Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ২৭ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ১১ ১৪২৮ ||  ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

Risingbd Online Bangla News Portal

শেষ ওভারের ম্যাজিকে রাজস্থানের জয় 

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০১:০৬, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১  
শেষ ওভারের ম্যাজিকে রাজস্থানের জয় 

পুরো ১৯ ওভার জুড়ে ম্যাচের লাগাম ছিল পাঞ্জাব কিংসের হাতে। কিন্তু কার্তিক ত্যাগির শেষ ওভারের ম্যাজিকে বদলে গেল দৃশ্যপট। ১৯ ওভার পর্যন্ত নিশ্চিত জয়ের পথে থাকা পাঞ্জাব নাটকীয় ভঙ্গিতে রাজস্থান রয়্যালসের কাছে হেরে যায় ২ রানে।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) টস হেরে আগে ব্যাটিং করে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৮৫ রান করে রাজস্থান। টার্গেটে খেলতে নেমে দারুণ ভাবে জয়ের পথে এগোতে থাকা পাঞ্জাব থামে ১৮৩ রানে। মোস্তাফিজদের রাজস্থান ২ রানের জয়ে মাঠ ছাড়ে হাসিমুখে।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য প্রয়োজন ৬ বলে মাত্র ৪ রান।   হাতে জমা ৮ উইকেট। এমন ম্যাচে দলটি হারবে স্বপ্নেও ভাববেন না কেউ। কিন্তু সব হিসেব উল্টে দিয়ে শেষ ওভারে নায়ক বনে গেলেন পেসার ত্যাগি।

শেষ ওভারে ক্রিজে ১৮ বলে ২৫ রান নিয়ে উইকেটে অ্যাডেন মার্করাম। অপ্রত্যাশিত ২১ বলে ৩২ রান করা নিকোলাস পুরান। ত্যাগির প্রথম বলে মার্করাম ডট দেন, দ্বিতীয় বলে মিডউইকেটে স্লগ করে নেন ১ রান। এরপরেই শুরু হয় ত্যাগির ম্যাজিক। তৃতীয় বলে থার্ডম্যান অঞ্চলে খেলতে উইকেটরক্ষক সঞ্জু স্যামসনের হাতে ধরা পড়েন পুরান। পাঞ্জাবের ভয়ের তখনো কিছু ছিল না। ৩ বলে প্রয়োজন ছিল ৩ রান। কিন্তু দীপক হুডা চতুর্থ বলে কোনো রানই নিতে পারেননি। পঞ্চম বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে ধরা পড়েন সেই স্যামসনের হাতেই। শেষ বলে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ৩ রান। পাঞ্জাব  ব্যাটসম্যান ফ্যাবিয়ান অ্যালেন বল ব্যাটেই লাগাতে পারেননি। কোনো রানই হলো না। রাজস্থান জিতে যায় ২ রানে।

পাঞ্জাবের হয়ে ওপেনিং জুটিতে সেঞ্চুরি পার্টনারশিপ গড়েন লোকেশ রাহুল (৪৯) ও মায়াংক আগারওয়াল (৬৭)। পরে মার্করাম-পুরান সঠিক পথে থাকলেও জয় এনে দিতে পারেননি। পুরান ৩২ রান আউট হন আর মার্করাম ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন।

প্রথম ৩ ওভারে ২৮ রান দিয়ে কোনো উইকেট না পাওয়া ত্যাগি শেষ ওভারে ২ উইকেট নিয়ে মাত্র ১ রান দেন। ১টি করে উইকেট নেন চেতন সাকারিয়া ও রাহুল তেওয়াতিয়া। মোস্তাফিজ ৪ ওভারে ৩০ রান দিয়ে ছিলেন উইকেট শূন্য। তবে তার বলে দুটি ক্যাচ ড্রপ হয়।

এর আগে এভিন লুইস (৩৬), জশ্বস্বী জয়সওয়াল (৪৯) ও মাহিপাল লামরোরের (৪৩) ব্যাটে চড়ে রাজস্থান ১৮৬ রানের টার্গেট দেয়। পাঞ্জাবের হয়ে  ৫ উইকেট নিয়েছিলেন আরশদীপ সিং। ৪ ওভারে ৩২ রান দিয়ে তিনি ৫ উইকেট নেন। টি-টোয়েন্টিতে এটি আরশদীপের ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। ম্যাচসেরার পুরষ্কার ওঠে শেষ ওভারের নায়ক 
ত্যাগির হাতেই।

ঢাকা/রিয়াদ/ এমএম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়