঢাকা/ফাহিম

    সম্পর্কিত বিষয়:

    সর্বশেষ

    পাঠকপ্রিয়